ডালখোলায় জাল বিদেশি মদের কারখানার হদিশ, পলাতক অভিযুক্ত

ডালখোলায় জাল বিদেশি মদের কারখানার হদিশ, পলাতক অভিযুক্ত

গোপন সূত্রে খবর পেয়ে ডালখোলা থানার পুলিশ সামসুলের বাড়িতে হানা দেয়।

গোপন সূত্রে খবর পেয়ে ডালখোলা থানার পুলিশ সামসুলের বাড়িতে হানা দেয়।

  • Share this:

#ডালখোলা: ডালখোলা থানার পূর্ব গোয়াগাও গ্রামের বাসিন্দা সামসুল হক নামে এক ব্যাক্তির বাড়িতে হানা দিয়ে উদ্ধার প্রচুর বিদেশি মদ এবং মদ তৈরীর সরঞ্জাম। বাজেয়াপ্ত করা হয়েছে একটি পিক আপ ভ্যান, ছয়টি বিহার নম্বরের মোটরবাইক, দশ ড্রাম স্পিরিট। অভিযুক্ত সামসুলকে গ্রেপ্তার করতে পারে নি পুলিশ। ডালখোলার পুলিশ অভিযুক্ত সামসুলের বিরুদ্ধে মামলা দায়ের করে তদন্ত শুরু করেছে।

ডালখোলা পুলিশ সূত্রে জানা গেছে, পূর্ব গোয়াগাও গ্রামে সামসুল নামে এক ব্যক্তি বিদেশ মদের সরঞ্জাম কিনে এনে সেখানে মদ তৈরী করে বিদেশী মদের লেবেলে ভরে বাজারে বিক্রি করেন।গতকাল রাতে গোপন সূত্রে খবর পেয়ে ডালখোলা থানার পুলিশ সামসুলের বাড়িতে হানা দেয়। উদ্ধার হয় একটি পিক আপ ভ্যান, ছয়টি মোটরবাইক, ৬০ কাটুন বিদেশি মদ, ১০ ড্রাম কাচা স্পিরিট, ৭০০ বোতলের ছিপি,  ২১০ পিস বিদেশি মদের ষ্টীকার, ৫০০ খালি বোতল বাজেয়াপ্ত করে। ডালখোলা পুলিশ জানিয়েছে, অভিযুক্ত সামসুলকে খুজে পাওয়া যায় নি। সে পলাতক।

ডালখোলা থানার পুলিশ আরো জানান, যে ছয় টি মোটরবাইক বাজেয়াপ্ত করা হয়েছে তারা কি করতে এখানে আসত সেই বিষয়টি খতিয়ে দেখা হচ্ছে। পুলিশের প্রাথমিক অনুমান, বিহারে মদ নিষিদ্ধ হবার পর থেকে চোরাপথে এই জাল বিদেশী মদ বিহারে পাচার হত। রাতের অন্ধকারেই সেই জাল মদ বিহারে পাচার হত। পুলিশ যে মোটরবাইকগুলো বাজেয়াপ্ত করেছে প্রত্যেকটি বিহারের নম্বরের।পুলিশ জানিয়েছে,অভিযুক্তকে গ্রেপ্তার করা হলে পুরো ঘটনাটি পরিস্কার হবে।

Published by:Dolon Chattopadhyay
First published: