Home /News /north-bengal /
Malda : পেট্রোপণ্যের মূল্যবৃদ্ধির প্রতিবাদে বাঁধা হল গান! পথে নামলেন গম্ভীরা শিল্পীরা

Malda : পেট্রোপণ্যের মূল্যবৃদ্ধির প্রতিবাদে বাঁধা হল গান! পথে নামলেন গম্ভীরা শিল্পীরা

পেট্রোপণ্যের মূল্যবৃদ্ধির প্রতিবাদে বাঁধা হল গান! পথে নামলেন গম্ভীরা শিল্পীরা

পেট্রোপণ্যের মূল্যবৃদ্ধির প্রতিবাদে বাঁধা হল গান! পথে নামলেন গম্ভীরা শিল্পীরা

Malda : এবার পেট্রোপণ্যের মূল্যবৃদ্ধি ও বেকার সমস্যাকে একত্রিত করে গান বাঁধল কুতুবপুর গম্ভীরা দল। মূল্যবৃদ্ধির ফলে সাধারণ মানুষের সমস্যার কথা তুলে ধরে গান বাধা হয়েছে।

  • Share this:

    #মালদহ: এবার পেট্রোপণ্যের মূল্যবৃদ্ধি ও বেকার সমস্যাকে একত্রিত করে গান বাঁধল কুতুবপুর গম্ভীরা দল। মূল্যবৃদ্ধির ফলে সাধারণ মানুষের সমস্যার কথা তুলে ধরে গান বাধা হয়েছে। পাশাপাশি চাকরি না মেলায় বেকারদের যে সমস্যা তা নিয়েও বাধা হয়েছে গান। কুতুবপুর গম্ভীরা দল এই গানের মাধ্যমে সাধারণের সমস্যা তুলে ধরে সরকারের বিরুদ্ধে প্রতিবাদে নামবেন।

    ইতিমধ্যে নতুন এই গানে তালিম দেওয়া শুরু করেছেন। নতুন গান বেঁধে চলছে নিয়মিত মহড়া। গম্ভীরা মালদহের প্রধান লোকসংস্কৃতি। প্রাচীন কাল থেকেই গম্ভীরা গানের মধ্যে দিয়ে সমাজ সচেতনতামূলক বিষয়গুলি তুলে ধরা হয়। গম্ভীরা গান পরিবেশন হয় মহাদেবকে কেন্দ্র করে। গম্ভীরা গানে শিবকে নানা সম্বোধনে ডাকা হয়। নানার অর্থ পরিবারের প্রধান। অর্থাৎ যেহেতু শিবকে দেবতাদের প্রধান হিসাবে ধরা হয় সনাতন ধর্মে। তাই গম্ভীরা গান নানা সম্বোধনে ডাকা হয় শিবকে।

    শিবের কাছে তুলে ধরা হয় সমাজের নিপীড়িতদের সমস্যার কথা। সাধারণ মানুষের দুঃখ-দুর্দশা গানের মাধ্যমে পরিবেশন করা হয় নানার কাছে। সমস্যার কথা শুনে গানের মাধ্যমে নানা সমস্যা সমাধানের উপায় বলেন। যুগ যুগ ধরে এই ভাবেই নিজের স্বমহিমায় অনুষ্ঠিত হয়ে আসছে গম্ভীরা গান। মালদহের ইংরেজবাজার শহরের কুতুবপুর গম্ভীরা দল স্বাধীনতার আগে থেকেই তাদের পথ চলা শুরু করে।

    আরও পড়ুন- শ্বশুরের টাকা তুলতে গেলেন জামাই! কার্ড আটকে গেল এটিএম মেশিনে, তারপর...

    ১৯৪১ সালে দলটি প্রতিষ্ঠা করেন প্রয়াত গম্ভীরা শিল্পী গোবিন্দলাল শেঠ, ও গোপীনাথ শেঠ। স্বাধীনতা সংগ্রামী বিষয়ের উপরে বহু গান তাঁরা রচিত করেছেন। সেই সময় কালে গান গাইতে গিয়ে অনেক শিল্পী ব্রিটিশদের হাতে অত্যাচারিত হয়েছেন। আজকে সেই দল বর্তমান ভারতবর্ষের সমাজের বাস্তব চিত্রকে তাদের প্রতিবাদী গান হিসেবে জনগণের কাছে তুলে ধরছেন।

    পেট্রোল ডিজেলের দাম বৃদ্ধির সঙ্গে সঙ্গে নিত্যপ্রয়োজনীয় জিনিসের দাম বৃদ্ধি পাচ্ছে। চরম সমস্যায় সাধারণ মানুষ। অন্যদিকে দিন দিন বাড়ছে বেকার সমস্যা। কাজ না পেয়ে যুবক সমাজ নানা সমস্যায় ভুগছেন। এই সমস্ত সমস্যার কথা তুলে ধরে গান বাঁধা হয়েছে। গানের মাধ্যমে তুলে ধরা হবে সমাজের নানান দুর্দশার কথা।

    Published by:Swaralipi Dasgupta
    First published:

    Tags: Malda

    পরবর্তী খবর