Mamata Attacks Amit Shah: কেন্দ্রীয় বাহিনীকে দিয়ে কী করাচ্ছেন অমিত শাহ? অভিনব সমাধান দিলেন 'দিদি'

Mamata Attacks Amit Shah: কেন্দ্রীয় বাহিনীকে দিয়ে কী করাচ্ছেন অমিত শাহ? অভিনব সমাধান দিলেন 'দিদি'

মমতার নিশানায় শাহ-বাহিনী

কেন্দ্রীয় বাহিনীকে নিশানা করে বলে দিলেন, 'গ্রামে-গ্রামে ঢুকে গ্রামবাসীদের ভয় দেখাচ্ছে সিআরপিএফ। আমি ভোট পর্যন্ত সহ্য করব। তারপর বুঝে নেব। অলরেডি ৬৩টা কেস হয়েছে। সাধারণ মানুষ কেস করলে কিন্তু আমার কিছু করার থাকবে না।'

  • Share this:

    #ফালাকাটা: নন্দীগ্রাম নিয়ে আর চিন্তা নেই। এবার লক্ষ্য রাজ্যের বাকি আসনগুলিতে নির্বিঘ্নে ভোট। কিন্তু একদিকে কেন্দ্রীয় বাহিনী আর অপরদিকে নির্বাচন কমিশন - এই দুই 'অস্ত্র' নিয়েই বাংলার ভোট পরিচালনা করছেন কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহ। বৃহস্পতিবার নন্দীগ্রামের ভোট মেটার পর শুক্রবার উত্তরবঙ্গে গিয়ে এমনই অভিযোগ করলেন তৃণমূল নেত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। সেইসঙ্গে কেন্দ্রীয় বাহিনীকে নিশানা করে বলে দিলেন, 'গ্রামে-গ্রামে ঢুকে গ্রামবাসীদের ভয় দেখাচ্ছে সিআরপিএফ। আমি ভোট পর্যন্ত সহ্য করব। তারপর বুঝে নেব। অলরেডি ৬৩টা কেস হয়েছে। সাধারণ মানুষ কেস করলে কিন্তু আমার কিছু করার থাকবে না।'

    তবে কেন্দ্রীয় বাহিনীকে নিয়ে আশঙ্কার কথা যেমন শুনিয়েছেন মমতা, তেমনই 'সমাধানের' উপায়ও বাতলে দিয়েছেন তিনি। বলেন, 'কেন্দ্রীয় বাহিনী গ্রামে গ্রামে ভয় দেখাতে গেলে, ভয় পাবেন না। যে যেখানে থাকবেন, সবাই মিলে জাতি-ধর্ম নির্বিশেষে প্রতিরোধ গড়ে তুলুন। আমি আপনারদের সঙ্গে আছি। আমি কিন্তু চুড়ি পরে বসে নেই।'

    এরপরই কোচবিহারের প্রার্থীদের মঞ্চে আলাদা করে ডেকে মমতা বলেন, 'তোমরা আমাকে নিশ্চিত করো, এমন কিছু হলে প্রতিবাদ করবে। যদি ভোটের আগের দিন ওরা তাণ্ডব করে, তোমরাও পাড়ায় পাড়ায় ঘুরে বেড়াবে। দেখি কত সিআরপিএফ, বিএসএফ আর কেন্দ্রীয় বাহিনী তোমাদের গ্রেফতার করে।' দলের কর্মীদের বাকি দফা ভোটে চনমনে রাখতে মমতা এরপরই বলে ওঠেন, 'আমার দুর্বল ছেলে মেয়ে চাই না। আমি এখনও মরে যাইনি। দুর্বলদের নিয়ে আমি কাজ করি না। আমি এমন ছেলে-মেয়ে চাই, যারা বিজেপির টাকার জোর, গায়ের জোরের বিরুদ্ধে প্রতিবাদ করবে।'

    তবে, সিআরপিএফ-বিএসএফ জওয়ানদের প্রতি সহমর্মিতাও দেখিয়েছেন মমতা। বলেছেন, 'আমি সিআরপিএফ, বিএসএফকে সম্মান করি। কিন্তু কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রীর নির্দেশে ওরা তাণ্ডব করেছে। অনুরোধ করছি, বিজেপির কথায় আপনারা অত্যাচার করা বন্ধ করুন। নন্দীগ্রামেও আমার নেতাদের বাড়িতে ঢুকে তাণ্ডব করেছে। তবে, ওরা যদি তাণ্ডব করেন, আপনারাও তার জবাব দেবেন। তবে, মারধর করবেন না, বরং উলুধ্বনি-আজান দিয়ে প্রতিবাদ করবেন।'

    Published by:Suman Biswas
    First published:
    0