Home /News /north-bengal /
Jalpaiguri : ক্রিকেটার হওয়ার স্বপ্নপূরণে বাড়ি থেকে দূরে ভিন শহরের ফুটপাতে বসে আঁকা ছবি বিক্রি কিশোরের

Jalpaiguri : ক্রিকেটার হওয়ার স্বপ্নপূরণে বাড়ি থেকে দূরে ভিন শহরের ফুটপাতে বসে আঁকা ছবি বিক্রি কিশোরের

ছেলে ক্রিকেটার হোক, এমন চাননি বাড়ির বড়রা

ছেলে ক্রিকেটার হোক, এমন চাননি বাড়ির বড়রা

Jalpaiguri : হাতখরচ জোগাড় করতে নিজের আঁকা ছবির পসরা সাজিয়ে প্রতি সন্ধ্যায় বসছেন কদমতলা সংলগ্ন শিয়ালপাড়া মোড়ে

  • Share this:

    জলপাইগুড়ি : ক্রিকেটার হওয়ার স্বপ্ন । বাড়ি ছেড়ে স্বপ্ন পূরণে জলপাইগুড়ি এসে হাতখরচের টাকা তুলতে শহরের ফুটপাতে বসে ছবি এঁকে বিক্রি করেন শুভজিৎ। তার কব্জির মোচড়ে নিমেষেই লাল বল খুঁজে নেয় বাউন্ডারির ঠিকানা । কখনও বা আঙুলের কেরামতিতে অফস্পিনের ভেলকিতে উড়ে যায় উইকেটের বেল। মালদহের ইংরেজবাজার থেকে জলপাইগুড়ি এসে ফিটনেস ট্রেনিং করছেন শুভজিৎ সাহা। লক্ষ্য, বাংলা দলের হয়ে রঞ্জি খেলা । আশ্রয় কোচের বাড়িতেই। থাকা-খাওয়া নিখরচায় সেখানেই । হাতখরচ জোগাড় করতে নিজের আঁকা ছবির পসরা সাজিয়ে প্রতি সন্ধ্যায় বসছেন কদমতলা সংলগ্ন শিয়ালপাড়া মোড়ে ।

    ছেলে ক্রিকেটার হোক, এমন চাননি বাড়ির বড়রা । কিন্তু নিজের জেদ সম্বল করেই পথচলা শুরু করেছেন শুভজিৎ । ফিটনেস-সহ অন্যান্য বিষয়ে প্রশিক্ষণ নিচ্ছেন কোচ সুদীপ চন্দের কাছে । থাকা খাওয়া বিনামূল্যে, সুদীপবাবুর ডাঙাপাড়ার বাড়িতেই । তবে নিজের হাতখরচ বলে কিছু লাগবে তো?  সেই খরচ জোগাতেই ফরমায়েশি ছবি এঁকে দু-পয়সা উপার্জন করছেন তিনি। শুভজিত বলেন, প্রথাগতভাবে আঁকা শেখার সুযোগ তার হয়নি । লকডাউনের সময় থেকেই হাতেখড়ি। জলপাইগুড়ি এসে নীহার মজুমদার, নির্মল চন্দ,অমরনাথ নন্দীর মতো চিত্রশিল্পীদের সংস্পর্শে এসে তার আঁকার উন্নতি হয়েছে।

    আরও পড়ুন : গা ঢাকা আগেই, এ বার পার্থ গ্রেফতার হতেই মোবাইলও বন্ধ কোলাঘাটের এক তৃণমূল নেতার

    তিনি সপরিবারে সৌরভের ছবি এঁকেছেন । বিরাট কোহলি, ঋদ্ধিমান সাহা-সহ অনেকের ছবি এঁকেছেন তিনি। শুভজিৎ আরও বলেন, ‘‘ কদমতলায় আমার কাছে অনেকেই এসে পোট্রের্ট তৈরির বরাত দিচ্ছেন। সেইমতো কাজ করছি। হাতখরচও উঠে আসছে।’’ জলপাইগুড়ির মানুষজন খুব আন্তরিক; তাকে সহজেই আপন করে নিয়েছেন বলে জানালেন শুভজিত।

    আরও পড়ুন : আইএসসি পরীক্ষায় দেশের মধ্যে তৃতীয় শ্রীরামপুরের মেহলি

    সকালে নিজের প্র্যাকটিসের পাশাপাশি টাউন ক্লাবের ক্রিকেট কোচিং সেন্টারে খুদেদের প্রশিক্ষণও দিচ্ছেন শুভজিত। তিনি বলেন, ‘‘আমি ওপেনিং ব্যাটার; সঙ্গে অফস্পিন বোলিংও করি। বাংলা দলের হয়ে জাতীয় স্তরে খেলাটাই আমার লক্ষ্য। সিএবি-র ক্লাব ক্রিকেট খেলেছি। এবার অধরা স্বপ্নটাকে পূর্ণ করতে চাই।’’ তবে ক্রিকেটের পাশাপাশি ছবি আঁকাও তার জীবনের অঙ্গ হয়ে উঠেছে বলে জানিয়েছেন শুভজিত।

    Published by:Arpita Roy Chowdhury
    First published:

    Tags: Cricket, Jalpaiguri, Malda

    পরবর্তী খবর