Narendra Modi: আজ ফের বঙ্গে সভা মোদির, ভোটের দিনকেই বারবার কেন বাছছেন প্রধানমন্ত্রী?

Narendra Modi: আজ ফের বঙ্গে সভা মোদির, ভোটের দিনকেই বারবার কেন বাছছেন প্রধানমন্ত্রী?

আজ ফের রাজ্যে মোদি

প্রথম দফা ভোটের দিন রাজ্যে না এলেও সে সময় বাংলাদেশে মতুয়া তীর্থস্থান দর্শনে যান তিনি। সঙ্গে ছিলেন বনগাঁর বিজেপি সাংসদ শান্তনু ঠাকুর। যা নিয়ে নির্বাচন কমিশনে অভিযোগও জানায় তৃণমূল। এবার ফের ভোটের দিন বাংলায় এসে তৃণমূলের বিরুদ্ধে সুর চড়াবেন তিনি।

  • Share this:

    #কলকাতা: গত ১ এপ্রিল, রাজ্যে দ্বিতীয় দফা ভোটের দিনের পর আজ ফের। তৃতীয় দফা ভোটের দিন ফের বাংলায় সভা করতে আসছেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি (Pm Modi in Bengal)। কোচবিহার (Coochbehar) ও হাওড়ায় (Howrah) দুটি সমাবেশ করবেন তিনি। যদিও দ্বিতীয় ও তৃতীয় দফা ভোটের মাঝেও রাজ্যে এসেছেন মোদি। সভা করেছেন তারকেশ্বর ও সোনারপুরে। কিন্তু ভোটের দিনগুলিতে রাজ্যে মোদির আগমন বিশেষ তা‍ৎপর্যপূর্ণ বলেই মনে করছে রাজনৈতিক মহল। শুধু তাই নয়, প্রথম দফা ভোটের দিন রাজ্যে না এলেও সে সময় বাংলাদেশে মতুয়া তীর্থস্থান দর্শনে যান তিনি। সঙ্গে ছিলেন বনগাঁর বিজেপি সাংসদ শান্তনু ঠাকুর। যা নিয়ে নির্বাচন কমিশনে অভিযোগও জানায় তৃণমূল। এবার ফের ভোটের দিন বাংলায় এসে তৃণমূলের বিরুদ্ধে সুর চড়াবেন তিনি।

    প্রসঙ্গত, দ্বিতীয় দফার ভোটের দিন প্রথমে দক্ষিণ ২৪ পরগনার মথুরাপুর ও পরে উলুবেড়িয়ার সভা থেকে মোদি তৃণমূল নেত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্য়ায়কে (Mamata Banerjee) আক্রমণ শানিয়ে বলেন, 'দিদি নন্দীগ্রামে হেরে গিয়েছেন। দিদির মুখই এবারের ভোটের এক্সিট পোল।' প্রসঙ্গত, মোদি যখন এ কথা বলছেন, মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় তখন নন্দীগ্রামের বয়ালের বুথে বসে রয়েছেন, বাইরে চলছে বিক্ষোভ। সেই পরিস্থিতিতে প্রধানমন্ত্রীর এ ধরনের মন্তব্য নির্বাচনী বিধিভঙ্গ কিনা, তা নিয়ে প্রশ্ন তুলেছিলেন অনেকেই।

    শুধু তাই নয়,উলুবেড়িয়ায় সভা থেকেও মোদি বলেন, 'দিদি অন্য কেন্দ্র থেকে আপনি প্রতিদ্বন্দ্বিতা করতে পারেন বলে শুনতে পাচ্ছি, এটা কি সত্যি? আপনি প্রথমে নন্দীগ্রাম গেলেন, সেখানকার মানুষ আপনাকে জবাব দিয়েছে। আপনি যদি অন্য কেন্দ্র থেকে লড়তে চান, তা হলেও বাংলার মানুষ প্রস্তুত।' একজন প্রার্থী যখন নিজের কেন্দ্রে ভোট সামলাচ্ছেন, তখন এই ধরনের মন্তব্যের যৌক্তিকতা নিয়েও প্রশ্ন ওঠে। অনেকের মতে, ভোটের দিন রাজ্যে এসে মোদির এই আক্রমণ ইচ্ছাকৃতই। কারণ তখন সেই দিনের ভোটের অনেকটা সময়ই বাকি থাকে। নির্বাচনী এলাকায় সভা না হলেও মোদির বার্তা যে গোটা বাংলাতেই ছড়িয়ে পড়ছে, তা তিনি নিজেও জানেন। তাই ইচ্ছাকৃতভাবেই এই কৌশল নিচ্ছেন মোদি। যদিও বিজেপি নেতৃত্ব এ বিষয়ে মুখ খুলতে নারাজ।

    এদিন অবশ্য প্রথমে উত্তরবঙ্গের কোচবিহারে যাচ্ছেন মোদি। কোচবিহারের দিনহাটায় বিজেপি প্রার্থী নিশীথ প্রামাণিকের সমর্থনে সভা করবেন তিনি। এর আগে অমিত শাহও নিশীথের সমর্থনে সভা করে গিয়েছেন। এবার পালা মোদির।

    Published by:Suman Biswas
    First published:

    লেটেস্ট খবর