• Home
  • »
  • News
  • »
  • north-bengal
  • »
  • মডিউলার কিচেন এবারে হাসপাতালে !

মডিউলার কিচেন এবারে হাসপাতালে !

বৃষ্টি, ভেজা ভাবের দরুন বর্ষাকালে বাড়ির ভিতর একটা স্যাঁতসেতে গন্ধ ঘুরপাক খায়! বিশেষ করে রান্নাঘরে! কীভাবে ছুটকারা পাবেন? রইল সহজ, ঘরোয়া সমাধান

বৃষ্টি, ভেজা ভাবের দরুন বর্ষাকালে বাড়ির ভিতর একটা স্যাঁতসেতে গন্ধ ঘুরপাক খায়! বিশেষ করে রান্নাঘরে! কীভাবে ছুটকারা পাবেন? রইল সহজ, ঘরোয়া সমাধান

স্বাস্থ্যসম্মত খাবার রোগীদের কাছে পৌঁছে দিতেই অত্যাধুনিক রান্না ঘর ৷

  • Share this:

#শিলিগুড়ি: মডিউলার কিচেন। এবারে জেলা হাসপাতালে মডিউলার কিচেন !রোগীদের উন্নতমানের স্বাস্থ্যসম্মত খাবার তুলে দিতেই অত্যাধুনিক রান্নাঘর। আজ, মঙ্গলবার তার আনুষ্ঠানিক উদ্বোধন হল শিলিগুড়ি জেলা হাসপাতালে। উদ্বোধন করেন জেলা হাসপাতালের রোগী কল্যান সমিতির চেয়ারম্যান রুদ্রনাথ ভট্টাচার্য।

ক্যাম্পাসের পিছনের দিকে চারটে রুমের এই অত্যাধুনিক রান্না ঘর। যেখানে রাধুঁনি থাকবেন একজন। সঙ্গে আরও ১৩জন মহিলা কর্মী। তাঁদের জন্য আবার আলাদা পোশাকের ব্যবস্থাও করা হয়েছে। তারাই খাবার পরিষেবা তুলে দেবেন রুগীদের বেডে। রাজ্য সরকার এই মডিউলার কিচেন তৈরির জন্য বরাদ্দ করেছে ৪৩ লাখ টাকা।

ব্রেক ফাস্ট থেকে ডিনার, রুগীদের সময়ে পৌঁছে দেওয়া হবে স্বাস্থ্যসম্মত খাবার। প্রতিদিন প্রায় পাঁচশো জন রুগীর জন্য খাবারের ব্যবস্থা করা হবে। চাহিদা মতোই তা তৈরি করা হবে। দীর্ঘ দিন ধরেই মডিউলার কিচেন তৈরির ভাবনা শুরু করে হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ। অবশেষে তা বাস্তবায়িত হল। হাসপাতালে বিভিন্ন পরীক্ষার জন্যে আধুনিক চিকিৎসা সরঞ্জাম বসানো হয়েছে। স্বাস্থ্য পরিষেবার মান বাড়ানোর দিকে নজর দিয়েছে কর্তৃপক্ষ। শূন্যপদে চিকিৎসক এবং নার্স নিয়োগও করা হবে। এবারে রুগীদের উন্নতমানের খাবার সরবরাহ করতেও উদ্যোগী কর্তৃপক্ষ। আর তাই মডিউলার কিচেন তৈরি করা হয়েছে। এখন থেকে প্রতি প্লেট খাবারের জন্যে রুগীর পরিবারকে ৬০ টাকা করে দিতে হবে।

এদিনের অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন দার্জিলিংয়ের মুখ্য স্বাস্থ্য আধিকারিক প্রলয় আচার্য্য, হাসপাতাল সুপার অমিতাভ মণ্ডল। মডিউলার কিচেনের দেখভালের দায়িত্বে থাকবেন সহকারী সুপার এবং ডেপুটি সুপারিনটেন্ডেন্ট অফ নার্স। খাবারের মান কেমন হচ্ছে, তাও যাচাই করা হবে বলে হাসপাতাল সূত্রে জানা গিয়েছে। নতুন এই পরিষেবাকে স্বাগত জানিয়েছে রোগীর আত্মীয়রা। তাদের দাবি, গুনগত মান নিয়ে যেন প্রশ্ন না ওঠে। কিছুদিন আগে জেলা হাসপাতালেই খাবারে প্লেটে পোকা দেখা গিয়েছিল। তা নিয়ে তোলপাড় পড়ে যায় হাসপাতালে। বিভাগীয় তদন্তও করে কর্তৃপক্ষ।

Partha Pratim Sarkar

Published by:Siddhartha Sarkar
First published: