• Home
  • »
  • News
  • »
  • north-bengal
  • »
  • লক ডাউন ভাঙলেই ব্যবস্থা, শিলিগুড়ির পথে নামল পুলিশ

লক ডাউন ভাঙলেই ব্যবস্থা, শিলিগুড়ির পথে নামল পুলিশ

শহর ছাড়িয়ে গ্রামের হাটে থিক থিক ভিড়ের ছবি। সচেতনতার অভাব সর্বত্র।

শহর ছাড়িয়ে গ্রামের হাটে থিক থিক ভিড়ের ছবি। সচেতনতার অভাব সর্বত্র।

শহর ছাড়িয়ে গ্রামের হাটে থিক থিক ভিড়ের ছবি। সচেতনতার অভাব সর্বত্র।

  • Share this:

#শিলিগুড়িঃ করোনা মোকাবিলায় সেরা ওষুধ লক ডাউন। অর্থাৎ জনসমাগম নয়। কড়া নির্দেশ রাজ্য এবং কেন্দ্রের। তবুও লকডাউন উপেক্ষা করার ছবি প্রায় সব জেলাতেই। উত্তর হোক কিংবা দক্ষিন রাজ্যের সব প্রান্তেই একই ছবি। সকালে বাজারঘাটে ভিড়। কোথায় সামাজিক দূরত্ব! কোনো বালাই নেই। শহর ছাড়িয়ে গ্রামের হাটে থিক থিক ভিড়ের ছবি। সচেতনতার অভাব সর্বত্র।

আবার কোথাও লকডাউন কি? তা দেখতে, পরখ করতে রাস্তায় নেমে পড়া। মাঝে পুলিশ হালকা চালে চলায় মানুষের ভিড় বাড়তে থাকে। আজ থেকে ফের কড়া পুলিশ। শিলিগুড়ির বিভিন্ন জায়গায় বিশেষ অভিযানে নেমেছে পুলিশ। সন্ধ্যে হতেই লাঠি হাতে শহরের রাস্তায় পুলিশি টহল চলছে। পথে নামলেই আটকে চলছে  জিজ্ঞাসাবাদ। সঠিক নথি দেখাতে না পারলেই ব্যবস্থা। কিন্তু মোটর বাইক বা চার চাকার গাড়ি রাস্তায় নামলেই দাঁড় করিয়ে চলে পুলিশি জেরা। সকলেরই এক কথা ওষুধ কিনে ফিরছি বা ওষুধ কিনতে যাচ্ছি। অথচ অনেকে প্রেসক্রিপশন পর্যন্ত দেখাতে পারেনি। আবার কেউ বলছে মেডিকেলে রুগী ভর্তি আছে, তাই যাচ্ছি। আবার কেউ যাচ্ছেন নার্সিংহোমে। অর্থাৎ কিনা সেই একই অজুহাত মেডিকেল। অনেকেই আবার বাইক বা গাড়ির সামনে বড় করে সেঁটে দিয়েছে "অন মেডিকেল ডিউটি"। অথচ নেই কোনও পরিচয়পত্র। তাঁদের বিরুদ্ধে কড়া ব্যবস্থা নেওয়ার কথা ঘোষণা করেছে পুলিশ। আজ সন্ধ্যে থেকেই শুরু হয় পুলিশি নজরদারি।

কিন্তু সাধারন মানুষকে বোঝাবে কে! লকডাউন ভাঙলে কাউকে ছাড়া হবে না, নির্দেশ রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রীর। তবুও এক শ্রেণীর মানুষ প্রতিদিনই কেউ বাজারের আছিলায়, কেউ ওষুধ কেনার অজুহাত দেখিয়ে নামছে রাস্তায়। তাদের বিরুদ্ধে আর কবে ব্যবস্থা নেবে পুলিশ? প্রশ্ন তুলেছেন ঘর বন্দী মানুষেরা। আজ শিলিগুড়ির হাসমি চক, মহাত্মা গান্ধী মোড়, জংশন মোড়, দার্জিলিং মোড়ে চলে পুলিশি অভিযান। বেশ কয়েকজনকে আটকও করেছে পুলিশ। কাল রবিবার শহরে ভিড়ের ওপর নজর রাখবে পুলিশ।

Partha Sarkar

Published by:Shubhagata Dey
First published: