corona virus btn
corona virus btn
Loading

করোনা আক্রান্তের গ্রাফ নামছে না শিলিগুড়িতে! গোষ্ঠী সংক্রমণ? গবেষণায় স্বাস্থ্য দফতর

করোনা আক্রান্তের গ্রাফ নামছে না শিলিগুড়িতে! গোষ্ঠী সংক্রমণ? গবেষণায় স্বাস্থ্য দফতর
representative image

করোনা সংক্রমণের গ্রাফ নামছে না শিলিগুড়িতে। প্রতিদিনই বাড়ছে আক্রান্তের সংখ্যা

  • Share this:

#শিলিগুড়ি: করোনা সংক্রমণের গ্রাফ নামছে না শিলিগুড়িতে। প্রতিদিনই বাড়ছে আক্রান্তের সংখ্যা। বৃহস্পতিবারও নতুন করে আক্রান্তের সংখ্যা ১৮। এর মধ্যে পুরসভার ৬টি সংযোজিত ওয়ার্ডে আক্রান্তের সংখ্যা ১২! গত ২৪ ঘণ্টায় সবথেকে বেশি আক্রান্ত  ৩৮ নম্বর ওয়ার্ডে, ৪ জনের রিপোর্ট কোভিড পজিটিভ। ৩১ নং ওয়ার্ডে নতুন করে করোনা পজিটিভ রিপোর্ট এসছে ৩ জনের। ২ জন করে আক্রান্ত ২ এবং ৩৫ নং ওয়ার্ডে। ১ জন করে আক্রান্তের খোঁজ মিলেছে ৯, ১১, ১৪, ২৮, ৩৬, ৩৯ এবং ৪২ নং ওয়ার্ডে। বেশিরভাগ আক্রান্তেরই ভিন রাজ্য বা ভিন জেলার কোনও যোগ সূত্র নেই বলে স্বাস্থ্য দফতর সূত্রে জানা গিয়েছে। তাহলে কীভাবে সংক্রমণ ছড়াচ্ছে?

উত্তরবঙ্গের করোনা মোকাবিলায় ভারপ্রাপ্ত স্বাস্থ্য কর্তা সুশান্ত রায়ের দাবি, '' এখোনও গোষ্ঠী সংক্রমণ হয়নি। যদিও এ'নিয়ে আমরা গবেষণা চালিয়ে যাচ্ছি। বেশিরভাগ ক্ষেত্রেই দেখা যাচ্ছে প্রাইমারি কনট্যাক্টে আক্রান্তের সংখ্যা বাড়ছে। অর্থাৎ, আক্রান্তের সংস্পর্ষে আসায় সংক্রমণ ছড়াচ্ছে। কাজেই করোনার উপসর্গ থাকলে ঘরবন্ই থাকুন। স্বাস্থ্য বিধি মেনে চলতে হবে প্রতিটি শহরবাসীকে।''

শহরের পাশাপাশি পাহাড়ে এদিন নতুন করে ৪ জনের লালা রসের নমুনা পজিটিভ এসছে। প্রত্যেকেই মিরিক ব্লক হাসপাতালের কর্মী। অ্যাম্বুলেন্স চালকের সংস্পর্ষে এসেই ১ চিকিৎসক, ২ নার্স-সহ ১ স্বাস্থ্য কর্মী সংক্রমিত হয়েছেন। এই ৪ জনের সংস্পর্শে আর কারা এসেছেন ? খতিয়ে দেখার কাজ চলছে।

অন্যদিকে অনেকটাই সুস্থ হয়ে উঠেছেন শিলিগুড়ি পুরসভার প্রশাসক মণ্ডলীর চেয়ারম্যান অশোক ভট্টাচার্য। চিকিৎসায় ভালই সাড়া দিচ্ছেন। অক্সিজেন নেওয়ার ক্ষেত্রেও কোনও সমস্যা নেই। স্থিতিশীল অবস্থায়  প্রশাসক মণ্ডলীর আর এক সদস্য মুকুল সেনগুপ্তও। শহরে আক্রান্তের সংখ্যা বাড়ায় উদ্বিগ্ন প্রশাসন, শিলিগুড়ি রেগুলেটেড মার্কেটের মাছের আড়ত বন্ধ রাখার মেয়াদ বাড়ানো হয়েছে। দার্জিলিংয়ের জেলাশাসক এস পুন্নমবালাম জানান, ২৮ জুন থেকে খুলবে মাছের আড়ত। ওই দিনই রেগুলেটেড মার্কেটের ফল ও সবজি আড়তও খুলবে।

PARTHA PRATIM SARKAR

Published by: Rukmini Mazumder
First published: June 26, 2020, 12:22 AM IST
পুরো খবর পড়ুন
अगली ख़बर