corona virus btn
corona virus btn
Loading

লকডাউন ভাঙার সাজা কান ধরে ওঠবোস, সঙ্গে চলল লাঠিপেটা !

লকডাউন ভাঙার সাজা কান ধরে ওঠবোস, সঙ্গে চলল লাঠিপেটা !

লকডাউনকে উপেক্ষা করে সকাল থেকেই বেড়িয়ে পড়েছিলেন কিছু অত্যুৎসাহী লোকজন।

  • Share this:

#মালদহ: লকডাউনকে উপেক্ষা করে সকাল থেকেই বেড়িয়ে পড়েছিলেন কিছু অত্যুৎসাহী লোকজন। পুলিশের কাছে জবাব দিতে পারেননি কী প্রয়োজনে রাস্তায় বের হয়েছেন। তাই লকডাউন উপেক্ষার সাজা হিসেবে প্রকাশ্য রাস্তায় কান ধরে ওঠবোস। মালদহে এভাবেই সবক শেখালো পুলিশ। সঙ্গে অনেকের উপরি পাওনা লাঠির ঘা। বারবার বললেও লকডাউন পরিস্থিতিতে বিনাকাজে বাইরে বের হওয়ার অভ্যেস ছাড়ছিলেন না অনেকেই। তাই আটকও করা হয়েছে ১২ জনকে। পুলিশের কড়া শাসনে শেষপর্যন্ত বেলা বাড়তেই অবাঞ্চিত লোকজনের আনাগোনা কমে শহরের রাস্তায়।

আগামী ১৪ এপ্রিল পর্যন্ত দেশ জুড়ে লকডাউনের কথা মঙ্গলবার রাতেই ঘোষনা করেছেন প্রধানমন্ত্রী। এরপরেও অনেকে তোয়াক্কা করছিলেন না লকডাউনের। দৈনন্দিন বাজার কিংবা ওষুধের দোকানগুলির সামনে লোকজনকে ফাঁকা হয়ে দাঁড়ানোর কথা বলার পাশাপাশি যারা কথা শুনছিলেন না তাঁদের জন্যই শাস্তিমূলক ব্যবস্থা নিতে হয়েছে বলে এদিন জানান জেলা পুলিশের কর্তারা।

বুধবার সকালে মালদহের ডেপুটি পুলিশ সুপার প্রশান্ত দেবনাথ বাহিনী নিয়ে অভিযানে বের হন। মালদা শহরের মহেশমাটি, নেতাজী মার্কেট, কৃষ্ণজীবন সান্যাল রোড প্রভৃতি এলাকায় নিষেধ উপেক্ষা করা লোকজনকে লাইন দিয়ে দাঁড় করায় পুলিশ। এরপর চলে ১০০ বার করে ওঠবোস শাস্তি। পুলিশ কর্তার সামনে কান ধরে ওঠবোস করেন বেশ কয়েকজন নিষেধ ভঙ্গকারী। এই ঘটনায় হইচই পড়ে শহরে। পুলিশের কড়া পদক্ষেপের খবর ছড়াতেই অনেকেই ঘরমুখো হন। পুলিশ জানিয়েছে, লকডাউন পরিস্থিতিতে কাউকেই অকারনে ঘোরাফেরা করতে দেওয়া হবে না। আগামী দিনেও চলবে একইরকম অভিযান।

First published: March 25, 2020, 10:29 PM IST
পুরো খবর পড়ুন
अगली ख़बर