জেলায় জেলায় এনআরসি-আতঙ্ক, ডিজিটাল রেশন কার্ডের জন্য লম্বা লাইনে মৃত্যু ব্যক্তির

জেলায় জেলায় এনআরসি-আতঙ্ক, ডিজিটাল রেশন কার্ডের জন্য লম্বা লাইনে মৃত্যু ব্যক্তির

দক্ষিণ দিনাজপুরের বালুরঘাটের জলঘর এলাকার বাসিন্দা বছর ৫২ র মন্টু সরকার। চাষবাস করে সংসার চলে।

  • Share this:

#বালুরঘাট: এনআরসি আতঙ্কের জেরে ডিজিটাল রেশন কার্ডের লাইনে উপচে পড়া ভিড়। সেই লাইনে দাঁড়িয়েই এবার মৃত্যু হল বালুরঘাটের বাসিন্দার। ময়নাগুড়িতে আত্মঘাতী যুবক। পরিবারের অনুমান, এনআরসি উদ্বেগে অবসাদের জেরেই আত্মহত্যা।

অসমে চূড়ান্ত তালিকা প্রকাশের পর থেকেই পশ্চিমবঙ্গের বিভিন্ন প্রান্তে এনআরসি আতঙ্ক। যার জেরে জেলায় জেলায় ডিজিটাল রেশন কার্ড করানোর জন্য দীর্ঘ লাইন। সেই লাইনে দাঁড়িয়েই এবার মৃত্যু।

দক্ষিণ দিনাজপুরের বালুরঘাটের জলঘর এলাকার বাসিন্দা বছর ৫২ র মন্টু সরকার। চাষবাস করে সংসার চলে।

বৃহস্পতিবার তিনি সারাদিন লাইনে দাঁড়িয়েও ডিজিটাল রেশন কার্ড করাতে পারেননি। এমনই ভিড়। শুক্রবার ফের লাইনে দাঁড়ান। সকাল এগারোটা নাগাদ হঠাৎ অজ্ঞান হয়ে পড়ে যান মণ্টু। হাসপাতালে নিয়ে যাওয়ার আগেই মৃত্যু হয় তাঁর।

জলপাইগুড়ির ময়নাগুড়িতে আবার, এনআরসি আতঙ্কে আত্মঘাতী হওয়ার অনুমান পরিবারের।

Loading...

শুক্রবার সকালে বাড়ির সামনের গাছ থেকে তাঁর ঝুলন্ত দেহ উদ্ধার হয়। পরিবারের দাবি, প্রয়োজনীয় নথি খুঁজে পাচ্ছিলেন না। সেই থেকে এনআরসি আতঙ্কে ভুগছিলেন। তার জেরেই আত্মঘাতী হয়ে থাকতে পারেন বলে পরিবারের অনুমান।

অসমে এনআরসির পরে বিজেপির টার্গেট বাংলায় এনআরসি। এতে রাজ্যের অনেকেরই আশঙ্কা, কাগজপত্র ঠিক না থাকলে আগামী দিনে তাঁদেরও ভিটেমাটি হারাতে হতে পারে। সে কারণেই মুর্শিদাবাদের হরিহরপাড়া থেকে শুরু করে পশ্চিম মেদিনীপুরের কেশপুর, উত্তর ২৪ পরগনার আমডাঙা, সর্বত্রই এনআরসি-আতঙ্ক। রেশন কার্ড সংশোধন বা ডিজিটাল রেশন কার্ড তৈরির জন্য পড়ছে দীর্ঘ লাইন। পরিস্থিতি এমন পর্যায়ে পৌঁছেছে যে, বৃহস্পতিবার, কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রীর সঙ্গে বৈঠকে, এ বিষয়ে উদ্বেগ প্রকাশ করেন মুখ্যমন্ত্রী।

First published: 07:45:28 PM Sep 20, 2019
পুরো খবর পড়ুন
Loading...
अगली ख़बर