ফের শিলিগুড়িতে ভাঙন তৃণমূলে! দল ছাড়লেন দীর্ঘদিনের দুই সৈনিক দীপক-জ্যোৎস্না

ফের শিলিগুড়িতে ভাঙন তৃণমূলে! দল ছাড়লেন দীর্ঘদিনের দুই সৈনিক দীপক-জ্যোৎস্না

once again siliguri tmc candidate left party before wb election 2021

ফের ভাঙন! শিলিগুড়িতে অস্বস্তি বাড়ছে তৃণমূলের! প্রথম দিন থেকে দলে থাকা সদস্যরা আজ তৃণমূল ছাড়লেন। একজন দলের সাধারণ সম্পাদক দীপক শীল। অন্যজন জ্যোৎস্না আগরওয়াল।

  • Share this:

#শিলিগুড়ি: ফের ভাঙন! শিলিগুড়িতে অস্বস্তি বাড়ছে তৃণমূলের! প্রথম দিন থেকে দলে থাকা সদস্যরা আজ তৃণমূল ছাড়লেন। একজন দলের সাধারণ সম্পাদক দীপক শীল। অন্যজন জ্যোৎস্না আগরওয়াল। জ্যোৎস্নাদেবী দু'বারে কাউন্সিলরও ছিলেন। একবার কংগ্রেসের টিকিটে জিতেছিলেন। ১৯৯৯-তে ঘাসফুল প্রতীকে।

মূলত দলের শিলিগুড়ি আসনে প্রার্থী মনোনয়ন নিয়েই ক্ষোভ দু'জনের। এবারে প্রার্থী করা হতে পারে জ্যোৎস্নাদেবীকে, এমন খবর চাউর হয়েছিল। কিন্তু শেষ পর্যন্ত তাঁকে করা হয়নি। এতেই সুর সপ্তমে ওঠে দীপক শীল, জ্যোৎস্না আগরওয়ালের। দলের বিরুদ্ধে ক্ষোভ উগরে দিয়েছেন দীর্ঘদিনের দুই তৃণমূল কর্মী। তাদের কথায়, শিলিগুড়িতে একজনও প্রার্থী খুঁজে পেল না দল? কেন ঘরের কাউকে প্রার্থী করা হল না? দলনেত্রী শিলিগুড়িতে এসেও কেন এই নিয়ে দলের জেলা কমিটির সঙ্গে বৈঠক করেননি? প্রশ্ন তুলেছেন জ্যোৎস্নাদেবী।

২০১১-তে রুদ্রনাথ ভট্টাচার্যকে প্রার্থী করা হয়েছিল। তিনি অশোক ভট্টাচার্যকে হারিয়েছিলেন। ২০১৬-তে ফুটবলার বাইচুং ভুটিয়াকে প্রার্থী করা হয়। এবারেও বহিরাগত প্রার্থী করা হয়। এতেই দলের মধ্যে অসন্তোষ বাড়ছে। দীপক শীল বলেন, "দলে কোনও গুরুত্ব দেওয়া হত না। কোনও বৈঠকেই সম্মান দেওয়া হত না। গত পুরভোটে টিকিট চেয়েও পাইনি। দলে থেকে কাজ করার সুযোগ পাচ্ছিলাম না। তাই আজ এই সিদ্ধান্ত। তবে এখনই বিজেপি-তে যোগ দিচ্ছি না। গেরুয়া শিবির যোগাযোগ করেছি। পরে এই নিয়ে সিদ্ধান্ত নেব।"

প্রার্থী নির্বাচন নিয়ে অসন্তুষ্ট হয়ে নির্দল হয়ে দাঁড়ানোর সিদ্ধান্ত নিয়েছেন আর এক তৃণমূল নেতা নান্টু পাল। এসজেডিএ'র ভাইস চেয়ারম্যান পদ থেকে পদত্যাগও করেছেন। যদিও এখনও পর্যন্ত দল থেকে পদত্যাগ করেননি। দলের অন্দরে আরও ক্ষোভ রয়েছে বলে সূত্রের খবর। দলের জেলা সভাপতি রঞ্জন সরকার বলেন, ওদের পদত্যাগ পত্র পাইনি। দীর্ঘদিনের সহকর্মী। ওনাদের সঙ্গে কথা বলবো। আলোচনার মাধ্যমে সমস্যার সমাধান করা হবে। অন্যদিকে কালিম্পংয়ে বিমল গুরুং ঘনিষ্ঠ শুভ প্রধান আজ দল ছাড়লেন। আগামী দিনে বিজেপিতে যোগ দেবেন বলে সাফ জানিয়েছেন পাহাড়ের এই নেতা। গুরুং শিবিরেও ভাঙন অব্যাহত। যদিও গুরুত্ব দিতে নারাজ গুরুং শিবির।

(পার্থ প্রতীম সরকার)

Published by:Subhapam Saha
First published: