'গোলি মারো' বললে কেউ রেহাই পাবে না রাজ্যে , দাবি মুখ্যমন্ত্রীর

'গোলি মারো' বললে কেউ রেহাই পাবে না রাজ্যে , দাবি মুখ্যমন্ত্রীর

১৯৮৪ সালে শিখ দাঙ্গার পর দিল্লিতে এত বড় ঘটনা ঘটেনি।

  • Share this:

#মালদহ: দিল্লির ঘটনার বিচার বিভাগীয় তদন্ত চাই। সুপ্রিমকোর্টের নেতৃত্বে আমরা বিচার বিভাগীয় তদন্ত চাই। দিল্লিতে গণহত্যা হয়েছে। জীবন্ত মানুষকে পুড়িয়ে মারা হয়েছে। দিল্লিতে কত লোক মারা গিয়েছে তার সঠিক হিসেব নেই। মালদহে এমনই হুঁশিয়ারি দিয়েছেন তৃণমূল নেত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়।

মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দোপাধ্যায় বলেন, ১৯৮৪ সালে শিখ দাঙ্গার পর  দিল্লিতে এত বড় ঘটনা ঘটেনি।  সরকারিভাবে ৫০-৫৫ জনের মৃত্যুর কথা বলা হচ্ছে। কিন্তু আমরা শুনছি অনেক লোক এখনও নিখোঁজ আছে। সাধারণ লোক যাতে দিল্লির ঘটনা মনে না রাখেন, সেই জন্য করোনা করোনা বলে  হইচই করে  আসল ঘটনা  ভুলিয়ে দেওয়া হচ্ছে। যাতে মানুষ প্রশ্ন না করেন। দিল্লির ঘটনার পর এখনও পর্যন্ত বিজেপি বলেনি 'ওঁরা দুঃখিত ,ওঁরা লজ্জিত, ওঁরা মর্মাহত'। তৃণমূল নেত্রী আরও বলেন, "পশ্চিমবঙ্গ আর দিল্লী এক নয়। কলকাতায় মিছিল করে মাথায় ফেট্টি বেঁধে বলছেন গোলি মারো। এখানে গোলি মারো বলে কেউ রেহাই পাবেন না।"

মুখ্যমন্ত্রী আরও বলেন, "ইতিমধ্যেই বেশ কয়েকজনকে গ্রেফতার করা হয়েছে। কাউকেই আইন হাতে তুলে নিতে দেওয়া হবে না। বাকিদের বিরুদ্ধেও ব্যবস্থা নেওয়া হবে। বাংলায় কোনও দাঙ্গা করতে দেওয়া হবে না। বাইরে থেকে লোকজন এসে উস্কানি দিয়ে দাঙ্গা করার চেষ্টা করবেন, তা হবে না। মালদহ ছোট সুজাপুরের সভায় মুখ্যমন্ত্রী এদিন বলেন, কেন মানুষ এতদিন পরে নতুন করে নাগরিকত্বের প্রমাণ দেবেন? সকলকেই কেন ভুগতে হবে। উপস্থিত জনতার উদ্দেশ্যে মুখ্যমন্ত্রী বলেন, "বিজেপি ভাওতা দেয়  । কিন্তু তৃণমূল যা বলে তা করে।  তাই খাল কেটে কুমির আনবেন না।"

First published: March 5, 2020, 4:54 PM IST
পুরো খবর পড়ুন
अगली ख़बर