চোপড়ায় জমি নিয়ে পারিবারিক দ্বন্দ্ব, পরিণাম সংঘর্ষ, আহত বেশ কয়েকজন, ঘটনাস্থলে পুলিশ

জামাইয়ের সঙ্গে জমি নিয়ে জোর কোন্দল শ্বশুরবাড়ির৷

জামাইয়ের সঙ্গে জমি নিয়ে জোর কোন্দল শ্বশুরবাড়ির৷

  • Share this:

#চোপড়া:  জমি নিয়ে দুই পক্ষের সংঘর্ষ। আহত দুই পক্ষের ১১ জন।ঘটনাটি উত্তর দিনাজপুর জেলার চোপড়া থানার ঘিরনিগাঁও গ্রাম পঞ্চায়েতের দামোদরখুড়ি গ্রামে। আহতদের চোপড়া দলুয়া স্বাস্থ্যকেন্দ্রে আনা হলে চার জনের অবস্থা আশঙ্কাজনক থাকায় তাদের উত্তরবঙ্গ মেডিকেল কলেজে স্থানান্তর করা হয়েছে। খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে পৌঁছয় পুলিশ। তারা ঘটনার তদন্ত শুরু করেছে।

জানা গেছে দামোদরখুড়ি গ্রামে ২৫ শতক জমির অধিকার নিয়ে দীর্ঘদিনের পারিবারিক দ্বন্দ্ব। সোমবার সকালের এই ঘটনায় ব্যাপক উত্তেজনা ছড়িয়ে পড়ে এলাকায়। বেশ কিছুদিন ধরেই জামাই নজিবুল হকের সঙ্গে তার  শ্বশুর বাড়ির পরিবারের সদস্যদের সঙ্গে ২৫ শতক জমির অধিকার নিয়ে বিবাদ চলছিল। নজিবুল হকের দাবি তিনি তার নিজের শ্বশুরের প্রাপ্য জমি আইন সঙ্গত ভাবে কিনে নিয়েছেন। কিন্তু তার দাবিকে নস্যাৎ করে শ্বশুর সফিরুদ্দীন জানান জামাই এর বৈধ দলিল নয়। অবৈধভাবে দলিল তৈরি করে জমি  হাতিয়ে নেবার চেষ্টা করছে সে। জামাই  ওয়ারিস হিসেবে ২ শতক জমির অংশীদার। কিন্তু তিনি জাল দলিল তৈরী করে সমস্ত জমি হাতিয়ে নিতে চাইছে।

রবিবার এই বিষয়ে নিয়ে বৈঠকে বসলে আচমকাই নজিবুল হকের লোকজন বচসার সৃষ্টি শুরু করে । সেখান থেকেই সংঘর্ষ বাধে। দুই পক্ষের মোট ১১ জন জখম হয়। চার জনের অবস্থা আশঙ্কাজনক হওয়ায় তাদের উত্তরবঙ্গ  মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে স্থানান্তর করেছেন এবং বাকি চার জনকে ইসলামপুর মহকুমা হাসপাতালে স্থানান্তর করেন। অন্যদিকে নজিবুল হক জানান তার পরিবারের তিনজন জখম হয়েছে। তারা দলুয়া স্বাস্থ্যকেন্দ্রে চিকিৎসাধীন। আহত সফিরুদ্দিনের অভিযোগ জাল দলিল দাখিল করে জামাই এই জমি হাতিয়ে নেবার চেষ্টা করছিল। বাধা দিতে দলবল নিয়ে এসে তাদের উপর হামলা করেছে। অন্যদিকে আহত নজিবুলের দাবি তার কাছে বৈধ দলিল আছে।দলিল জাল হলে সরকারি দফতরে গিয়ে প্রমান করুক। সেই দাবি তারা মানছেন না। জোর করে তার জমি শ্বশুরকে বিক্রি করে দিচ্ছেন। এরই প্রতিবাদ করতে গিয়ে সংঘর্ষ বাধে তাতে শ্বশুরবাড়ির আটজন এবং তাদের তিনজন আহত হয়েছেন।

 Uttam Paul

Published by:Debalina Datta
First published: