Home /News /north-bengal /
Malda: নতুন কেরিয়ারের দিশা, গৌড় মহাবিদ্যালয়ে হেল্থ কেয়ার-এর ডিগ্রি কোর্স

Malda: নতুন কেরিয়ারের দিশা, গৌড় মহাবিদ্যালয়ে হেল্থ কেয়ার-এর ডিগ্রি কোর্স

নিয়মিত ক্লাসের পাশাপাশি পড়ুয়াদের হাতে কলমে কাজ শেখানোর জন্য মালদহ শহরের বেশ কয়েকটি বেসরকারি নার্সিংহোমে ইন্টার্ন হিসাবে কাজ শেখানো হবে

  • Share this:

    #মালদহ: ব্যাচেলার অফ ভোকেশনাল (হেল্থকেয়ার) নতুন দিশা দেখাচ্ছে পড়ুয়াদের। উত্তরবঙ্গে একমাত্র মালদহের গৌড় মহাবিদ্যালয় চালু হয়েছে এই বিষয়ে পড়াশোনা। সাধারণ ডিগ্রি কোর্সের থেকে সম্পূর্ণ আলাদা এই কোর্স। হেল্থ কেয়ার-এর ওপর ব্যাচেলার অফ ভোকেশনাল সম্পন্ন করার পর পড়ুয়ারা নতুন কাজের দিশা পাবেন। মূলত নার্সিংহোম, বেসরকারি হাসপাতাল, হেলথ কেয়ার ক্লিনিক, এমনকী সরকারি হাসপাতালে সরাসরি কাজের সুযোগ মিলবে। এই কোর্স সম্পন্ন করার পর কেউ মনে করলে কোয়াক ডাক্তার হতে পারেবেন। ২০২১-২২ শিক্ষাবর্ষ থেকে গৌড় মহাবিদ্যালয় চালু হয়েছে এই কোর্স। প্রথম বছর এই বিষয়ে পড়ুয়াদের কাছে তেমন ধারণা না থাকায় ভর্তির সংখ্যা খুব কম। কলেজ কর্তৃপক্ষ মনে করছেন, এই বছর এই বিষয়ে ভর্তির চাহিদা বাড়বে পড়ুয়াদের মধ্যে। উচ্চমাধ্যমিক ফলাফলের পর এই ভর্তি শুরু হবে।

    আরও পড়ুন: সঙ্গীর হাত ধরে পাইনের ছায়ায় আঁকাবাঁকা পথে হারিয়ে যেতে আসুন এই পাহাড়ি গ্রামে

    তবে এখন পর্যন্ত কলেজের পক্ষ থেকে ভর্তির বিজ্ঞপ্তি জারি করা হয়নি। এই কোর্সে ভর্তির জন্য পড়ুয়াদের উচ্চমাধ্যমিকে অন্ততপক্ষে ৪৫ শতাংশ নম্বর পেতে হবে। মেধা তালিকা হিসেবে আপাতত ভর্তি নেওয়া হবে। বিজ্ঞান, কলা, ব্যানিজ্য বিভাগে উচ্চমাধ্যমিক পাশ করার পর ভর্তি হওয়া যাবে কোর্সে। ব্যাচেলার অফ ভোকেশনাল ( হেলথ কেয়ার)-এ প্রথম সেমিস্টারে রয়েছে- জেনারেল ডিউটি অ্যাসিস্ট্যান্ট, দ্বিতীয় সেমিস্টারে রয়েছে- হাসপাতাল ফ্রন্ট ডেক্স কো-অর্ডিনেটর, তৃতীয় সেমিস্টারে রয়েছে- এমার্জেন্সি মেডিক্যাল টেকনিক্যাল, চতুর্থ সেমিস্টারে রয়েছে- ফেলিবটোমি টেকনিক্যাল, পঞ্চম সেমিস্টারে রয়েছে- ডায়েট অ্যাসিস্ট্যান্ট ও ষষ্ঠ সেমিস্টারের রয়েছে ডিউটি ম্যানেজার।

    আরও পড়ুন: নদী চরে নিত্য থামে সারি সারি নৌকা-গাড়ি! রমরমিয়ে চলে ব্যবসা! কারা আসে জানেন?

    প্রথম বর্ষে কমিউনেটিভ ইংরেজি বা কমিউনেটিভ বাংলা বিষয়ের মধ্যে একটি পড়তেই হবে। দ্বিতীয় বর্ষে পরিবেশ বিদ্যা। বাংলা, ইংরেজি ও হিন্দি তিনটি ভাষার যেকোনও একটি ভাষাতে পড়াশোনা করতে পারবেন পড়ুয়ারা। পাস কোর্সের বিষয়গুলির মধ্যে ইতিহাস, সমাজবিদ্যা, এডুকেশন ও রাষ্ট্রবিজ্ঞান-এর মধ্যে যে কোনও দুটি বিষয় নিতে পারবেন। অথবা ফুড নিউট্রেশন, জিওলজি, বোটানি, কেমিস্ট্রি বা ফিজিক্স বিষয়গুলি মধ্যেও বাআছতে পারেন পড়ুয়ারা। প্রতিবছর ভর্তির ফি ১৫,০০০হাজার টাকা। তিন বছরে মোট ভর্তির ফি ৪৫০০০ টাকা। এছাড়াও প্রতিমাসে টিউশান ফি হিসাবে এক হাজার টাকা করে দিতে হবে পড়ুয়াদের।

    নিয়মিত ক্লাসের পাশাপাশি পড়ুয়াদের হাতে কলমে কাজ শেখানোর জন্য মালদহ শহরের বেশ কয়েকটি বেসরকারি নার্সিংহোমে ইন্টার্ন হিসাবে কাজ শেখানো হবে। মোট সিট রয়েছে ৬০টি। সাধারণ-৩৩, এসি- ১৩, এসটি- ৪, ওবিসিএ- ৬, ওবিসি বি- ৪।এই কোর্সের বিশেষ সুবিধা হল, কেউ যদি এক বছর সম্পন্ন করার পর ছেড়ে দেন, তাঁকে ডিপ্লোমা সার্টিফিকেট দেওয়া হবে। দুই বছর কোর্স সম্পন্ন করে ছেড়ে দিলে অ্যাডভান্স ডিপ্লোমা সার্টিফিকেট প্রদান করা হবে। তিন বছরের কোর্স সম্পন্ন করলে মিলবে ডিগ্রি কোর্সের সার্টিফিকেট।

    Harashit Singha

    Published by:Rukmini Mazumder
    First published:

    Tags: Malda

    পরবর্তী খবর