• Home
  • »
  • News
  • »
  • north-bengal
  • »
  • নারায়ণী সেনা নিয়ে চাঞ্চল্যকর তথ্য, প্রশিক্ষণের দায়িত্বে বিএসএফ-এর কর্মীরা!

নারায়ণী সেনা নিয়ে চাঞ্চল্যকর তথ্য, প্রশিক্ষণের দায়িত্বে বিএসএফ-এর কর্মীরা!

বেশকিছুদিন ধরেই বিতর্ক চলছিল। এবার তা চরমে পৌঁছল। কোচবিহারের নারায়ণী সেনার প্রস্তুতিতে নাম জড়াল ভারতীর সীমান্তরক্ষা

বেশকিছুদিন ধরেই বিতর্ক চলছিল। এবার তা চরমে পৌঁছল। কোচবিহারের নারায়ণী সেনার প্রস্তুতিতে নাম জড়াল ভারতীর সীমান্তরক্ষা

বেশকিছুদিন ধরেই বিতর্ক চলছিল। এবার তা চরমে পৌঁছল। কোচবিহারের নারায়ণী সেনার প্রস্তুতিতে নাম জড়াল ভারতীর সীমান্তরক্ষা

  • Pradesh18
  • Last Updated :
  • Share this:

    #কোচবিহার: ভারতের অখণ্ডতায় ঘা দিচ্ছে খোদ বিএসএফ? গ্রেটার কোচবিহার পিপলস অ্যাসোসিয়েশনের নারায়ণী সেনাকে হাতেকলমে প্রশিক্ষণ দেওয়ার ঘটনা ঘিরে এই অভিযোগই এবার উঠছে সীমান্ত রক্ষী বাহিনীর বিরুদ্ধে। সোমবারই সেই খবর সম্প্রচারিত হয়েছিল ইটিভি বাংলায়। এবার নারায়ণী সেনাকে বিএসএফের সামরিক শিক্ষা দেওয়ার এক্সক্লুসিভ ছবি ইটিভি বাংলার হাতে।

    কোচ ও রাজবংশী ভাবাবেগকে কাজে লাগিয়ে একসময় পৃথক রাজ্যের দাবিতে একসময় তীব্র আন্দোলন শুরু করেছিল জিসিপিএ। আপাতত গতি হারালেও তার প্রক্রিয়া তলে তলে চলছেই। কিন্তু, বিতর্ক দানা বেঁধেছে এমন বিচ্ছিন্নতাবাদী ৷ গত ১৬ থেকে ২০ অগাস্ট মাথাভাঙার শিকারপুর গ্রাম পঞ্চায়েতের চেনাকাটা বারুণীমেলার মাঠে নারায়ণী সেনার জন্য প্রশিক্ষণ শিবির শুরু করে জিসিপিএ। তাতে যোগ দেয় ৩০৯ জন পুরুষ ও ৮১ জন মহিলা। প্রশিক্ষণে ছিলেন চেনাকাটা বর্ডার আউটপোস্টের বিএসএফ ইন্সপেক্টর ওমপ্রকাশ যাদব সহ ৪ জন। তাঁদের মধ্যে ২ মহিলা বিএসএফ কর্মীও ছিলেন। ছবিতে স্পষ্ট, তাঁরাই নারায়ণী সেনার ওই সদস্যদের সামরিক প্রশিক্ষণ দেন।

