• Home
  • »
  • News
  • »
  • north-bengal
  • »
  • বনধে থমথমে পাহাড়, বিজনবাড়ির বিডিও অফিসে হামলা

বনধে থমথমে পাহাড়, বিজনবাড়ির বিডিও অফিসে হামলা

বনধে থমথমে পাহাড়, বিজনবাড়ির বিডিও অফিসে হামলা

বনধে থমথমে পাহাড়, বিজনবাড়ির বিডিও অফিসে হামলা

বনধে থমথমে পাহাড়, বিজনবাড়ির বিডিও অফিসে হামলা

  • Share this:

    #দার্জিলিং: স্কুলে বাংলা পড়ানোর সরকারি সিদ্ধান্তের প্রতিবাদে পাহাড়ে শুরু অনির্দিষ্টকালের জন্য বনধ ৷ আজ, সোমবার সকাল থেকে দার্জিলিং-কালিম্পং-কার্শিয়ংয়ের সর্বত্রই শুরু হয়ে গিয়েছে মোর্চার কর্মসূচি ৷

    বনধে থমথমে পাহাড় ৷ বেলা গড়াতে না গড়াতেই বিজনবাড়ির বিডিও অফিসে হামলা চালায় গোর্খা জনমুক্তি মোর্চা সদস্যরা ৷ আগুন লাগিয়ে দেওয়া হয় দফতরে ৷ দমকল অফিস কাছেই থাকায় তৎক্ষণাৎ দমকল কর্মীরা এসে আগুন নিভিয়ে ফেলেন ৷ হামলার অভিযোগে তিন জন মোর্চা সদস্যকে গ্রেফতার করা হয় ৷ আটক আরও সাতজন ৷

    বিজনবাড়ি ছাড়াও মোর্চার তাণ্ডব দেখা গিয়েছে সুকনাতেও ৷ জোর করে সুকনা গ্রাম পঞ্চায়েত অফিস বন্ধ করে দেয় মোর্চা সমর্থকেরা  ৷ সোনাদায় হাইড্রো প্রজেক্ট অফিসে ভাঙচুর মোর্চা সমর্থকদের ৷

    bijonbari bdo office ransak 4

    সরকারি ও জিটিএ অফিসের সামনে কর্মসূচি শুরু হয়েছে ৷ সকালেই নিজের দফতরে পৌঁছেছেন জেলাশাসক ৷ দার্জিলিং জেলাশাসকের দফতরে বৈঠক জেলাশাসক ও পুলিশ সুপারের ৷ সর্বত্রই মোতায়েন পুলিশ, র‍্যাফ এবং কেন্দ্রীয় বাহিনী ৷

    বনধ মোকাবিলায় কড়া রাজ্য প্রশাসন ৷ মোর্চার ডাকা বনধ ইতিমধ্যেই বেআইনি ঘোষণা করেছে রাজ্য সরকার ৷ পাহাড়ে সরকারি কর্মীদের হাজিরা বাধ্যতামূলক বলে জানিয়েছে সরকার ৷ বনধ চলাকালীন সরকারি সাহায্য প্রাপ্ত সংস্থাতেও হাজিরা বাধ্যতামূলক ৷ জিটিএ কর্মীদেরও হাজিরা বাধ্যতামূলক বলে ঘোষণা সরকারের ৷ নির্দেশ না মানলে হবে সার্ভিস ব্রেক ৷ গরহাজিরার জন্য কাটা হবে বেতন ৷

    এই নির্দেশিকা মেনে অফিসে হাজির হচ্ছেন সরকারি কর্মীরা ৷ কিন্তু তাণ্ডব থেকে বাঁচতে পরিচয় লুকোতে মুখ ঢেকে দফতরে যাচ্ছেন সবাই ৷

    স্কুল ও পরিবহণ অবশ্য বনধের আওতার বাইরে । সোম ও বৃহস্পতিবার খোলা থাকবে ব্যাঙ্ক।বনধকে সামনে রেখে পাহাড়ে যে মোর্চার জঙ্গি আন্দোলন হিংসাত্মক রূপ নিতে চলেছে তা স্পষ্ট। ৮ জুন হিংসা ছড়ানোর অভিযোগে মোর্চা সমর্থকদের গ্রেফতারের পরই চরম হুঁশিয়ারি মোর্চা সুপ্রিমোর। তিনি বলেন, ‘‘ সোমবার থেকে পাহাড়ে বনধ, আন্দোলন কোনওভাবে বন্ধ হবে না ৷ ৫ জন কেন ৫০০০ গ্রেফতার হোক, আমাদের আক্রমণ করলে পাল্টা আক্রমণ হবে ৷’’

    এই সব কথা মাথায় রেখেই সোমবার বাড়তি সতর্ক প্রশাসন ৷ গুরুত্বপূর্ণ সমস্ত জায়গায় অতিরিক্ত নিরাপত্তারক্ষী মোতায়েন ৷ ব্যাঙ্ক ও সরকারি অফিসে বাড়তি নিরাপত্তা রাখার ব্যবস্থা করেছে সরকার ৷ সরকারি সম্পত্তি ভাঙচুর বা কোনও ক্ষয়ক্ষতি হলে আইন অনুযায়ী ব্যবস্থা নেওয়ার হুঁশিয়ারি দিয়েছে রাজ্য ৷ ভাঙচুর রুখতে রয়েছে ধর-পাকড়ের নির্দেশও ৷

    First published: