Jalpaiguri: ৬ জন আদিবাসী মহিলাকে বিয়ে! চরম প্রতারিত হয়ে পুলিশের দ্বারসস্থ অভিযুক্তের স্ত্রী-রা

Jalpaiguri: ১ জন নয়। ২ জন নয়। ৬ জন আদিবাসী মহিলাকে বিয়ে করে বিভিন্ন জায়গায় রেখে তাঁদের অর্থে দিব্যি ঘুরে ফিরে থাকছিলেন এক ব্যক্তি।

Jalpaiguri: ১ জন নয়। ২ জন নয়। ৬ জন আদিবাসী মহিলাকে বিয়ে করে বিভিন্ন জায়গায় রেখে তাঁদের অর্থে দিব্যি ঘুরে ফিরে থাকছিলেন এক ব্যক্তি।

  • Share this:

    #জলপাইগুড়ি: ১ জন নয়। ২ জন নয়। ৬ জন আদিবাসী মহিলাকে বিয়ে করে বিভিন্ন জায়গায় রেখে তাঁদের অর্থে দিব্যি ঘুরে ফিরে থাকছিলেন এক ব্যক্তি। ভেবেছিলেন কেউ জানতেই পারবেন না। কিন্তু শেষ রক্ষা হলো না, অবশেষে ওই মহিলারা জানতে পারেন ওই ব্যাক্তি এক প্রতারক এবং তাদের ঠকিয়ে দিব্যি ঘুরে বেড়াচ্ছেন রাহুল কুমার সিং নামে ওই ব্যক্তি। তিনি বিহার রাজ্যের বৈশালী জেলার বাসিন্দা।

    রাহুল সিং এর প্রতারণার কথা জানতে পেরেই মাল ব্লকের নেওরানদী চাবাগান থেকে তাকে ধরে উত্তমমধ্যম দেন মহিলারা। এর পরেই মহিলারা ওই ব্যক্তিকে মাল থানার পুলিশের হাতে তুলে দেন এবং লিখিত অভিযোগ জানান। পুলিশ ওই ব্যাক্তিকে প্রতারণার অভিযোগে গ্রেফতার করেছে।

    রবিবার রাতে নেওরানদী চাবাগানের মহিলা প্রেমা সিং মাল থানায় লিখিত অভিযোগ করে জানান যে, তাঁর সঙ্গে রাহুল কুমার সিংয়ের দুই বছর আগে বিয়ে হয়। প্রেমা সিং বলছেন, "রবিবার দুপুর দেড়টা নাগাদ আলিপুরদুয়ার জেলার পাটকাপাড়া ও ধওলাঝোড়া চাবাগানের বাসিন্দা রজন্তি মিঞ্জ ও লক্ষী মাহালী নামের দুই মহিলা আমার বাড়িতে এসে জানায়, আমার স্বামী রাহুল কুমার সিং তাদের বিবাহ করেছে। তার আরও একজন বিবাহিত স্ত্রী আছে।" শুধু তাই নয়। অভিযুক্ত রাহুল কুমার সিং বহু আদিবাসী মহিলাকে চাকরি দেওয়ার নাম করে অর্থ নিয়েছেন বলেও অভিযোগ। অবিলম্বে অভিযুক্তের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেওয়া হোক এমন দাবি জানিয়ছেন মহিলা।

    এখানেই শেষ নয়, রবিবার রাতে মাল থানার সামনে দাঁড়িয়ে দুই মহিলা জানান অভিযুক্ত রাহুল কুমার সিং তাঁদের বিয়ে করে বিভিন্ন সময়ে আর্থিক ভাবে প্রতারণা করেছে। তাঁরা আরও জানান যে, অভিযুক্ত রাহুল ৬ জন আদিবাসী মহিলাকে বিয়ে করে আর্থিক ভাবে প্রতারিত করেছে। ব্যক্তিকে প্রতারণা করার অভিযোগে গ্রেফতার করা হয়েছে। তাঁর বিরুদ্ধে মামলা করা হয়েছে।

    রকি চৌধুরী

    Published by:Swaralipi Dasgupta
    First published: