চালু হচ্ছে এনজেপি-ঢাকা সরাসরি রেল পরিষেবা, কবে থেকে জানুন

বুধবারের বৈঠকে।

একটি মৈত্রী এক্সপ্রেস, অন্যটি বন্ধন এক্সপ্রেস। এবারে উত্তরের রেলের প্রবেশ দ্বার এনজেপি থেকে চালু হচ্ছে প্রতিবেশী দু'দেশের মধ্যে ট্রেন পরিষেবা!

  • Share this:

#শিলিগুড়ি: ভার‍ত ও বাংলাদেশের মধ্যে সুসম্পর্ক ও মৈত্রী সুদৃঢ় করতে চালু হচ্ছে আরও একটি ট্রেন পরিষেবা। দু'দেশের পর্যটনের প্রসারে যুক্ত হল নয়া পালক। আগামী ২৬ মার্চ থেকে চালু হচ্ছে এই পরিষেবা। এনজেপি থেকে ঢাকা রেল পরিষেবা। দীর্ঘদিনের এক স্বপ্ন বাস্তবের পথে। এর আগে দুটি ট্রেন পরিষেবা চালু রয়েছে দু'দেশের মধ্যে। একটি মৈত্রী এক্সপ্রেস, অন্যটি বন্ধন এক্সপ্রেস। এবারে উত্তরের রেলের প্রবেশ দ্বার এনজেপি থেকে চালু হচ্ছে প্রতিবেশী দু'দেশের মধ্যে ট্রেন পরিষেবা! ৯ ঘন্টার রেল পথ এক্কেবারে ননস্টপ!

টানা ৩ দিন এনজেপিতে দু'দেশের ডি আর এম পর্যায়ে বৈঠক চলে। তবে এখোনো নয়া এই ট্রেনের নামকরণ ঠিক করা হয়নি। এমনকী রেল ভাড়াও চূড়ান্ত হয়নি। এজন্য একটি কমিটি গঠন করা হয়েছে। মার্চের প্রথম সপ্তাহেই কমিটির সদস্যরা আলোচনা করে তা চূড়ান্ত করবে। মূলত দু'দেশের পর্যটনের প্রসারে এই পরিষেবা চালু করা হচ্ছে। একদিকে এপারের দার্জিলিং, তরাই, ডুয়ার্স। ওপারে কক্সবাজার, ঢাকা, চিটাগাওঁ, সুন্দরবন বেড়াতে পারবেন। সব মিলিয়ে পর্যটনের প্রসারে নয়া পথ খুলবে।

আজ, বুধবার এনজেপিতে এক বৈঠক শেষে বাংলাদেশের পাকসের ডি আর এম মহম্মদ সহিদুল ইসলাম এবং এপারের কাটিহারের ডি আর এম রবিন্দ্রর কুমার ভার্মা জানান, মূলত পর্যটন শিল্পকে সামনে রেখেই এই ট্রেন পরিষেবা চালু করা হচ্ছে। প্রথম পর্যায়ে সপ্তাহে দু'দিন দু'দেশের মধ্যে এই ট্রেন পরিষেবা চলবে। যা আগামী ২৬ মার্চ এনজেপি থেকে দুপুর ২টোয় যাত্রা শুরু করবে। দুই দেশের প্রধানমন্ত্রী ভার্চুয়ালি এই নয়া রেল পরিষেবার উদ্বোধন করবেন। ২৬ মার্চ বাংলাদেশের ৫০তিম স্বাধীনতা দিবস। তাই এই দিনটিকে বেছে নেওয়া হয়েছে। ৬টি স্লিপার কোচের পাশাপাশি ২টি চেয়ারকার কোচ থাকবে। এবং পুরোটাই শীততাপ নিয়ন্ত্রিত কোচ। এনজেপি থেকে সোম ও বৃহস্পতিবার চলবে এই নতুন ট্রেন। ঢাকা থেকে এনজেপিতে ট্রেন পৌঁছবে মঙ্গলবার ও শনিবার। নয়া ট্রেন পরিষেবা চালুর খবরে খুশি পর্যটন ব্যবসায়ীরা। তাদের দাবী, আন্তর্জাতিক পর্যটকের সংখ্যা বাড়বে।

Published by:Raima Chakraborty
First published: