হোম /খবর /উত্তরবঙ্গ /
করোনা আবহে ভিন রাজ্য থেকে আসা বাসিন্দাদের চিহ্নিত করতে লাগানো হবে ভোটের কালি

করোনা আবহে ভিন রাজ্য থেকে আসা বাসিন্দাদের চিহ্নিত করতে লাগানো হবে ভোটের কালি

কোয়ারেন্টাইন সেন্টার থেকে বাড়ি চলে গেলেও তারা পার পাবেন না। কড়ে আঙুলের কালি দেখে তাদের চিহ্নিত করে ফের কোয়ারেন্টাইন সেন্টারে পাঠানো হবে।

  • Last Updated :
  • Share this:

#বর্ধমান: মহারাষ্ট্র, দিল্লিসহ ব্যাপকভাবে করোনা আক্রান্ত পাঁচ  রাজ্য থেকে আসা যাত্রীদের আঙুলে কালি লাগানো হবে। ওই পাঁচ রাজ্য থেকে আসা যাত্রীদের চিহ্নিত করতেই এই সিদ্ধান্ত নিয়েছে রাজ্য স্বাস্থ্য দফতর। সেই সঙ্গে ওই পাঁচ রাজ্য থেকে আসা যাত্রীদের বাধ্যতামূলকভাবে কোয়ারেন্টাইন সেন্টারে রাখার নির্দেশ দেওয়া হয়েছে। সেই নির্দেশ অমান্য করে কেউ বাড়ি চলে গেলে তাদের চিহ্নিত করতেই কনিষ্ঠ আঙুলে কালি লাগানোর সিদ্ধান্ত। ইতিমধ্যেই জেলাগুলিকে সেই নির্দেশ পাঠিয়ে দেওয়া হয়েছে।

পূর্ব বর্ধমান জেলায় স্বাস্থ্য দপ্তরের নির্দেশিকা মেনে কালি লাগানোর প্রস্তুতিও শুরু হয়েছে। প্রচুর সংখ্যক যাত্রীদের নমুনা পরীক্ষার চাপ সামলাতে উপসর্গ নেই এমন যাত্রীদের নমুনা না নিয়ে সরাসরি বাড়ি পাঠিয়ে দেওয়ার কর্মসূচি নিয়েছিল রাজ্য স্বাস্থ্য দফতর। তাতে উপসর্গ না থাকা যাত্রীদের মাধ্যমে ব্যাপকভাবে করোনা ছড়িয়ে পড়তে পারে বলে আশঙ্কা করছিলেন বিশেষজ্ঞরা। সেজন্য সেই নির্দেশিকা বাতিল করে জেলাগুলিতে নতুন নির্দেশিকা পাঠানো হয়েছে ।তাতে বলা হয়েছে, মহারাষ্ট্র, দিল্লি, গুজরাট, মধ্যপ্রদেশ ও তামিলনাড়ু - প্রবলভাবে করোনা আক্রান্ত এই পাঁচ রাজ্য থেকে যারা আসবেন তাদের প্রত্যেকের নমুনা সংগ্রহ করতে হবে। শুধু তাই নয়, তাদের কোয়ারেন্টাইন সেন্টারে থাকা বাধ্যতামূলক করতে হবে। সেই সঙ্গে তাদের চিহ্নিত করতে তাদের কড়ে আঙ্গুলে কালি লাগানোর পরামর্শও দেওয়া হয়েছে।

পূর্ব বর্ধমানের জেলাশাসক বিজয় ভারতী জানান, বাইরের রাজ্য থেকে যারা আসছিলেন তাদের বুড়ো আঙ্গুলে কালি লাগানো হচ্ছিল। এবার ব্যাপকভাবে করোনা আক্রান্ত পাঁচ রাজ্য থেকে যেসব যাত্রীরা আসবেন তাদের প্রত্যেকের বুড়ো আঙ্গুলের পাশাপাশি কনিষ্ঠ আঙ্গুলেও কালি কালি লাগানো হবে। তাতে কোয়ারেন্টাইন সেন্টার থেকে বাড়ি চলে গেলেও তারা পার পাবেন না।  কড়ে আঙুলের কালি দেখে তাদের চিহ্নিত করে ফের কোয়ারেন্টাইন সেন্টারে পাঠানো হবে। তবে এক্ষেত্রে পরিযায়ী শ্রমিক বা বাইরে থেকে আসা যাত্রীরা দূরের কোয়ারেন্টাইন সেন্টারের বদলে বাড়ির কাছের গ্রামের স্কুলের কোয়ারেন্টাইন সেন্টারে থাকতে পারবেন।

Saradindu Ghosh

Published by:Elina Datta
First published:

Tags: Corona, Corona outbreak, Corona state lock down, Coronavirus, COVID-19, Migrant Worker, Voter ink