corona virus btn
corona virus btn
Loading

করোনা আতঙ্কে কেউ বাড়িতে কাজ করতে ডাকে না, বর্ষার মুখে নৌকা বানিয়েই সংসারে হাসি ফোটাচ্ছেন কাঠ মিস্ত্রীরা

করোনা আতঙ্কে কেউ বাড়িতে কাজ করতে ডাকে না, বর্ষার মুখে নৌকা বানিয়েই সংসারে হাসি ফোটাচ্ছেন কাঠ মিস্ত্রীরা

করোনা আতঙ্ক -লকডাউনে ব্যবসা-কাজ সব বন্ধ

  • Share this:

#রায়গঞ্জ.বর্ষা শুরুর আগেই কাঠের দোকানে নৌকা বানানোর হিড়িক। কাঠ ব্যবসায়ীদের আশা এবারে নৌকা বিক্রি করে তারা কিছু লাভের মুখ দেখবেন৷ করোনা ভাইরাসের থাবায় সারা দেশের মানুষ চরম আতঙ্কের মধ্যে দিন কাটাচ্ছেন।দেশ জুড়ে চলছে লকডাউন পিরিয়ড।এই লকডাউন পিরিয়ডে কাঠ মিস্ত্রীদের অবস্থা করুন হয়ে পড়েছিল। দিন আনা দিন খাওয়া মানুষদের চরম কষ্টের মধ্যে দিন গুজরান করতে হয়েছে।

করোনার আতঙ্কে এখনও সাধারন মানুষ বাড়িতে আসবাবপত্র বানাতে কাঠ মিস্ত্রীদের বাড়িতে ডাকছেন না।এরাজ্যে আনলক ওয়ান চালু হবার পর দোকান, হাট, বাজার খুলছে। বর্ষা দোরগোড়ায়।বর্ষার সময় বেশ কিছু এলাকায় নৌকার প্রয়োজন হয়।রায়গঞ্জ  সংলগ্ন বিহারে রাজ্য।রায়গঞ্জ থেকে প্রতিবছর বিহারের মাঝিরা বেশী দাম দিয়ে নৌকা কিনে নিয়ে যান।আনলক ওয়ান শুরু হয়ে হতেই কাঠের  দোকানদার নৌকা বানাতে শুরু করেছেন। কাঠের ব্যবসায়ীরা নৌকা বানানোর কাজ শুরু করায় কাঠ মিস্ত্রীদের ডাক পড়ে।লকডাউন পিরিয়ডে কাজকর্মহীন কাঠমিস্ত্রীরা কাজে ডাক পাওয়ায় খুশি। লকডাউনের সময় তাদের সংসার চালানোই দুষ্কর  হয়ে পড়েছিল।কাজে ফিরে অর্থ উপার্জন করে পরিবারের মুখে তারা হাসি ফোটাতে পেরেছেন বলে জানিয়েছেন কাঠ মিস্ত্রী প্রেম কুমার সূত্রধর।

প্রতিবছর বর্ষা শুরু হবার আগে নৌকার চাহিদা বাড়ে।এবারে লকডাউনের কারনে দোকানপাট বন্ধ থাকার কারনে নৌকা বানানো সম্ভব হয় নি।আনলক ওয়ান চালু হতেই দোকান খুলে নৌকা বানানো শুরু করবছেন।খুব বেশী নৌকা তৈরী করতে পারেননি।এবারে নৌকার চাহিদাও ভাল। বেশ কিছু ক্রেতা নৌকা কিনতে এসেছিলেন। যে সমস্ত কাঠের দোকানে নৌকা বানানো চলছে সেখানেই কিছু কাজ হচ্ছে বাকি দোকানগুলোতে কোন বিক্রিবাট্টা হচ্ছে না।যে দোকানগুলোতে নৌকা বানাচ্ছে সেই দোকানগুলোতে একটু কাজ চলছে বলে জানিয়েছেন দোকান মালিক সমীর কুন্ডু।

Uttam Paul

Published by: Debalina Datta
First published: June 9, 2020, 5:30 PM IST
পুরো খবর পড়ুন
अगली ख़बर