ভরা মরশুম, পাহাড়ে পর্যটকদের ঢল ! বনধ থেকে সরে এল মোর্চার যুব সংগঠন

ভরা মরশুম, পাহাড়ে পর্যটকদের ঢল !  বনধ থেকে সরে এল মোর্চার যুব সংগঠন

বিনয় তামাংয়ের আহ্বানে সাড়া দিয়ে পাহাড় বনধ থেকে সরে এল মোর্চার যুব সংগঠন

  • Share this:

PARTHA PRATIM SARKAR

#শিলিগুড়ি: ভরা পর্যটন মরশুম। পর্যটকদের ঢল পাহাড়জুড়ে। আর তাই দলের সুপ্রিমো বিনয় তামাংয়ের আহ্বানে সাড়া দিয়ে পাহাড় বনধ থেকে সরে এল মোর্চার যুব সংগঠন। এনআরসি এবং সিএএ-এর বিরোধিতায় আগামী ২৯ ডিসেম্বর ২৪ ঘণ্টার পাহাড় বনধের ডাক দেয় যুব মোর্চা। বৃহস্পতিবার শিলিগুড়িতে মোর্চা সভাপিতি বিনয় তামাং বনধ প্রত্যাহারের বিষয়ে দলের যুব সংগঠনের কাছে আহ্বান জানান। পর্যটকদের কথা মাথায় রেখেই সিদ্ধান্ত পুনর্বিবেচনা করার আর্জি জানান। দলের সুপ্রিমোর আহ্বানের পরই দার্জিলিংয়ে জরুরি বৈঠক ডাকে যুব মোর্চা। তারপরই বনধ প্রত্যাহারের সিদ্ধান্ত ঘোষণা করেন যুব মোর্চার নেতা অমৃত ইয়নজন।

হাঁফ ছেড়ে বাঁচল দেশ বিদেশের পর্যটকেরা। এই মূহূর্তে ভিড়ে ঠাসা পাহাড়। তিল ধারনের জায়গা নেই পাহাড়ের হোটেল, কটেজ, হোম স্টেগুলিতে। বনধ প্রত্যাহারের আর্জি জানিয়েছিল হিমালয়ান হসপিটালিটি অ্যাণ্ড ট্যুরিজম নেটওয়ার্ক। সংগঠনের সম্পাদক সম্রাট সান্যাল জানান, বনধ প্রত্যাহার হয়েছে। ভাল সিদ্ধান্ত। এতে পর্যটকদের আতঙ্ক কাটল। ক্রিসমাসের পর এখন পর্যটকেরা পাহাড়মুখী। এনজেপি স্টেশন, বাগডোগরা বিমানবন্দর কিংবা তেনজিং নোরগে বাস টার্মিনাস থেকে পর্যটকবোঝাই গাড়ি ছুটছে শৈলশহর দার্জিলিংয়ের পথে।

বনধ প্রত্যাহারের সিদ্ধান্তকে স্বাগত জানিয়েছে পর্যটন শিল্পের সঙ্গে জড়িতরাও। তবে এনআরসি এবং সিএএ-এর বিরোধিতায় লাগাতার কর্মসূচি মোর্চার। আগামী ২৮ ডিসেম্বর দার্জিলিং মোটর স্ট্যাণ্ড থেকে কার্শিয়ং স্টেশন পর্যন্ত পদযাত্রার ডাক দিয়েছে মোর্চা। আগামী ৫ জানুয়ারি কার্শিয়ং থেকে শিলিগুড়ির দার্জিলিং মোড় পর্যন্ত পদযাত্রা করবে মোর্চা। ফের নতুন বছরে দলের কেন্দ্রীয় কমিটির সভায় পরবর্তী আন্দোলনের কর্মসূচি স্থির করবে মোর্চা। দুই নয়া বিলের বিরোধিতায় আন্দোলন থেকে সরবে না মোর্চা, সাফ জানিয়েছেন মোর্চা সভাপতি বিনয় তামাং। কেন্দ্রের ওপর চাপ বাড়াতে পাহাড়জুড়ে নয়া কৌশলে আন্দোলনে নামবে গোর্খা জনমুক্তি মোর্চা। তবে পর্যটকদের কোনো অসুবিধেয় ফেলতে চায় না মোর্চা।

First published: 08:54:42 PM Dec 26, 2019
পুরো খবর পড়ুন
अगली ख़बर