• Home
  • »
  • News
  • »
  • north-bengal
  • »
  • NOT HAPPY WITH TMC CANDICATE OF RAJGANJ ASSEMBLY FINALLY WORKERS AND LEADERS MEET CANDIDATE KANHAILAL AGARWAL PBD

প্রার্থী নিয়ে অসন্তোষ, শেষ পর্যন্ত আলোচনায় শান্ত কর্মীরা, বৈঠক করলেন রায়গঞ্জ বিধানসভা কেন্দ্রের তৃণমূল প্রার্থী কানাইয়ালাল আগরওয়াল

আসন্ন বিধানসভা নির্বাচনে তৃণমূল কংগ্রেসের সর্বভারতীয় সভানেত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের প্রার্থী তালিকা ঘোষণার দিনই রায়গঞ্জ বিধানসভা কেন্দ্রে অরিন্দম সরকারকে প্রার্থী করার দাবিতে উত্তর দিনাজপুর জেলা তৃণমূলের কর্মীরা রায়গঞ্জ সুপার মার্কেটে ব্যাপক বিক্ষোভ দেখান।

আসন্ন বিধানসভা নির্বাচনে তৃণমূল কংগ্রেসের সর্বভারতীয় সভানেত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের প্রার্থী তালিকা ঘোষণার দিনই রায়গঞ্জ বিধানসভা কেন্দ্রে অরিন্দম সরকারকে প্রার্থী করার দাবিতে উত্তর দিনাজপুর জেলা তৃণমূলের কর্মীরা রায়গঞ্জ সুপার মার্কেটে ব্যাপক বিক্ষোভ দেখান।

  • Share this:

#রায়গঞ্জ: বিক্ষুব্ধ তৃণমূল কংগ্রেস নেতা তথা রায়গঞ্জ বিধানসভা কেন্দ্রের কোঅর্ডিনেটর অরিন্দম সরকারের সঙ্গে বৈঠক করলেন রায়গঞ্জ বিধানসভা কেন্দ্রের তৃণমূল কংগ্রেস প্রার্থী কানাইয়ালাল আগরওয়াল। প্রার্থী জানিয়েছেন, সমস্ত দ্বন্দ ভুলে ঐক্যবদ্ধ লড়াই করা হবে। বৈঠকে কোর কমিটি গঠন করা হয়।  অরিন্দম সরকারকে সেই কমিটির কনভেনর করা হয়েছে। বাকি রায়গঞ্জ ব্লক তৃণমূল কংগ্রেস সভাপতি মানস ঘোষ এবং পূর্নেন্দু দে কে নির্বাচনের দায়িত্ব দেওয়া হয়েছে বলে রায়গঞ্জ বিধানসভা কেন্দ্রের প্রার্থী কানাইয়ালাল আগরওয়াল জানিয়েছেন।

বিক্ষুব্ধ তৃণমূল কংগ্রেস নেতা তথা রায়গঞ্জ বিধানসভা কেন্দ্রের কো অর্ডিনেটর অরিন্দম সরকার জানিয়েছেন, রায়গঞ্জের কিছু সমর্থক, তাঁকে প্রার্থী হিসেবে তাঁকে চেয়েছিলেন। দল তাঁকে প্রার্থী না করায় ক্ষোভ তৈরি হয়েছিল। সেই ক্ষোভ মিটিয়ে দলের প্রার্থীর হয়ে ঐক্যবদ্ধ লড়াই করার সিদ্ধান্ত  হয়েছে।

আসন্ন বিধানসভা নির্বাচনে তৃণমূল কংগ্রেসের সর্বভারতীয় সভানেত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের প্রার্থী তালিকা ঘোষণার দিনই রায়গঞ্জ বিধানসভা কেন্দ্রে অরিন্দম সরকারকে প্রার্থী করার দাবিতে উত্তর দিনাজপুর জেলা তৃণমূলের কর্মীরা রায়গঞ্জ সুপার মার্কেটে ব্যাপক বিক্ষোভ দেখান। অরিন্দম সরকারকে প্রার্থী না করে তৃনমূল কংগ্রেসের জেলা সভাপতি তথা ইসলামপুর পৌরসভা প্রশাসক কানাইয়ালাল আগরওয়ালকে প্রার্থী করা হয়। এই সিদ্ধান্তের পর দলীয় কর্মীদের মনোভাব বুঝতে পেরে রায়গঞ্জের প্রার্থী কানাইয়ালাল আগরওয়াল আর রায়গঞ্জে পা রাখেননি।ডামেজ কন্ট্রোলে তৃণমূল কংগ্রেসের ভোট কুশলী স্বয়ং পি কে কেই নামতে হয়। বিক্ষুব্ধ তৃণমূল কংগ্রেস নেতা অরিন্দম সরকার, মানস ঘোষ এবং সঞ্জয় মিত্রকে কলকাতায় ডেকে নিয়ে সভা করেন। সেখানে অরিন্দমবাবুকে কিছুটা শান্ত করেন। সেই তথ্য কানাইয়ালালের হাতে আসার পর সোমবার কানাইয়ালাল রায়গঞ্জে আসেন।

রায়গঞ্জ কর্নজোড়া প্রাক্তন ব্লক সভাপতি পূর্নেন্দু দের বাড়িতে বিক্ষুব্ধ তৃণমূল কংগ্রেস নেতাদের নিয়ে রুদ্ধদ্বার বৈঠক করেন। বৈঠকে বিক্ষুব্ধ নেতারা ছাড়াও ছিলেন তৃণমূল কংগ্রেসের মুখপাত্র সন্দীপ বিশ্বাস। বৈঠকের পর কানাইয়াবাবু জানান, নির্বাচনে প্রস্তুতি বৈঠক করা হল। নির্বাচন পরিচালনার জন্য কোর কমিটি গঠন করা হয়েছে। অরিন্দম সরকারকে সেই কোর কমিটির কনভেনর করা হয়েছে। দলের মধ্যে কোন ক্ষোভ বিক্ষোভ নেই। সবাই ঐক্যবদ্ধ লড়াই করবেন বলে সিদ্ধান্ত হয়েছে। বিক্ষুব্ধ তৃণমূল কংগ্রেস নেতা অরিন্দম সরকার জানান, প্রার্থী নিয়ে তাঁর কোন ক্ষোভ ছিল না। দলের কিছু কর্মী সমর্থক তাকে প্রার্থী হিসেবে চেয়েছিলেন। তাঁকে প্রার্থী  করার দাবিতে বিক্ষোভ দেখিয়েছে। তবে আপাতত সব নিয়ন্ত্রণে বলে তাঁর দাবি৷

Published by:Pooja Basu
First published: