corona virus btn
corona virus btn
Loading

বিদ্যুৎপৃষ্ট হয়ে মৃত্যু দুই হাতির !

বিদ্যুৎপৃষ্ট হয়ে মৃত্যু দুই হাতির !

শিলিগুড়ির বাগডোগরার কিরণচন্দ্র চা বাগানের ঘটনা।

  • Share this:

#শিলিগুড়ি:  লোকালয়ে এসেছিল খাবারের সন্ধানে। খাবার জোগাড় করার পর, ভোর ভোর ফের নিজেদের ডেরায় ফিরতে চেয়েছিল হাতির দল। কিন্তু ফেরার সময়েই প্রচণ্ড বৃষ্টিতে হাইটেনশনের তার পায়ে লেগে বিদ্যুৎস্পৃষ্ট হয়ে মৃত্যু হল দুটি হাতির। শিলিগুড়ির বাগডোগরার কিরণচন্দ্র চা বাগানের ঘটনা। হাতিদের অস্তিত্ব এভাবে ক্রমশই সংকটে পড়ছে বলে মত প্রাণী বিশেষজ্ঞদের।

৩১ সি জাতীয় সড়ক থেকে ৫০০ মিটার দূরে বিদ্যুৎস্পৃষ্ট হয়ে মৃত্যু হয়েছে শাবক হাতির সঙ্গে তার মায়েরও। স্থানীয় বাসিন্দা ও বনদফতরের কর্মীদের অনুমান, বৃষ্টির কারণে বিদ্যুতের খুঁটি থেকে ছিঁড়ে পড়েছিল হাইটেনশনের তার। সেই তারে পা পড়ায় বিদ্যুৎস্পৃষ্ট হয়ে মৃত্যু হয় শাবক হাতিটির। আর বাচ্চাকে বিপদে পড়তে দেখে তাকে বাঁচাতে গিয়ে মৃত্যু হয় পূর্ণ বয়স্ক মা হাতিটিরও। এলাকাবাসীরা জানান, শুক্রবার রাতে ২০ থেকে ২৫টি হাতির দল কিরণচন্দ্র চা বাগান এলাকার বস্তিতে ঢোকে খাবারের জন্য। শনিবার ভোরের দিকে ব্যাঙডুবি জঙ্গলে ফেরার সময় ঘটে ঘটনা। সকালে চা বাগানের শ্রমিকরা কাজে যাওয়ার সময় বাগানের ১১ নম্বর বিভাগের কাছে প্রথম দেখতে পান হাতি দুটির দেহ। খবর দেওয়া হয় বাগডোগরা বনদফতরে। ময়নাতদন্ত ও ভিসেরা টেস্টের জন্য পাঠানো হয় হাতির দেহর অংশ।

এর আগে ফেব্রুয়ারি মাসে বাঁকুড়ায় বড়জোড়ায় বিদ্যুৎস্পৃষ্ট হয়ে মৃত্যু হয় দুটি হাতির। ফসল বাঁচাতে খেতের পাশে বিদ্যুতের তার দিয়ে ঘিরে রাখা হয়েছিল। সেই তার পায়ে লেগেই বিদ্যুৎস্পৃষ্ট হয়ে মৃত্যু হয়েছিল দুটি হাতির। কখনও দ্রুত গতির রেলের ধাক্কায় মৃত্যু, কখনও বিদ্যুতের তার জড়িয়ে মৃত্যু। তার উপর জঙ্গলে চোরাচালানকারীদের উপদ্রব। বারবার এরকম মৃত্যুতে হাতির সংখ্যা ক্রমশই কমছে বলে মত প্রাণীবিশেষজ্ঞদের। তাদের দাবি, অবিলম্বে কেন্দ্র ও রাজ্য এই বিষয়ে সচেতন না হলে, একসময় বাঁচানোই মুশকিল হয়ে যাবে এশিয়ার বৃহত্তম এই প্রাণিকূলকে ।
First published: September 10, 2016, 3:37 PM IST
পুরো খবর পড়ুন
अगली ख़बर