• Home
  • »
  • News
  • »
  • north-bengal
  • »
  • সকাল সকাল বাজার শেষ মালদহে, নিত্যপ্রয়োজনীয় জিনিস জোগাড়ের হিড়িক

সকাল সকাল বাজার শেষ মালদহে, নিত্যপ্রয়োজনীয় জিনিস জোগাড়ের হিড়িক

 সকাল ১০টা বাজতে না বাজতেই শহরের অধিকাংশ বাজারে আলু, পিয়াজ সবজি কার্যত উধাও

সকাল ১০টা বাজতে না বাজতেই শহরের অধিকাংশ বাজারে আলু, পিয়াজ সবজি কার্যত উধাও

সকাল ১০টা বাজতে না বাজতেই শহরের অধিকাংশ বাজারে আলু, পিয়াজ সবজি কার্যত উধাও

  • Share this:

#মালদহ: লকডাউনের খবর চাউর হতেই সাতসকালেই বাজারে আমজনতার ভিড়। প্রয়োজনের তুলনায় কয়েকগুণ মালপত্র কিনলেন অনেকেই। আর এর জেরেই বাজাবে তৈরি হল কৃত্রিম সংকট। সুযোগ বুঝে দাম বাড়ালেন ব্যবসায়ীদের একাংশ । তবে কালোবাজারি সত্বেও বেশিরভাগ লোকজনকে বস্তা বস্তা আলু কিনতে দেখা যায়। আলু, পিয়াজ, তেল, নুন, ডিম, এমনকি মাছ-মাংস মজুদ করে ফেলেন অনেকেই। আমজনতার বাড়তি কেনাকাটার জন্য এদিন সকাল ১০টা বাজতে না বাজতেই শহরের অধিকাংশ বাজারে আলু, পিয়াজ সবজি কার্যত উধাও হয়ে যায় । অন্যান্য দিনের মতো যাঁরা স্বভাবসুলভভাবে একটু বেলার দিকে বাজারে গিয়েছিলেন তাঁদের অনেককেই খালি হাতে অথবা তুলনায় কম মালপত্র কিনে হতাশ হয়ে ফিরতে হয় । বিক্রেতারা জানিয়েছেন, এদিন প্রায় প্রত্যেকে দ্বিগুণ-তিনগুণ মালপত্র কিনতে চান। অনেককে বলা সত্বেও তাঁরা বেশি মালপত্র কেনা থেকে বিরত হননি। এর জন্য কম সংখ্যক মানুষকে মালপত্র দেওয়া গিয়েছে । ক্রেতাদের একাংশ জানিয়েছেন, লকডাউনের পরিস্থিতিতে যাতে বাড়ি থেকে বের হতে না হয়, সেই ভাবনা মাথায় রেখেই কিছু বাড়তি মাল কিনতে হয়েছে। কারণ ছোটখাটো, দৈনন্দিন বাজার খোলা থাকলেও মালপত্র যোগান কতটা হবে তা নিয়ে দুশ্চিন্তা রয়েছে। আর এই কারণেই বেশি মালপত্র কেনার হিড়িক । মালদহ শহরের নেতাজি মার্কেট, মকদমপুর বাজার, চিত্তরঞ্জন বাজার, মালঞ্চপল্লী বাজার, গৌররোড বাজার , সদরঘাট বাজার সর্বত্রই প্রায় একই পরিস্থিতি চোখে পড়ে। পরিস্থিতি সামাল দিতে বেলার দিকে বিভিন্ন বাজারে মাইকে প্রচারে নামে জেলা প্রশাসন। অতিরিক্ত মাল না কেনার জন্য সকলকে সতর্ক করা হয়। একইসঙ্গে দোকানদারদের কালোবাজারি সম্পর্কে সতর্ক করে প্রশাসন।

Sebak DebSarma

Published by:Ananya Chakraborty
First published: