সোনা ছিনতাই করে গ্রেফতার খোদ পুলিশ! দেড় কেজি সোনা লুঠের অভিযোগ

সোনা ছিনতাই করে গ্রেফতার খোদ পুলিশ!  দেড় কেজি সোনা লুঠের অভিযোগ

দায়িত্ব চোর ধরা। সেই পুলিশি এবার চোর। সোনা ছিনতাইয়ের অভিযোগে গ্রেফতার হল মালদহের ইংরেজবাজার থানার এএসআই রাজীব পাল সহ দুজন।

  • Share this:
#মালদহ: রক্ষকই ভক্ষক। সোনা ছিনতাইয়ের অভিযোগে গ্রেফতার খোদ পুলিশ অফিসার । ২০১৯-এ সোনা ছিনতাইয়ের অভিযোগে ওঠে। ঘটনায় এক সিভিক ভলান্টিয়ারকেও গ্রেফতার করেছে পুলিশ। দায়িত্ব চোর ধরা। সেই পুলিশি এবার চোর। সোনা ছিনতাইয়ের অভিযোগে গ্রেফতার হল মালদহের ইংরেজবাজার থানার এএসআই রাজীব পাল সহ দুজন। ধৃতদের মধ্যে এক সিভিক ভলান্টিরায় ও এক ব্যবসায়ীও রয়েছেন। ঘটনার সূত্রপাত বেশ কয়েক মাস আগের। ৩০ মে ২০১৯, ব্যবসায়ী স্বাগত মন্ডল গঙ্গারামপুর থেকে সোনার গয়না নিয়ে ফিরছিলেন ৷ সোনার পরিমাণ ছিল প্রায় ১ কেজি ৪০০ গ্রাম ৷ ব্যবসায়ী স্বাগত মন্ডলের অভিযোগ বাইপাসে ট্যাক্সি থামিয়ে সোনা ছিনতাই হয় ৷ সেই সময় কনস্টেবল ছিলেন রাজীব পাল। পরে এএসআই পদে প্রমোশন পান। বর্তমানে ইংরেজবাজার থানায় কর্মরত রাজীব।
কিছুদিন আগে মালদহের জেলা পুলিশ হেড কোয়ার্টার এলাকায় ছিনতাই হয় ৷ এক মহিলা অভিযোগ করেন তিন জন পুলিশ কর্মী টোটো থামিয়ে গয়না ছিনতাই করে পুলিশ সুপারের নির্দেশে শুরু হয় তদন্ত। এক সন্দেহভাজনকে জিজ্ঞাসাবাদ করতেই উঠে আসে পুলিশ কর্মী রাজীব পালের নাম। জাল গোটাতে গ্রেফতার করা হয় এএসআই রাজীব পালকে। তাকে জেরা করেই জানা যায় এক বছর আগের অপরাধের কথা। গ্রেফতার করা হয় ইলিয়াস সবজি নামের এক সিভিক ভলান্টিয়ারকে। ভুয়ো অভিযোগ দায়ের করার অভিযোগে গ্রেফতার করা হয় ব্যবসায়ী স্বাগত মন্ডলকেও। ধৃত ইংরেজবাজার থানার এএসআই রাজীব পালকে ছ দিনের হেফাজতের নির্দেশ দিয়েছে আদালত। ঘটনায় আরও কয়েকজন যুক্ত বলে জানতে পেরেছে পুলিশ। তাদের খোঁজে চলছে তল্লাশি। Sebak DebSarma
First published: February 18, 2020, 4:10 PM IST
পুরো খবর পড়ুন
अगली ख़बर