Home /News /north-bengal /
এবছর মাধ্যমিকে পরীক্ষার্থীর সংখ্যা কমলো উত্তরবঙ্গে

এবছর মাধ্যমিকে পরীক্ষার্থীর সংখ্যা কমলো উত্তরবঙ্গে

সবথেকে বেশি পরীক্ষার্থী মালদহে, কম দক্ষিণ দিনাজপুরে

  • Share this:

#শিলিগুড়ি: মঙ্গলবার থেকে শুরু হচ্ছে ২০২০ সালের মাধ্যমিক পরীক্ষা। পরীক্ষার্থীদের মধ্যে চলছে শেষ মূহূর্তের প্রস্তুতি। রাত পোহালেই জীবনের প্রথম বড় পরীক্ষা। কিছুটা টেনশনে অভিভাবক, অভিভাবিকারাও। এবারে উত্তরবঙ্গের আট জেলার মোট পরীক্ষার্থীর সংখ্যা ২ লাখ  ১২ হাজার ৯৪০ জন যা গতবারের তুলনায় অনেকটাই কম। গতবারে সংখ্যাটা ছিল ২ লাখ ২৬ হাজার ৪০৬ জন।

গতবছর ছাত্রী পরীক্ষার্থীর সংখ্যা ছিল ১ লাখ ৩৪ হাজার ৩০৫ জন। এবারে সংখ্যাটা কমে দাঁড়িয়েছে ১ লাখ ২৬ হাজার ৮৮ জন। চলতি বছরে উত্তরবঙ্গে সবথেকে বেশি পরীক্ষার্থীর সংখ্যা মালদহ জেলায়। মোট পরীক্ষার্থীর সংখ্যা ৪৭ হাজার ৯২৩ জন। আর সবচাইতে কম পরীক্ষার্থী রয়েছে দক্ষিন দিনাজপুর জেলায়। মোট পরীক্ষার্থীর সংখ্যা ১৯ হাজার ২০ জন। ২০২০-তে শারিরীক প্রতিবন্ধী পরীক্ষার্থীর সংখ্যা ২১ জন। দূর্ঘটনাজনিত কারণে আঘাতপ্রাপ্ত পরীক্ষার্থীর সংখ্যা চার জন। দৃষ্টিহীন পরীক্ষার্থীর সংখ্যা ১৪ জন। রাইটারের মাধ্যমে এবারে পরীক্ষা দেবে ৪০ জন পরীক্ষার্থী। উত্তরবঙ্গে এবারে মোট পরীক্ষা কেন্দ্র রয়েছে ৬৭৬টি। মধ্যশিক্ষা পর্ষদের উত্তরবঙ্গ আঞ্চলিক দপ্তর সূত্রে জানা গিয়েছে এবারে শিলিগুড়ি শিক্ষা জেলায় মাধ্যমিক পরীক্ষায় বসছে ১৪ হাজার ৯৫৩ জন। এর মধ্যে নিয়মিত পরীক্ষার্থী রয়েছে ১২ হাজার ৬১৪ জন। এবারে শিলিগুড়িতে ছাত্রের তুলনায় ছাত্রী পরীক্ষার্থীর সংখ্যা অনেকটাই বেশী। শিলিগুড়িতে মাধ্যমিকের জন্য ১০টি সেন্টার রয়েছে। আর শিলিগুড়িতে পরীক্ষা কেন্দ্র রয়েছে ৪৭টি। এর মধ্যে স্পর্ষকাতর পরীক্ষা কেন্দ্রের সংখ্যা ১০। যার মধ্যে শিলিগুড়ি ব্লকেই রয়েছে তিনটি। বাকিগুলো মাটিগাড়া, খড়িবাড়ি এবং নকশালবাড়ি ব্লকে। নির্বিঘ্নে পরীক্ষা সম্পন্ন করতে প্রতিটি পরীক্ষা কেন্দ্রেই কড়া পুলিশি ব্যবস্থা থাকছে। পাশাপাশি পরীক্ষাকেন্দ্রের আশপাশে ১৪৪ ধারা জারি করা থাকছে। বন্ধ রাখা হবে কেন্দ্রের পাশের জেরক্সের দোকান। সেইসঙ্গে শহরের যানজট মোকাবিলায় বিশেষ ব্যবস্থা নিচ্ছে শিলিগুড়ি ট্র‍্যাফিক পুলিশ। কোনো পরীক্ষার্থীর যাতে পরীক্ষা কেন্দ্রে পৌঁছতে সমস্যা না হয়, সেদিকে সমান নজর রাখা হবে বলে পুলিশি সূত্রে জানা গিয়েছে।

PARTHA PRATIM SARKAR

Published by:Rukmini Mazumder
First published:

পরবর্তী খবর