Landslide In NH 10: বাংলা-সিকিম লাইফ লাইন ১০ নং জাতীয় সড়কে বড় ধস, আহত ২, যানজট পাহাড়ে

ধসের জেরে বিদ্ধস্ত ১০ নং জাতীয় সড়ক। সেবক থেকে রংপো সীমান্ত পর্যন্ত ৮ জায়গায় বড় ধসের জেরে কার্যত উধাও জাতীয় সড়ক।

ধসের জেরে বিদ্ধস্ত ১০ নং জাতীয় সড়ক। সেবক থেকে রংপো সীমান্ত পর্যন্ত ৮ জায়গায় বড় ধসের জেরে কার্যত উধাও জাতীয় সড়ক।

  • Share this:

#সেবক:

রাতভর নাগাড়ে বৃষ্টি পাহাড় ও সমতলে। টানা বৃষ্টির জেরে নতুন করে ধস নামলো পাহাড়ি রাস্তায়। বাংলা ও সিকিমের লাইফ লাইন ১০ নং জাতীয় সড়কে বড় ধস নামে। সেবক করোনেশন সেতু এবং কালীঝোরার মাঝে হাতিশুঁড় এলাকায় ধস। এর জেরে সকাল থেকেই অবরুদ্ধ হয়ে পড়েছে বাংলা ও সিকিমের সড়ক যোগাযোগ। ১০ নং জাতীয় সড়কের দু'ধারে সারি সারি গাড়ির লাইন। ইতিমধ্যেই ধস সরানোর কাজ শুরু করেছে পূর্ত দপ্তরের ন্যাশনাল হাইওয়ে ডিভিশনের কর্মীরা। রয়েছেন পদস্থ ইঞ্জিনিয়ররাও। পাহাড় থেকে নেমে আসা ধসে ২ জন আহত হয়েছেন। একটি অটোতে ছিলেন। আহতদের চিকিৎসা চলছে। পুলিশ ও স্থানীয়রাই তাঁদের উদ্ধার করে।

একেই চলতি বর্ষা মরসুমে ধসের জেরে বিদ্ধস্ত ১০ নং জাতীয় সড়ক। সেবক থেকে রংপো সীমান্ত পর্যন্ত ৮ জায়গায় বড় ধসের জেরে কার্যত উধাও জাতীয় সড়ক। বড় বড় গর্ত আর খানাখন্দে ভরা জাতীয় সড়ক। আবার কোথাও রাস্তার ওপর দিয়ে বইছে পাহাড়ী ঝর্ণার জল। জাতীয় সড়ক দিয়ে কার্যত ঝুঁকি নিয়ে গাড়ি চলাচল করছে। নাভিশ্বাস উঠছে চালকদের। আজ আবার নতুন করে ধস নামলো হাতিশুঁড়ে। দীর্ঘদিন বাদে এই এলাকায় ধস নামলো। পূর্ত দপ্তরের কর্মীরা চেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছেন দ্রুত যান চলাচলের স্বাভাবিক অবস্থায় ফিরিয়ে আনতে। আপাতত গ্যাংটক ও কালিম্পং থেকে শিলিগুড়িমুখী গাড়ি অনেকটা ঘুরপথে পেশক, লামাহাটা, ঘুম, জোরবাংলো হয়ে নামছে। ঠিক উলটোভাবে অতি প্রয়োজনে সিকিম ও কালিম্পংমুখী যানবাহন ঘুরপথে উঠছে।

একের পর এক নতুন জায়গায় ধসের জেরে দূর্ভোগ চরমে উঠেছে নিত্য যাত্রী থেকে পর্যটকদের। করুণ দশা চিকিৎসা করাতে পাহাড় থেকে শিলিগুড়িতে আসা বাসিন্দাদের। একেই ঘুরপথ, সঙ্গে সময়ও লাগছে অনেক। স্থানীয় বাসিন্দা থেকে গাড়ি চালক ও মালিকদের সংগঠন স্থায়ী সমাধান দাবী করে আসছে। একই দাবী পর্যটন সংস্থার কর্তাদেরও। প্রাকৃতিক বিপর্যয় মোকাবিলায় উপযুক্ত ব্যবস্থা গ্রহণের দাবী জানিয়েছে সবপক্ষই।

Published by:Suman Majumder
First published: