Home /News /north-bengal /

৫ বছরের শিশুকে বেধড়ক মারধরের অভিযোগ আইনজীবীর বিরুদ্ধে !

৫ বছরের শিশুকে বেধড়ক মারধরের অভিযোগ আইনজীবীর বিরুদ্ধে !

বাড়ির কিশোরি পরিচারিকাকে বেধড়ক মারধরের অভিযোগ উঠল রায়গঞ্জ জেলা আদালতের আইনজীবী দেবাশিস কুমার বোসের বিরুদ্ধে।

  • Pradesh18
  • Last Updated :
  • Share this:

    #রায়গঞ্জ: বাড়ির ৫ বছরের শিশু পরিচারিকাকে বেধড়ক মারধরের অভিযোগ উঠল রায়গঞ্জ জেলা আদালতের আইনজীবী দেবাশিস কুমার বোসের বিরুদ্ধে। এই ঘটনায় শুক্রবার বিকেলে ব্যাপক উত্তেজনা ছড়িয়ে পড়ে রায়গঞ্জের খরমুজাঘাট এলাকায়।

    ঘটনার খবর জানাজানি হতেই স্থানীয় বাসিন্দারা অভিযুক্ত ওই আইনজীবীকে মারধর করে বাড়িতে ব্যাপক ভাঙচুর চালায় বলে অভিযোগ। খবর পেয়ে রায়গঞ্জ থানার পুলিশ উত্তেজিত জনতার হাত থেকে কোনওমতে পরিবারের সদস্যদের উদ্ধার করে রায়গঞ্জ থানায় নিয়ে আসে।

    স্থানীয় বাসিন্দা সোমা দাস বলেন, মাঝে মধ্যেই কৃষ্ণা বর্মন নামে ওই শিশুটিকে মারধর করে ওই আইনজীবী ও পরিবারের সদস্যরা। এদিন বিকেলে বাড়ির বাগানে শিশুটিকে লাঠি দিয়ে মারধরের পাশাপাশি কান ধরে ওঠবোস করানো হচ্ছিল। শিশুর কান্না শুনে এলাকাবাসীরা ছুটে আসে। শিশুটি তখন মাটিতে লুটিয়ে পড়েছে।

    এরপরেই স্থানীয় বাসিন্দারা এই ঘটনার প্রতিবাদে সোচ্চার হয়ে ওঠেন। গোবিন্দ ঘোষ নামে এক এলাকাবাসী বলেন, ‘‘গাছের ডাল দিয়ে মারায় শিশুটির দুটি পায়ে রক্ত জমে যায়। শিশুটি বার বার হাত জোড় করলেও মারধর  থামেনি। আইনজীবীর দৃষ্টান্তমূলক শাস্তির দাবি জানাচ্ছি আমরা।’’ এলাকাবাসীদের আরও দাবি, এর আগে নিজের স্ত্রীকে খুন করার অভিযোগ উঠেছিল দেবাশিস কুমারের বিরুদ্ধে। এই ঘটনায় আদালতের নির্দেশে জেলও খেটেছিলেন তিনি। জেল থেকে বেরিয়ে আসার পরেও তার মানসিকতার কোনও পরিবর্তন হয়নি।

    ছোট্ট শিশুকে যে নির্মমভাবে মারধর করা হচ্ছে তারপরে এই পরিবারকে এলাকায় কোনভাবেই থাকতে দেওয়া হবে না। শিশু পরিচারিকাকে মারধরের ঘটনায় উত্তেজিত স্থানীয় বাসিন্দারা অভিযুক্ত ওই আইনজীবীকে বাড়ির মধ্যেই গণপিটুনি দিতে শুরু করে। ভাঙচুর চালানো হয় বাড়িতেও। খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে ছুটে আসে রায়গঞ্জ থানার আই সি গৌতম চক্রবর্তীর নেতৃত্বে বিশাল পুলিশ বাহিনী। অভিযুক্তদের গ্রেফতারের দাবিতে পুলিশের সামনে বিক্ষোভ দেখাতে শুরু করেন স্থানীয় বাসিন্দারা।

    উত্তেজিত এলাকাবাসীদের হাত থেকে ওই আইনজীবী ও তার পরিবারের সদস্যদের বের করে নিয়ে যেতে রীতিমতো হিমশিম খেতে হয় পুলিশের। যদিও অভিযুক্ত আইনজীবী দেবাশিস কুমার বোস বলেন, ‘‘এলাকাবাসীদের আনা অভিযোগ ভিত্তিহীন। পড়াশোনা না করায় শিশুটিকে সামান্য শাস্তি দেওয়া হয়েছিল। আমাকে এলাকা ছাড়া করার জন্য এই ভিত্তিহীন অভিযোগ আনা হয়েছে।’’ রায়গঞ্জ থানার আই সি গৌতম চক্রবর্তী বলেন, ‘‘ এলাকাবাসীদের অভিযোগ, দেবাশিস কুমার বোস নামে ওই আইনজীবী শিশুটির উপর দীর্ঘদিন ধরেই শারীরিক নির্যাতন চালিয়ে আসছে। আজকে স্থানীয় বাসিন্দারা এর প্রতিবাদেই গর্জে উঠেছেন। নিদিষ্ট অভিযোগ পেলে আইনানুক- ব্যবস্থা গ্রহন করা হবে।

    রিপোর্টার- প্রসূন মৈত্র

    First published:

    Tags: Child Girl Torture, Lawyer, Raiganj, রায়গঞ্জ

    পরবর্তী খবর