    কার নির্দেশে নারায়ণী সেনাকে প্রশিক্ষণ দিল বিএসএফ? এমন চাঞ্চল্যকর কোনও ঘটনার সঙ্গে কি বিএসএফের কোনও বড় কর্তা জড়িত? নাশকতা বা দেশ বিরোধী কোনও ঘটনায় নারায়ণী সেনা জড়িত থাকলে তার দায় কে নেবে? এর আগে কোচ ও রাজবংশীদের জন্য পৃথক রেজিমেন্ট তৈরির দাবি তুলে কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রীকে চিঠি দেন দার্জিলিংয়ের সাংসদ এস এস আলুওয়ালিয়া। (বাইট এলে এখানে দেওয়া যেতে পারে) এবার, বিএসএফের নেতৃত্বে প্রশিক্ষণ শিবির নিয়ে রাজ্যও পাল্টা চিঠি পাঠাতে চলেছে বিএসএফের দাবি, সাবধান-বিশ্রামের মতো সামরিক শিক্ষার প্রাথমিক পাঠ দিয়েছিলেন তাঁরা। কিন্তু, তাতেও নিভু নিভু আগুনে ঘি পড়ার সম্ভাবনা রয়েছে।

    বেশকিছুদিন ধরেই বিতর্ক চলছিল। এবার তা চরমে পৌঁছল। কোচবিহারের নারায়ণী সেনার প্রস্তুতিতে নাম জড়াল ভারতীর সীমান্তরক্ষা বাহিনী বা বিএসএফ-এর। পৃথক রাজ্যের দাবিতে আন্দোলন করা গ্রেটার কোচবিহারের পরিকল্পিত এই নারায়ণী সেনা। তাদের প্রশিক্ষণে বিএসএফ-এর অংশগ্রহণ প্রকাশ্যে এসেছে পুলিশের রিপোর্টে। দেশের অভ্যন্তরীণ নিরাপত্তা নিয়ে চাঞ্চল্যকর এই অভিযোগে মুখ খুলতে নারাজ বিএসএফ কর্তারা। বিচ্ছিন্নতাবাদীদের মদতের অভিযোগ অভ্যন্তরীণ নিরাপত্তায় উঠছে প্রশ্ন ৷

    গ্রেটার কোচবিহার আন্দোলন এখন ইতিহাস। কিন্তু তার রেশ এখনও রয়ে গিয়েছে। অন্য রূপে নতুন করে মাথাচাড়া দিয়েছে। পরিকল্পনা নেওয়া হয়েছে নারায়ণী সেনা বাহিনী তৈরির। এলাকায় প্রচার চলছে, ভারতীয় সেনাবাহিনীতে গোর্খা বা শিখ রেজিমেন্টের মতো ভবিষ্যতে ঠাঁই হবে নারায়ণী সেনার তারজন্যেই রাজবংশী ছেলে-মেয়েদের এখন থেকে এই বাহিনীতে প্রশিক্ষণ নিতে হবে ৷

    পুলিশের রিপোর্টে জানা গিয়েছে এই চাঞ্চল্যকর তথ্য। কোচবিহারের মাথাভাঙার বরুনি মেলার মাঠে ষোলো থেকে বিশে অগাস্ট প্রশিক্ষণ শিবির চলে। একাশি জন মেয়ে ও তিনশো ন'জন ছেলে এখানে প্রশিক্ষণ নেন। নারায়ণী সেনা গড়তে বিএসএফ!

    বিএসএফ-এর বি কোম্পানির ১৫৮ নং ব্যাটেলিয়নের ইন্সপেক্টর ওমপ্রকাশ যাদব ছিলেন নেতৃত্বে ৷ প্রশিক্ষণের দায়িত্বে ছিলেন আরও ৩ বিএসএফ কর্মী এদের মধ্যে ২ জন মহিলাও ছিলেন ভারতীয় সংবিধান ও আইন অনুসারে, কোনও নিরাপত্তাবাহিনী এমন কোনও বেসরকারি বাহিনী বা রাজনৈতিক দলকে প্রশিক্ষণ দিতে পারে না। বিশেষ করে গ্রেটার কোচবিহারের মতো সংগঠন যে বাহিনীর পিছনে রয়েছে, তাদের প্রশিক্ষণে নাম জড়িয়ে বিচ্ছিন্নতাবাদীদের মদত দেওয়ার অভিযোগ উঠেছে। যদিও ঘটনার পরই বিএসএফ কর্তারা অদ্ভুদভাবে চুপ।

    First published: