corona virus btn
corona virus btn
Loading

করোনা মোকাবিলায় এবার পাড়ায় পাড়ায় লকডাউন!

করোনা মোকাবিলায় এবার পাড়ায় পাড়ায় লকডাউন!

এবার পাড়ায় পাড়ায়, গ্রামে গ্রামে লকডাউন! পাড়ার এবং গ্রামের মানুষেরা ঐক্যবদ্ধ। করোনা প্রতিরোধে জোটবদ্ধ ৷

  • Share this:

#শিলিগুড়ি: করোনা মোকাবিলায় লকডাউন। দেশজুড়ে চলছে লকডাউন। অসুবিধে হলেও এছাড়া বিকল্প উপায় নেই। বলেছেন স্বয়ং প্রধানমন্ত্রী। কিন্তু এখোনও বহু জায়গায় লকডাউনের তোয়াক্কা না করে রাস্তায় নামছে আমজনতা। বিশেষ করে বাজারে। হুঁশ নেয় সাধারণ মানুষের একাংশের। আর কবে বুঝবে ওরা? প্রশ্ন ঘর বন্দিদের।

রবিবার রাতে উত্তরবঙ্গে প্রথম আক্রান্তের মৃত্যুর পর একটা বড় অংশ অবশ্য আরও সতর্ক ও সজাগ। এবার পাড়ায় পাড়ায়, গ্রামে গ্রামে লকডাউন! পাড়ার এবং গ্রামের মানুষেরা ঐক্যবদ্ধ। করোনা প্রতিরোধে জোটবদ্ধ ৷ বাঁশের বেরিকেড বেধে লকডাউন৷ হ্যাঁ, এক পাড়ার সঙ্গে অন্য পাড়ার যোগাযোগ কাট আপ৷ Covid 19 এর প্রকোপ বাড়ছে। এবারে উত্তরবঙ্গে ছড়িয়েছে জাল। তাই করোনা নিয়ে সতর্ক।

শিলিগুড়ির শহর এবং গ্রামের একাধিক জায়গায় লকডাউনের ডাক সাধারণ মানুষের। শিলিগুড়ির ১ এবং ৪৫ নম্বর ওয়ার্ডের একাংশে অন্য ওয়ার্ডের বাসিন্দাদের প্রবেশে এদিন থেকে ফুলস্টপ! কেন? স্থানীয় যুবকেরা জানান, শিলিগুড়িতেও করোনা আক্রান্তের মৃত্যু হয়েছে। এবারে কিছুটা সতর্ক হতেই হবে।

পাড়াতেই মুদিখানার দোকান রয়েছে। ওষুধের দোকান থেকে শাক সবজি। নিত্য প্রয়োজনীয় জিনিসপত্র সামগ্রী সবই মিলছে। তাহলে আর বাইরে বের হতে হবে কেন? অহেতুক বাইরের লোককে স্বাগত জানানো হবে না। কোনওভাবেই ঢুকতে দেওয়া হবে না।

শিলিগুড়ির মিলন মোড়েও স্থানীয় বাসিন্দারা একই উদ্যোগ নিয়েছে। শহরের অন্য প্রান্তের অংশের সঙ্গে মিলন মোড়ের যোগাযোগ বিচ্ছিন্ন। নোটিশ উপেক্ষা করা চলবে না। এজন্য বিভিন্ন মোড়ে নিরাপদ দূরত্বে দাঁড়িয়ে পাহাড়ায় স্থানীয়রাই। তাদের দাবি, কোনওভাবেই বহিরাগতদের প্রবেশ নয়। আতঙ্ক না হলেও সতর্ক থাকার বার্তা। যে যেখানে আছেন, সেখানেই নিজেদের বন্দি রাখুন। এই বার্তাকে সামনে রেখে একই ছবি শিলিগুড়ি মহকুমার ফাঁসিদেওয়া ব্লকের বিধাননগরেও। কয়েকটি গ্রামে ঐক্যবদ্ধ গ্রামবাসীরা। বাঁশের ব্যরিকেড দিয়ে দাঁড়িয়ে স্থানীয়রা। মারণ করোনার বিরুদ্ধে এই লড়াই জারি থাকবে।

First published: March 30, 2020, 11:26 PM IST
পুরো খবর পড়ুন
अगली ख़बर