Home /News /north-bengal /

Maldah News: মাদক কারবারীদের ধরিয়ে দিতে গিয়ে পুলিশের 'সোর্স'-এর করুণ পরিণতি

Maldah News: মাদক কারবারীদের ধরিয়ে দিতে গিয়ে পুলিশের 'সোর্স'-এর করুণ পরিণতি

Police Source Killed In Maldah: পুলিশের সেই সোর্স স্কুলপড়ুয়া। তাঁর এমন পরিণতি পরিবার ও এলাকার লোকজন মেনে নিতে পারছেন না।

  • Share this:

#মালদহ: মালদহের কালিয়াচকে মাদক কারবারীদের বিরুদ্ধে অভিযানে পুলিশকে লক্ষ্য করে গুলি। লক্ষ্যভ্রষ্ট হওয়াতে পুলিশকর্মী প্রাণে বাঁচলেও গুলিতে মৃত্যু পুলিশের "সোর্স" এর।

মৃত রাজীব শেখ বৈষ্ণবনগরের কুম্ভীরা এলাকার বাসিন্দা। গুলির ঘটনায় গ্রেপ্তার আসমাউল শেখ নামে এক দুষ্কৃতী। উদ্ধার সেভেন এমএম পিস্তল এবং প্রায় চারশো  গ্রাম ব্রাউন সুগার। যদিও পুলিশের অভিযানের সময় পালিয়ে যায় আরও এক মাদক কারবারি।

আরও পড়ুন- বিকানের-গুয়াহাটি এক্সপ্রেসের দুর্ঘটনার তদন্তে দিনভর আজ নজরে ট্রেনের ইঞ্জিন

দীর্ঘদিন ধরেই ব্রাউন সুগার পাচারকারী চক্র সক্রিয় মালদহে। মালদহের কালিয়াচক করিডরকে ব্যবহার করে দীর্ঘদিন ধরেই সক্রিয় মাদক কারবারি চক্র। পুলিশ গত কয়েকমাসে লাগাতার অভিযান চালানোয় বেশ কিছু মাদক কারবারি গ্রেপ্তার হয়েছে।

বেশি মাত্রায় মাদক আটক হলেও এখনো মাদকচক্রের সাপ্লাই লাইন কাটতে পারেনি পুলিশ। এই সুযোগে চোরাগোপ্তাভাবে সক্রিয় রয়েছে মাদক পাচার চক্র। জানা গিয়েছে, গতকাল মাদকের লেনদেনের বিষয়ে আগাম "সোর্স" মারফত খবর পেয়ে কালিয়াচকের বালিয়াডাঙ্গা এলাকায় হানা দেয় পুলিশ।

দুটি দলে ভাগ হয়ে একটি সাদা পোশাকের পুলিশ বাহিনী, ও একটি উর্দিধারী পুলিশের দল ওই এলাকায় হানা দেয়। পুলিশ জানিয়েছে, মাদকের লেনদেনের সময় সোর্সের মারফত দোষীদের চিহ্নিত করা হয়। এর পর সাদা পোশাকের পুলিশের দল এক কারবারিকে মাদকসহ হাতেনাতে গ্রেপ্তারের চেষ্টা করলে আসমাউল শেখ নামে এক দুষ্কৃতী আচমকাই পুলিশকে লক্ষ্য করে গুলি চালায়।

দুষ্কৃতির ছোঁড়া গুলি লক্ষ্যভ্রষ্ট হওয়ায় প্রাণে বেঁচে যান উপস্থিত পুলিশকর্মীরা। কিন্তু তলপেটে গুলি লাগে রাজীব সেখ নামে স্কুল পড়ুয়ার।পুলিশ তড়িঘড়ি তাঁকে উদ্ধার করলে মালদা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে চিকিৎসার জন্য আনে। ভোররাতে সেখানেই মৃত্যু হয় কুম্ভীরা হাইস্কুলের ছাত্র রাজীবের।

আরও পড়ুন- বিকট শব্দ শুনে ছুটে আসা, তারপর প্রাণ বাঁচানোর লড়াই! আজ রিয়েল লাইফ হিরো জবেদুলরা

শনিবার দুপুরে অস্ত্রসহ গ্রেপ্তার আজমল সেখকে সঙ্গে নিয়ে ফের এলাকায় যায় পুলিশ। মালদহের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (গ্রামীণ) আনিস সরকার, মালদহের ডিএসপি হেডকোয়ার্টার প্রশান্ত দেবনাথ সহ পদস্থ পুলিশকর্তারা। এলাকায় নিয়ে গিয়ে ধৃতকে জিজ্ঞাসাবাদ চালায় পুলিশ। ধৃতকে আরও জিজ্ঞাসাবাদের জন্য হেফাজতে নিতে চাই পুলিশ।

যেভাবে দুষ্কৃতীদের গুলিতে "সোর্স"এর মৃত্যুর ঘটনা ঘটেছে তাতে পুলিশের পরিকল্পনা নিয়েও প্রশ্ন উঠেছে। শনিবার মালদা মেডিকেল কলেজ মর্গে কান্নায় ভেঙে পড়েন মৃতের পরিজনেরা। এই ঘটনার উপযুক্ত তদন্ত ও দোষীদের দৃষ্টান্তমূলক শাস্তির দাবি জানিয়েছে মৃতের পরিবার।

Published by:Suman Majumder
First published:

Tags: Firing, Maldah, Maldah news, Police

পরবর্তী খবর