Raiganj : রাতের অন্ধকারে জমির ফসল তছনছ, ষাঁড়ের তাণ্ডবে মাথায় হাত কৃষকদের

কৃষকদের রাতের ঘুম কেড়ে নিয়েছে বেশ কয়েকটি ষাঁড়

ষাঁড়ের তাণ্ডবে চরম ক্ষতির মুখে পড়েছেন অভিযোগ, উত্তর দিনাজপুর জেলার রায়গঞ্জ (Raiganj) ব্লকের বরুয়া গ্রাম পঞ্চায়েতের বিস্তীর্ণ এলাকার কৃষকদের।

  • Share this:

    রায়গঞ্জ : ষাঁড়ের তাণ্ডবে চরম ক্ষতির মুখে পড়েছেন অভিযোগ, উত্তর দিনাজপুর জেলার রায়গঞ্জ (Raiganj) ব্লকের বরুয়া গ্রাম পঞ্চায়েতের বিস্তীর্ণ এলাকার কৃষকদের। সরকারের কাছে তাঁদের আবেদন, সমস্যা সমাধানে হস্তক্ষেপ করার জন্য ৷

    রায়গঞ্জ ব্লকের বরুয়া গ্রাম পঞ্চায়েতের শীষগ্রাম,গইতর, রারিয়া এলাকার মানুষ কৃষিকাজ করে জীবিকা অর্জন করেন। এই এলাকায় ধান, ভুট্টা চাষ ছাড়াও প্রচুর শাক সবজির চাষ হয়।  কৃষকদের রাতের ঘুম কেড়ে নিয়েছে বেশ কয়েকটি ষাঁড়। অভিযোগ, রাত হলেই এই তারা গ্রামে ঢুকে গিয়ে ফসল নষ্ট করছে। লক্ষ লক্ষ টাকা খরচ করে ধান,পাট, ভুট্টা এবং সবজি চাষ করে উৎপাদিত ফসল ঘরে তুলতে পারছেন না।

    কৃষকদের অভিযোগ, রাতের অন্ধকারে চতুষ্পদগুলি জমিতে ঢুকে শাক সবজি খেয়ে ফেলছে। এ ছাড়া ধান, পাট, ভুট্টা জমি তছনছ করছে ৷ বেশ কিছুদিন ধরে এই অবস্থা চললেও পঞ্চায়েত বা ব্লক প্রশাসনের তরফ থেকে ষাঁড় তাড়াবার কোন উদ্যোগ গ্রহণ করা হয়নি বলে অভিযোগ। স্থানীয় বাসিন্দা প্রিয়রঞ্জন মোদক জানান, ‘‘বেশ কিছুদিন ধরে কয়েকটি ষাঁড় গ্রামে ঢুকে আমাদের ফসল খেয়ে ফেলছে , নষ্ট করে দিচ্ছে।’’

    প্রশাসনিক হস্তক্ষেপে সমস্যার সমাধান না হলে আগামী দিনে তাঁদের অনাহারে থাকতে হবে, অভিযোগ, কৃষক সাগর মোদকের। তিনি জানান, সবজি চাষে প্রচুর অর্থ ব্যয় হয়। বিভিন্ন জায়গায় থেকে ঋণ নিয়ে তাঁরা এই চাষ করেন। ফসল হওয়ার পর বাজারে বিক্রি করে ঋণ শোধ করেন। ষাড়ের অত্যাচারে ফসল ঘরে তুলতে না পারলে তারা চরম আর্থিক ক্ষতির মুখে পড়বেন।

    রায়গঞ্জ পঞ্চায়েত সমিতির সহ-সভাপতি মানস ঘোষের আশ্বাস, ‘‘ষাঁড়ের অত্যাচার সম্বন্ধে গ্রামবাসীদের কাছ থেকে অভিযোগ পেয়েছি।  বিষয়টি নিয়ে ব্লক প্রশাসনের কর্তাদের সঙ্গে এ বিষয় নিয়ে আলোচনা করে প্রয়োজনীয় পদক্ষেপ গ্রহণ করা হবে ৷’’

    Published by:Arpita Roy Chowdhury
    First published: