corona virus btn
corona virus btn
Loading

আলাদা রাজ্য বনাম আলাদা জেলা, দার্জিলিংবাসীদের জন্য ভোট যেন অস্তিত্বের লড়াই

আলাদা রাজ্য বনাম আলাদা জেলা, দার্জিলিংবাসীদের জন্য ভোট যেন অস্তিত্বের লড়াই

পাহাড়ের বাঁকে পথ হারিয়েছেন হরকা। কীসে লাভ, কী করলে ক্ষতি ভাবতেই ভাবতেই কড়া নেড়েছে ভোট। একদা মোর্চার দাপুটে নেতা হরকা বাহাদুর ছেত্রীর পিছন ছাড়ছে না জিজেএমের ছায়া। নিজের দল গড়েছেন জনমুক্তি মোর্চা। তৃণমূলের সঙ্গে জোটও করেছেন। কিন্তু কালিম্পংয়ের ফলাফলের দিকে তাকিয়ে হরকার রাজনৈতিক ভবিষ্যৎ।

  • ETV
  • Last Updated: April 12, 2016, 5:05 PM IST
  • Share this:

#দার্জিলিং: পাহাড়ের বাঁকে পথ হারিয়েছেন হরকা। কীসে লাভ, কী করলে ক্ষতি ভাবতেই ভাবতেই কড়া নেড়েছে ভোট। একদা মোর্চার দাপুটে নেতা হরকা বাহাদুর ছেত্রীর পিছন ছাড়ছে না জিজেএমের ছায়া। নিজের দল গড়েছেন জনমুক্তি মোর্চা। তৃণমূলের সঙ্গে জোটও করেছেন। কিন্তু কালিম্পংয়ের ফলাফলের দিকে তাকিয়ে হরকার রাজনৈতিক ভবিষ্যৎ।

কিছুদিন আগেও ছিলেন গোর্খা জনমুক্তি মোর্চার অন্যতম শীর্ষ নেতা। এখন নিজের নামেই পরিচয় দিতে হয় নিজের। তিনি তৃণমূল কংগ্রেসে যোগ দেননি। অথচ শাসক দলের প্রার্থী তালিকায় তাঁর নাম। কেন? উত্তর নেই। মোর্চার শক্ত ঘাঁটিতে মোর্চাকেই পালটা চ্যালেঞ্জ ছুঁড়ে অসম্ভব ঝুঁকি নিয়েছেন। সব অর্থেই রাজনৈতিক জীবনের সন্ধিক্ষণে দাঁড়িয়ে হরকা বাহাদুর ছেত্রী।

গোর্খাল্যান্ড আন্দোলনের ভূত তাড়া করছে হরকাকে। তাঁর বিরুদ্ধে প্রচারের মুখ গোর্খাল্যান্ড আন্দোলনে শহিদের স্ত্রী। কেন দীর্ঘদিন আলাদা রাজ্যের দাবিতে সরব হলেও এখন অন্য কথা হরকা বাহাদুরের মুখে? প্রশ্ন উঠছে।

আলাদা রাজ্য বনাম আলাদা জেলার বিতর্কই কালিম্পং বিধানসভা কেন্দ্রে ভোটের অন্যতম ইস্যু। রাজ্যের অন্যান্য বিরোধী দলের মতো রাজ্য ভাগের সম্ভাবনা বারবারই খারিজ করেছেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়।

আলাদা রাজ্যের বদলে কালিম্পংকে আলাদা জেলা করতে হরকার দাবির পাশে দাঁড়াচ্ছেন অনেক কালিম্পংবাসী। তাঁর দাবি, কালিম্পং আলাদা জেলা হলে উন্নয়নে গতি আসবে। মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় স্বয়ং সেই প্রতিশ্রুতি দিয়েছেন বলেও দাবি তাঁর। আর এখানেই প্রবল প্রতিপক্ষের তোপ ধেয়ে আসছে তাঁর দিকে। গুরুংয়ের বিরুদ্ধে গোর্খাল্যান্ড নিয়ে স্বার্থসিদ্ধির অভিযোগ তুলছেন হরকা। জবাবে গুরুংয়ের হাতিয়ার সেই অতীত কটাক্ষ। পাহাড়়ের রাজনীতি, ক্ষমতার রাশ আর জনসমর্থন কার হাতে থাকবে, তা অনেকটাই নির্ধারণ করে দেবে এই নির্বাচন। এটা যতটা না ভোটের লড়াই, তার থেকেও অনেক বেশি অস্তিত্বের।

First published: April 12, 2016, 5:05 PM IST
পুরো খবর পড়ুন
अगली ख़बर