বৌভাতের রাত বাসে বসেই কাটালেন বর-কনে! বিক্ষোভের জেরে রাস্তাতে আটকে নব দম্পতি

বৌভাতের রাত বাসে বসেই কাটালেন বর-কনে! বিক্ষোভের জেরে রাস্তাতে আটকে নব দম্পতি

ট্রেন বাতিলের জেরে রাস্তাতে আটকে বর কনে। বিপাকে বরযাত্রীরা। এর জেরে বাতিল করতে হল বৌভাতের অনুষ্ঠান ।

  • Share this:

Sebak Debsarma

#মালদহ: বৌভাতের রাত বাসে বসেই কাটালেন নব দম্পতি ৷ সৌজন্যে নাগরিকত্ব আইন বিরোধী আন্দোলন। ট্রেন বাতিলের জেরে রাস্তাতে আটকে বর কনে। বিপাকে বরযাত্রীরা। এর জেরে বাতিল করতে হল বৌভাতের অনুষ্ঠান । যে সময়টা পরস্পরকে নিয়ে নতুন জীবন ও ঘর বাঁধার আনন্দে মসগুল থাকার কথা নব দম্পতির । সেখানে নব দম্পতিকে সময় কাটাতে হল বাসে বসে।

নদীয়ার কৃষ্ণনগরের কুলগাছির পাত্র জয়ন্ত সুত্রধর আর অসমের মালিগাঁওয়ের বাসিন্দা দীপার বিয়ে হয় গত ১৩ ডিসেম্বর। কামরূপ এক্সপ্রেসে সপরিবারে বিয়ে করতে যান পাত্র জয়ন্ত। ঠিক ছিল ওই ট্রেনেই নতুন বউকে নিয়ে ঘরে ফিরবেন।

রবিবার বৌভাতের দিন ঠিক হয়ে যায়। কিন্তু, সব পরিকল্পনা ভেস্তে দিয়েছে নয়া নাগরিকত্ব আইন আর এর জেরে তৈরি হওয়া অশান্তি । যে ট্রেনে ফেরার কথা ছিল, সেই কামরূপ এক্সপ্রেস আচমকা বাতিল। শেষ পর্যন্ত কোনরকমে অসম থেকে বাসে শিলিগুড়িতে এসে পৌঁছয় নব দম্পতি। সে সময় কার্যত হাঁফ ছেড়ে বাঁচেন।

শিলিগুড়ি থেকে সরকারি পরিবহন সংস্থার বাসে চেপে রওনা হন কৃষ্ণনগরের উদ্দেশ্যে। কিন্তু, এরপরেও যে পথে অপেক্ষা করে রয়েছে বিপদ তা আঁচ করতে পারেননি তাঁরা। মালদহ পর্যন্ত এসে আর এগোতে পারেনি বাস । অগত্যা মালদা শহরের গৌড় কন্যা বাস টার্মিনাসে বসেই দিন কেটেছে যুগলের । বৌভাত দুর অস্ত। কখন বাড়ি পৌঁছাবেন, তাই নিয়ে চিন্তার শেষ নেই। কিছুই যেন বুঝে উঠতে পারছেন না সূত্রধর দম্পতি। তাঁদের সঙ্গে থাকা আত্মীয় সনু সূত্রধরের আক্ষেপ, বর কনেই যেখানে পৌঁছাতে পারল না। সেখানে বউভাত হবে কিভাবে? সব আনন্দই মাটি হয়ে যেতে বসেছে। লোকসানের কথা ভেবে আর কি হবে।

First published: December 16, 2019, 7:06 PM IST
পুরো খবর পড়ুন
अगली ख़बर