Home /News /north-bengal /
Malda Bus hijacking: দিনেদুপুরে মালদহের ব্যস্ত এলাকা থেকে বাস হাইজ্যাকের চেষ্টা যুবকের

Malda Bus hijacking: দিনেদুপুরে মালদহের ব্যস্ত এলাকা থেকে বাস হাইজ্যাকের চেষ্টা যুবকের

  • Share this:

    #মালদহ: পেট্রল পাম্পের পাশে পার্কিং করা ছিল একটি বেসরকারি বাস। দিন দুপুরে জনবহুল এলাকা থেকে বাসটি হাইজ্যাক করে নিয়ে পালানোর চেষ্টা এক যুবকের (Malda Bus hijacking)। বাসের ভিতরেই ঘুমিয়েছিলেন চালক ও খালাসি। হঠাৎ বাস চলতে থাকায় ঘুম ভেঙে যায় চালকের। বাস থামাতে বললে প্রাণে মারার হুমকি দেয় অভিযুক্ত যুবক। তবে ট্রাফিক সিগন্যালে পড়ে যাওয়াতেই রক্ষে। সিগন্যালে বাসটি দাঁড়াতেই চিৎকার শুরু করেন চালক (Malda Bus hijacking)। তারপরই কর্তব্যরত ট্রাফিক কর্তা হাতেনাতে ধড়ে ফেলে অভিযুক্তকে। বৃহস্পতিবার দুপুরে এমন বাস হাইজ্যাক চেষ্টার ঘটনাকে কেন্দ্র করে তীব্র চাঞ্চল্য ছড়ায় মালদহ শহরের রবীন্দ্র ভবন সংলগ্ন এলাকায়। অভিযুক্ত যুবককে কর্তব্যরত ট্রাফিক পুলিশ কর্তারা আটক করে ইংরেজবাজার থানার পুলিশের হাতে তুলে দেয়। দিন-দুপুরে একটি বাস হাইজ্যাকের চেষ্টার ঘটনায় হতভম্ব এলাকার বাসিন্দারা (Malda Bus hijacking)।

    আরও পড়ুন: ৬ বছরের অপেক্ষার পরে প্রেমের জয়! কেন বিয়ে করে খবরের শিরোনামে এই যুবক

    পুলিশ সূত্রে জানা গিয়েছে, অভিযুক্ত যুবকের নাম সুমন সাহা (২৮)। বাড়ি কোচবিহার জেলার দিনহাটা এলাকায়। পুলিশ অভিযুক্তকে আটক করে ঘটনার তদন্ত শুরু করেছে। পুলিশ ও স্থানীয় সূত্রে জানা গিয়েছে, বেসরকারি বাসটির মালিকের বাড়ি কলকাতার নিউটাউনে। বাসটি মালদহ রুটে নিয়মিত চলাচল করে। মালদহ- কলকাতা রুটে রাতে চলাচল করে বাসটি। বৃহস্পতিবার সকালে কলকাতা থেকে মালদহ পৌঁছায় বাসটি। প্রতিদিনের মতো এদিনও যাত্রীদের নামিয়ে মালদহ শহরে জাতীয় সড়ক সংলগ্ন গৌড় ভবন এলাকায় একটি পেট্রল পাম্পের পার্কিংয়ে বাসটি রেখেছিলেন চালক। বাসের মধ্যে ঘুমিয়েছিলেন চালক ও খালাসী। দুপুর ১ টা নাগাদ হঠাৎ বাসটি চলতে শুরু করে। বাস চলতে শুরু করলে ঘুম ভেঙে যায় চালকের।

    আরও পড়ুন: জোরালো বিস্ফোরণের শব্দে কেঁপে উঠল সেবক করোনেশন ব্রিজ! ব্যাপক চাঞ্চল্য...

    বাসটির চালক আসনের দরজা লক করা না থাকায় অভিযুক্ত যুবক বাসটি হাইজ্যাক করার চেষ্টা করে। জাতীয় সড়ক ধরে বাসকে নিয়ে কলকাতার দিকে রওনা দেয়। জাতীয় সড়কের উপর দিয়ে বাসটি চলতে থাকায় ঘুম ভেঙে বাসের চালক গাড়ি দাঁড় করাতে বলেন। কিন্তু অভিযুক্ত যুবক চালককে প্রাণে মারার হুমকি দেয়। পেট্রল পাম্প থেকে প্রায় ৫০০ মিটার দূরে গৌড় ভবন মোড়। চার মাথার মোড়ে ট্রাফিক সিগনালে আটকে যায় বাসটি। সেই সময় চিৎকার শুরু করেন বাসের চালক। চেঁচামেচি শুনে কর্তব্যরত ট্রাফিক পুলিশ ছুটে আসেন বাসের কাছে। হাতেনাতে ধরে ফেলেন অভিযুক্ত যুবককে। স্থানীয়রা বিষয়টি জানতে পেরে অভিযুক্ত যুবককে মারধর করার চেষ্টা করেন। তবে ট্রাফিক পুলিশের তৎপরতায় সেখান থেকে তাকে উদ্ধার করে থানায় নিয়ে যাওয়া হয়।

    Harashit Singha

    Published by:Rukmini Mazumder
    First published:

    Tags: Malda

    পরবর্তী খবর