শিলিগুড়িতে অস্বাভাবিক মৃত্যু, দিনভর চলল রাজনৈতিক চাপানউতর

Bangla Editor | News18 Bangla
Updated:Apr 04, 2019 08:17 PM IST
শিলিগুড়িতে অস্বাভাবিক মৃত্যু, দিনভর চলল রাজনৈতিক চাপানউতর
photo: News18 Bangla
Bangla Editor | News18 Bangla
Updated:Apr 04, 2019 08:17 PM IST

#শিলিগুড়ি: একটি অস্বাভাবিক মৃত্যু ও তাকে ঘিরে ভোটের রাজনীতি। সেই রাজনীতির সাক্ষী থাকলেন বঙ্গবাসী। সৌজন্যে ভারতীয় জনতা পার্টি। শিলিগুড়ির ডাবগ্রাম-ফুলবাড়িতে, বিজেপি বুথ কার্যালয়ে আজ এক ব্যক্তির ঝুলন্ত দেহ উদ্ধার হয়। মৃত ব্যক্তি দলের কেউ নন বললেও, জাতীয় নির্বাচন কমিশনে রাজ্যের আইনশৃঙ্খলা নিয়ে অভিযোগ ঠুকেছে বিজেপি।

বুধবারই একটি হনুমানের মৃত্যু ঘিরে রাজনীতি দেখেছে এ রাজ্য। এবার একজন মানুষের অস্বাভাবিক মৃত্যু নিয়েও ভোটের রাজনীতি দেখলেন বঙ্গবাসী। দেখলেন কীভাবে একটি মৃত্যুকেও রাজনীতির অস্ত্র করা যায়। ঘটনাস্থল শিলিগুড়ির ডাবগ্রাম-ফুলবাড়ি। এখানেই বিজেপির বুথ কার্যালয় থেকে বৃহস্পতিবার সকালে এক ব্যক্তির ঝুলন্ত দেহ উদ্ধার করা হয়। মৃত আশিঘর পুলিশ ফাঁড়ি এলাকার বাসিন্দা নিত্যকুমার মণ্ডল। কাজ করতেন স্থানীয় একটি চকোলেট ফ্যাক্টরিতে। পরিবারের দাবি, রাজনীতির সঙ্গে তাঁর কোনওদিনই কোনও যোগ নেই। দীর্ঘদিন ধরে অসুস্থতার কারণে মানসিক অবসাদে ভুগছিলেন বছর চল্লিশের নিত্যকুমার। বুধবার রাতে বাড়ি থেকে একটি গামছা নিয়ে বেরোন। তারপর এদিন বিজেপির কার্যালয় থেকে মেলে তাঁর ঝুলন্ত

দেহ। অবসাদের কারণেই আত্মহত্যা কিনা খতিয়ে দেখছে আশিঘর ফাঁড়ির পুলিশ। তবে ভোটের মুখে বিতর্ক এড়াতে, তড়িঘড়ি বিজেপি জানিয়ে দেয়, মৃত ব্যক্তি দলের কেউ নন।

তবে কিছুক্ষণের মধ্যেই ভোলবদল। রাজ্য নেতারা এক কথা বললেও, দিল্লিতে নির্বাচন সদনে গিয়ে সটান রাজ্যের আইনশৃঙ্খলা নিয়ে নালিশ ঠুকে দেয় গেরুয়া শিবির। রাজ্যের শাসকদল তৃণমূলের অবশ্য সাফ কথা, ভোটের সময়ে আইনশৃঙ্খলা কমিশনের এক্তিয়ারে। বুধবার বর্ধমান দুই ব্লকের ছোটবেলুন এলাকায় কীটনাশক খেয়ে ফেলায় মৃত্যু হয় একটি পুর্ণবয়স্ক হনুমানের। সেই হনুমানকে তৃণমূলের পতাকায় মুড়ে, একরকম রাষ্ট্রীয় মর্যাদায় শেষকৃত্য করে, খবরের শিরোনামে এসেছে স্থানীয় তৃণমূল নেতৃত্ব। সেসব দেখে বিজেপি অভিযোগ করেছিল, ভোটের মুখে হনুমান নিয়েও রাজনীতি করছে রাজ্যের শাসকদল। তার চব্বিশ ঘণ্টার মধ্যে গেরুয়া শিবিরও দেখিয়ে দিল, রাজনীতি সত্যিই বড় বালাই।

First published: 08:17:03 PM Apr 04, 2019
পুরো খবর পড়ুন
Loading...
अगली ख़बर