• Home
  • »
  • News
  • »
  • north-bengal
  • »
  • খুব সস্তায় আলু পাওয়া যাচ্ছে মালদহে ! কাজ ফেলে আলু কেনার লাইনে অসংখ্য মানুষের ভিড় !

খুব সস্তায় আলু পাওয়া যাচ্ছে মালদহে ! কাজ ফেলে আলু কেনার লাইনে অসংখ্য মানুষের ভিড় !

আলু কিনতে লম্বা লাইন মালদহ শহরে। মাত্র ২৫ টাকা কেজি দরে সুফল বাংলা স্টল থেকে আলু কেনার হিড়িক।

আলু কিনতে লম্বা লাইন মালদহ শহরে। মাত্র ২৫ টাকা কেজি দরে সুফল বাংলা স্টল থেকে আলু কেনার হিড়িক।

আলু কিনতে লম্বা লাইন মালদহ শহরে। মাত্র ২৫ টাকা কেজি দরে সুফল বাংলা স্টল থেকে আলু কেনার হিড়িক।

  • Share this:

#মালদহ: আলু কিনতে লম্বা লাইন মালদহ শহরে। মাত্র ২৫ টাকা কেজি দরে সুফল বাংলা স্টল থেকে আলু কেনার হিড়িক। পথ চলতি মানুষ যাঁরাই দেখছেন, তাঁরাই সটান দাঁড়িয়ে পড়ছেন লাইনে।  খোলাবাজারে আলু কিনতে গিয়ে হাত পুড়ছে মধ্যবিত্তের। বাজারে আলু ৪০ টাকা প্রতি কেজি। সেখানে প্রতি কেজিতে ১৫ টাকা সাশ্রয়ের সুযোগ। হাতছাড়া করতে চাননি কেউই। এদিন সকাল থেকে মালদহ শহরের মকদমপুর বাজার এলাকায় একটি দোকান ঘর থেকে সরকারিভাবে আলু বিক্রির কাজ শুরু করে কৃষি বিপনন দফতর। বিভিন্ন কাজে বেরোনো পথচলতি মানুষজনকে দেখা যায় সস্তায় আলু বিক্রির খবর জানা মাত্রই একের পর এক লাইনে দাঁড়িয়ে পড়ছেন। এভাবে বেড়েই চলেছে লাইন।

শহরে ডাক্তার দেখাতে আশা গৃহবধূকেও  দেখা গেল আলু বিক্রির লাইনে দাঁড়িয়ে পড়তে। অনেকে আবার লাভ ক্ষতির অঙ্ক করে নতুন ব্যাগ কিনে এনে লাইনে দাঁড়িয়ে পড়লেন। এভাবেই জরুরী কাজ ছেড়ে সাধারণ, উচ্চবিত্ত, মধ্যবিত্তকে একই সঙ্গে লাইনে এনে দাঁড় করালো সস্তার আলু। জানা গিয়েছে, পূর্ব বর্ধমান থেকে এদিন ২০ টন আলু আনা হয় মালদহে। দুপুর গড়াতে না গড়াতেই ৮০ ভাগ আলু শেষ। শয়ে শয়ে মানুষ রীতিমতো লাইনে দাঁড়িয়ে আলু কিনে নিয়ে বাড়ি গেলেন। মালদহ নিয়ন্ত্রিত বাজার সমিতির সচিব অনুপম মিত্র জানান, ডিসেম্বর মাসের মাঝামাঝি সময় পর্যন্ত প্রতিদিনই আলু বিক্রির পরিকল্পনা নেওয়া হয়েছে। মাথাপিছু চার কেজি করে আলু বিক্রির সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে। প্রথম দিনেই মানুষের ব্যাপক চাহিদা লক্ষ্য করা গিয়েছে। প্রতিদিন সকাল সাড়ে আটটা থেকে সরকারি আলু বিক্রয় কেন্দ্র খোলা হবে।এদিন বিক্রি হওয়া আলু গুণমানেও যথেষ্ট ভালো ছিল। ফলে সরকারি উদ্যোগে সন্তুষ্ট ক্রেতারা। তবে, সরকারি উদ্যোগের পর খোলা বাজারে আলুর দাম আদৌ নিয়ন্ত্রণে আসবে কিনা এখন সেটাই প্রশ্ন।

সেবক দেবশর্মা

Published by:Piya Banerjee
First published: