উত্তরবঙ্গ

corona virus btn
corona virus btn
Loading

খোদ কলকাতা পুলিশের ওপর চাকরি দেওয়ার নামে প্রতারণা ও খুনের অভিযোগ

খোদ কলকাতা পুলিশের ওপর চাকরি দেওয়ার নামে প্রতারণা ও খুনের অভিযোগ
Representative Image

চাকরি দেওয়ার নামে প্রতারণা ও খুনের অভিযোগ এবার কলকাতা পুলিশের বিরুদ্ধেই ৷ অভিযোগ এনেছেন মৃতের পরিবার ৷

  • Share this:

#কলকাতা: আলিপুর বডিগার্ড লাইন্সের ভিতর থেকে উদ্ধার যুবকের মৃতদেহ ৷ এই মৃত্যুকে কেন্দ্র করেই উঠল বড়সড় অভিযোগ ৷ চাকরি দেওয়ার নামে প্রতারণা ও খুনের অভিযোগ এবার কলকাতা পুলিশের বিরুদ্ধেই ৷ অভিযোগ এনেছেন মৃতের পরিবার ৷ মৃত যুবকের নাম প্রসেনজিৎ সিনহা ৷ মালদহের পাখুড়িয়া থানা এলাকার বাসিন্দা ওই যুবকের দেহ শনিবার সকালে বডিগার্ড লাইন্সের ভিতরের একটি জলাশয়ে ভাসতে দেখা যায়।

মৃত প্রসেনজিতের পরিবার এই ঘটনায় খোদ পুলিশের বিরুদ্ধেই ওয়াটগঞ্জ থানায় খুনের অভিযোগ দায়ের করছে ৷ পরিবারের অভিযোগ, চাকরির টোপ দিয়ে প্রসেনজিতের কাছ থেকে পুলিশেরই এক কর্মী টাকা নিয়েছিলেন । ৯ অগাস্ট সেই টাকা ফেরত নিতেই কলকাতায় এসেছিলেন প্রসেনজিৎ, দাবি পরিবারের।

মৃতদেহটি পোস্টমর্টেমে পাঠিয়েছে পুলিশ ৷ পুলিশের প্রাথমিক অনুমান, জলে ডুবে মৃত্যু হয়েছে ওই যুবকের ৷ কিন্তু সূত্রের খবর যুবকের মাথায় আঘাতের চিহ্ন রয়েছে ৷ মৃতের বাবা উত্তম কুমার সিংহ পুলিশে কনস্টেবলের চাকরি করেন ৷ বাবার পুলিশে কাজ করার সুবাদে কলকাতা পুলিশ এর বডিগার্ড লাইনে থাকার জন্য ওঠেন ওই যুবক ৷

ঘটনার তদন্তে করছে ওয়াটগুঞ্জ থানার পুলিশ ৷

পরিবারের লোকের অভিযোগ, প্রসেনজিতের কাছ থেকে তিন দফায় তিন লক্ষ টাকা নেয় দুই পুলিশ কর্মী ৷ সেই টাকা ফেরত চাইতে আসা প্রসেনজিতের নিথর দেহ শনিবার আলিপুর বডিলাইন্সের ভিতর থেকে মেলায়, পুলিশের দিকেই অভিযোগের আঙুল তুলেছে পরিবার ৷ কলকাতা পুলিশের রিসার্ভ ফোর্সের কর্মী, মৃতের বাবা উত্তম কর সিনহা ওয়াটগঞ্জ থানায় দুই কর্মীর নামে অভিযোগ দায়ের করেছেন ৷

First published: August 19, 2019, 2:08 PM IST
পুরো খবর পড়ুন
अगली ख़बर