covid-19 2nd wave: নেই সামাজিক দূরত্ব বিধি, নেই মাস্ক, দিনভর এভাবেই চলল রতুয়ার একাধিক জায়গায় ভোট

covid-19 2nd wave: নেই সামাজিক দূরত্ব বিধি, নেই মাস্ক, দিনভর এভাবেই চলল রতুয়ার একাধিক জায়গায় ভোট

west Bengal election 2021

একদিকে যখন রাজ্যজুড়ে করোনার সংক্রমণ বাড়ছে পাশাপাশি পিছিয়ে নেই মালদা জেলাও।

  • Share this:

#মালদা: রাজ্য জুড়ে বাড়ছে করোনা। সংক্রমণ আটকাতে একের পর এক নির্দেশিকা জারি করছে নবান্ন থেকে শুরু করে নির্বাচন কমিশন। কিন্তু নির্দেশিকাই সার। নিয়ম মানে কে? মালদার রতুয়া বিধানসভার সপ্তম দফার ভোট গ্রহণে একাধিক বুথে অন্তত নিয়ম ভাঙার ছবিটাই ধরা পড়ল। একাধিক বুথে সামাজিক দূরত্ব বিধির নিয়ম মানা তো দূর, উল্টে কার্যত গা ঘেষাঘেষি করেই ভোটাররা ভোট দেওয়ার জন্য লাইনে দাঁড়িয়ে থাকার ছবি ধরা পড়েছে। পাশাপাশি আবার মাস্ক ছাড়াই ভোট কেন্দ্র পর্যন্ত চলে এসেছেন একাধিক ভোটার। কেন মাস্ক ছাড়া ভোটকেন্দ্রে তারা? তা জিজ্ঞাসা করতেই কেউ গামছা দিয়ে মুখ ঢেকেছেন আবার কেউ বাড়ি থেকে আনতে ভুলে গেছেন, কার্যত এরকম কারণেই ব্যাখ্যা দিচ্ছেন একাধিক ভোটার। রতুয়া বিধানসভার একাধিক বুথ এমনই ছবি সপ্তম দফার ভোট গ্রহণ কেন্দ্র করে ধরা পড়ল।

একদিকে যখন রাজ্যজুড়ে করোনার সংক্রমণ বাড়ছে পাশাপাশি পিছিয়ে নেই মালদা জেলাও। পাল্লা দিয়ে বেড়ে চলেছে মালদা জেলার সংক্রমণও। একাধিকবার জেলা প্রশাসন করোনা পরিস্থিতি নিয়ে বৈঠকে বসলেও সোমবারের ছবি কার্যত শিহরণ তৈরি করছে। রতুয়া বিধানসভার উত্তর সাহাপাড়া থেকে শুরু করে সামসি একাধিক জায়গায় ভোটারদের করোনা বিধি না মানার ছবি ধরা পড়েছে। যদিও জেলা প্রশাসনের দাবি এক একটি স্কুলে একাধিক বুথ পড়ে যাওয়াতে এই সমস্যা তৈরি হয়েছে। ইরিন রতুয়া বিধানসভার একাধিক বুথে দেখা গেছে গা ঘেষাঘেষি করে ভোটাররা ভোট দেবার জন্য লাইনে দাঁড়িয়ে রয়েছেন। শুধু তাই নয়, ভোট কেন্দ্রের ভেতরে চক দিয়ে সামাজিক দূরত্ব বিধি মানার জন্য নির্দিষ্ট জায়গা করে দেওয়া হলেও, একাধিক ভোটার তা মানতে চাইছে না। কেন্দ্রীয় বাহিনীকেও সামাজিক দূরত্ব বিধি মেনে যাতে ভোটাররা লাইনে দাঁড়ান তা দেখতে হচ্ছে। কার্যত গোটা সোমবারই এই ছবি ধরা পরল রতুয়া বিধানসভার একাধিক বুথে।

অন্যদিকে সোমবার মালদা জেলার ভোটগ্রহণকে কেন্দ্র করে বিশেষত রতুয়ার ভোটগ্রহণকে কেন্দ্র করে অশান্তির আশঙ্কা করেছিল নির্বাচন কমিশন। তার জেরে রতুয়ার একাধিক বুথে ওয়েব কাস্টিং সহ একাধিক নিরাপত্তামূলক ব্যবস্থা করেছিল কমিশন। গত পঞ্চায়েত ভোট, লোকসভা ভোটে ও রক্তপাতের ঘটনা ঘটেছিল এই রতুয়া বিধানসভাতেই। পঞ্চায়েত ভোটে ভোট লুটের পর্যন্ত অভিযোগ উঠেছিল। কিন্তু এদিন নির্বিঘ্নে ভোট হওয়াতে খুশি ভোটাররা। অনেকদিন বাদে এরকমভাবে ঘটনায় খুশি তরুণ প্রজন্মের ভোটাররাও। কেন্দ্রীয় বাহিনীর ভূমিকাতে এদিন সন্তোষ প্রকাশ করেছেন একাধিক রাজনৈতিক দল। সবমিলিয়ে করোনা বিধিকে তোয়াক্কা না করে ও নির্বিঘ্নেই সোমবার শেষ হল রতুয়া বিধানসভার ভোট।

 সোমরাজ বন্দ্যোপাধ্যায়

Published by:Piya Banerjee
First published: