উত্তরবঙ্গ

corona virus btn
corona virus btn
Loading

‘বিজেপি আসলে চম্বলের বড় বড় ডাকাত, কেন্দ্রে ২ কোটি চাকরি দেবে বলে ২ লাখও দেয়নি আর এখানে ফর্ম ফিলাপ করাচ্ছে!’ তীব্র কটাক্ষ মমতার

‘বিজেপি আসলে চম্বলের বড় বড় ডাকাত, কেন্দ্রে ২ কোটি চাকরি দেবে বলে ২ লাখও দেয়নি আর এখানে ফর্ম ফিলাপ করাচ্ছে!’ তীব্র কটাক্ষ মমতার

কেন্দ্র বেকারের সংখ্যা ৪০% বাড়িয়েছে ৷ বলেছিল ক্ষমতায় এলে প্রত্যেকের অ্যাকাউন্টে ১৫ লক্ষ টাকা দেব, কেউ পেয়েছেন? শুধু উল্টোপাল্টা কথা বলার জন্য আছে এরা। বিজেপিকে নিশানা মমতার

  • Share this:

#জলপাইগুড়ি: জলপাইগুড়ির জনসভা থেকে গেরুয়া শিবিরকে তীব্র আক্রমণ মমতার ৷ ‘সবথেকে বড় চোর’ বলে আখ্যা দিয়ে বিজেপির তুলনা টানলেন চম্বলের ডাকাতের সঙ্গে ৷ বিজেপির এনআরসি, এনপিআর থেকে চাকরির প্রতিশ্রুতি, একের পর এক ইস্যুতে কড়া ভাষায় তোপ তৃণমূলনেত্রীর ৷

উত্তরের উত্তর পেতে উত্তরবঙ্গ সফরে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় ৷ লোকসভায় এখানে একটিও আসন জেতেনি তৃণমূল, সবটাই গিয়েছিল বিজেপির ঝুলিতে ৷ তাই ২১-এর কুরুক্ষেত্রের আগে জোরকদমে শেষমুহূর্তের প্রস্তুতি ঝালাতে এবং উন্নয়নের খতিয়ান নিয়ে উত্তরবঙ্গে হাজির মুখ্যমন্ত্রী ৷

উত্তরবঙ্গ সফরের দ্বিতীয় দিনে মঙ্গলবার জলপাইগুড়ি শহরে এবিপিসি মাঠের জনসভার আগাগোড়া মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের নিশানায় ছিল বিজেপি ৷ কেন্দ্র থেকে রাজ্য একাধিক ইস্যুতে আক্রমণ শানালেন তৃণমূলনেত্রী ৷ তিনি বলেন, ‘সবথেকে বড় চোর বিজেপি ৷ সব চম্বলের বড় বড় ডাকাতরা আসছে ৷ হিন্দু নয়, কুৎসা ও হিংসার ধর্ম তৈরি করেছে বিজেপি। মানুষে-মানুষে ভাগাভাগি করাই ওদের কাজ। ’

ফের এনআরসি-এনপিআর নিয়ে সরব নেত্রী ৷ বলেন,‘আবার এনআরসি করবে বলছে ৷ আর বিজেপির এনআরসির ধাক্কা খেতে হবে না। এনপিআর খায় না মাথায় দেয়! এনআরসি ও এনপিআরের তফাৎ‍ কী? আগে সেটা বলুক ৷ ওদের এই কথায় ভুলবেন ৷ পাশেই তো অসম ৷ ওখানে ১৯ লক্ষ বাঙালির নাম বাদ দেওয়া হয়েছে। ’

তৃণমূলের রিপোর্ট কার্ডের পাল্টা বিজেপির বের করা সরকারের ফেল কার্ডেরও কড়া জবাব দেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় ৷ নেতাজী সুভাষ চন্দ্র বোসের উক্তি উদ্ধৃত করে বলেন, ‘যারা কাজ করে তাদেরই ভুল হয় ৷ আমাদের কাজে ভুল হলে সংশোধন করে নেব।আগে যারা সরকারে ছিল কোন কাজটা করেছে! ভাষণ দিয়ে সব কাজ হয় না।’

রাজ্যে বেকার যুবক যুবতীদের জন্য সম্প্রতি বিজেপির চালু করা প্রতিশ্রুতি কার্ড নিয়েও আক্রমণ শানান মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় ৷ বলেন, ‘বিজেপির প্রতিশ্রুতি মানে তো প্রতারণা। চাকরির নোটিফিকেশন জারির পরেও ভোঁভা, কিছুই নেই! বলেছিল বছরে ২ কোটি চাকরি দেব, দিয়েছে?  আর বাংলায় এখন ফর্ম ফিলাপ করাচ্ছে, আর ভোটের পর তারপর হাওয়া! কেন্দ্র বেকারের সংখ্যা ৪০% বাড়িয়েছে ৷ বলেছিল ক্ষমতায় এলে প্রত্যেকের অ্যাকাউন্টে ১৫ লক্ষ টাকা দেব, কেউ পেয়েছেন? শুধু উল্টোপাল্টা কথা বলার জন্য আছে এরা। বিজেপির উদ্দেশ্য বাংলাকে গুজরাত বানানো ৷ আমরা বাংলাকে গুজরাত বানাতে দেব না ৷ জাতীয় সংগীত পালটে দেখাক ৷ বাড়ির মহিলারাই উলটে দেবে বিজেপিকে ৷’

Published by: Elina Datta
First published: December 15, 2020, 3:17 PM IST
পুরো খবর পড়ুন
अगली ख़बर