corona virus btn
corona virus btn
Loading

মালদহে আমফানের প্রভাবে আমের ক্ষতি অন্তত ৩০ কোটি, ক্ষতি হয়েছে লিচুরও

মালদহে আমফানের প্রভাবে আমের ক্ষতি অন্তত ৩০ কোটি, ক্ষতি হয়েছে লিচুরও

ক্ষতি হয়েছে প্রায় দেড় হাজার মেট্রিক টন লিচুর ফলনও।

  • Share this:

#মালদহ: আমফানে আমজনতার সাধের আমও এবার অমিল হতে পারে। ঘূর্ণিঝড় সরাসরি মালদহে আছড়ে পড়েনি। কিন্তু দীর্ঘ সময় ধরে ঝোড়ো হাওয়ায় আমের বিপুল ক্ষতি হয়েছে। ক্ষতির পরিমাণ অন্তত ৩০ কোটি টাকা। ক্ষতি হয়েছে প্রায় দেড় হাজার মেট্রিক টন লিচুর ফলনও।

এবছর মালদহের আমে একের পর এক ধাক্কা। প্রথমে গাছে মুকুলের সময় বৃষ্টি, তারপর শিলাবৃষ্টি।সমস্যা বাড়ায় লকডাউন। তার ফলে গাছ পরিচর্যায় অসুবিধা। শেষে আমফানের দাপট। সব মিলিয়ে মালদহে এবার আমের ব্যাপক ক্ষতি। জেলায় ৩১ হাজার হেক্টর জমিতে আম বাগান রয়েছে। প্রাথমিকভাবে এবছর জেলায় আম উৎপাদনের লক্ষ্যমাত্রা ছিল তিন লক্ষ মেট্রিক টনেরও বেশি। কিন্তু এপ্রিলের শেষে ঝড় ও শিলাবৃষ্টিতে ফলনের ক্ষতি হয়। এর ফলে লক্ষ্যমাত্রা কমে দাঁড়ায় আড়াই লক্ষ মেট্রিক টন। এবার যখন আম পাড়ার অপেক্ষা, তখনই এল আমফান। সরকারি হিসেবে, দীর্ঘক্ষণ ধরে চলা ঝোড়ো হাওয়ায় জেলায় অন্তত তিরিশ হাজার মেট্রিক টন আম ঝরে পড়েছে। বিভিন্ন বাগান থেকে এক থেকে দু'টাকা কিলো দরে সেই আম বিক্রি হয়। ক্ষতিগ্রস্ত প্রায় ৫০ হাজার আম চাষি।

শুধু আমই নয়, ক্ষতি হয়েছে লিচুরও। জেলায় প্রায় দেড় হাজার মেট্রিক টন লিচু নষ্ট হয়েছে। টাকার হিসেবে যা ৮ কোটি। এবছর ফলনের শুরু থেকেই ক্ষতির মুখে আম। মার্চের প্রথমে মুকুল থাকার সময়ে পরপর দু'দিন বৃষ্টি হয়। বৃষ্টিতে লক্ষ্মণভোগ, ল্যাংড়া, হিমসাগর আমের ক্ষতি হয়। এপ্রিলের শেষে পরপর দু'দিন মালদহের বহু এলাকায় ঝড় ও শিলাবৃষ্টি হয়। ঝড় শিলাবৃষ্টিতে ইংরেজবাজার,পুরাতন মালদহ, কালিয়াচক-৩, মানিকচক, রতুয়া-১ ও ২ নম্বর ব্লকে আমবাগানে ক্ষতি। অন্তত ৫০ হাজার মেট্রিক টন আমের ক্ষতি হয়। শেষ আঘাত আমফানের।

বিশেষজ্ঞদের মতে, গাছের সঠিক পরিচর্যার অভাবেই একটু ঝড়েই আম ঝরে পড়ছে। সব মিলিয়ে ঝড়ের ফলে বিপুল ক্ষতি মালদহের আম ও লিচুর।

Sebak Deb Sarma

Published by: Ananya Chakraborty
First published: May 23, 2020, 9:20 PM IST
পুরো খবর পড়ুন
अगली ख़बर