চরম বিপদ সীমা ছাড়িয়ে বেড়েই চলেছে মহানন্দা! মালদহের কয়েকশো পরিবার জলবন্দি

শনিবার বিকেলে মালদহে মহানন্দা নদীর জলস্তর বেড়ে দাঁড়ায় ২১.৯৯ মিটার।

শনিবার বিকেলে মালদহে মহানন্দা নদীর জলস্তর বেড়ে দাঁড়ায় ২১.৯৯ মিটার।

  • Share this:

#মালদহ:- মালদহের চরম বিপদসীমা ছাড়ালো মহানন্দা নদী। এরফলে ইংরেজবাজার ও পুরাতন মালদহ পৌরসভার একাধিক ওয়ার্ড প্লাবিত  হয়েছে। শনিবার দুপুর পর্যন্ত মহানন্দা চরম বিপদ সীমার ২৪ সেন্টিমিটার ওপর দিয়ে বইছে। শনিবার বিকেলে মালদহে মহানন্দা নদীর জলস্তর বেড়ে দাঁড়ায় ২১.৯৯ মিটার।

একনাগাড়ে জল বেড়ে চলায় আতঙ্ক ছড়িয়েছে নদী তীরবর্তী এলাকায়। ইংরেজ বাজারের ৮,৯ ও ১২ নম্বর ওয়ার্ডের বেশকিছু এলাকা মহানন্দার জলে প্লাবিত হয়েছে। উত্তর বালুরচর, দক্ষিণ বালুরচর, গোসানি পাড়া,  জোড়াট্যাংকি, প্রভৃতি এলাকায় ঘরবাড়ি ছেড়ে নিরাপদ আশ্রয়ের খোঁজে বাসিন্দারা। একইভাবে পুরাতন মালদহের ৮ এবং ২০ নম্বর ওয়ার্ডের মির্জাপুর , হালদারপাড়া-সহ নদী তীরবর্তী বেশ কিছু এলাকা মহানন্দার জলে প্লাবিত হয়েছে। নদীর জল ক্রমাগত বাড়তে থাকায় একইসঙ্গে আশঙ্কা ও আতঙ্ক বাড়ছে। স্থানীয় বাসিন্দারা বলছেন ২০১৭ সালের পর ফের এত বেশি জল বাড়ছে মহানন্দায়। শুধু তাই নয়, ইতিমধ্যে দুই পুরসভার তিনশ'র বেশি পরিবার মহানন্দা জলে প্লাবিত হয়ে ঘর ছেড়েছেন।

বর্তমানে নতুন করে ঘর ছাড়ার অপেক্ষায় আরও অসংখ্য পরিবার। নদীর জল আরো বাড়লে পরিস্থিতি ভয়াবহ হওয়ার সম্ভাবনা। এর আগেও জুলাই মাসের শেষের দিকে মালদহে মহানন্দা নদীর জল বাড়ে। সেই সময় অনেক পরিবার ঘর ছাড়তে বাধ্য হয়েছিলেন। পরে অগাস্টের মাঝামাঝি জল কমায় অনেকেই ফের বাড়ি ফেরেন। কিন্তু গত সাতদিন ধরে পরিস্থিতি ক্রমশ খারাপ হচ্ছে। এই অবস্থায় পুজোর মুখে দুশ্চিন্তা বেড়েই চলেছে। এদিকে জলবন্দি এবং প্লাবনে ক্ষতিগ্রস্তদের অভিযোগ, এখনও পর্যন্ত প্রশাসনিকভাবে ত্রাণ সাহায্য মেলেনি অধিকাংশ পরিবারের।

সেবক দেবশর্মা

Published by:Siddhartha Sarkar
First published: