corona virus btn
corona virus btn
Loading

মালদহে টাঙন নদীতে ভাঙ্গন রোধের কাজ শুরু, তৎপর প্রশাসন

মালদহে টাঙন নদীতে ভাঙ্গন রোধের কাজ শুরু, তৎপর প্রশাসন

নিউজ ১৮ বাংলায় খবর দেখানোর পর আপাতত জরুরি ভিত্তিতে প্রায় ২৬ লক্ষ টাকা খরচে অস্থায়ী ভাবে ভাঙন রোধের কাজ শুরু হয়েছে।

  • Share this:

#মালদহ: নিউজ-১৮ বাংলার খবরের জেরে মালদহের আইহোতে টাঙন নদীতে ভাঙ্গন রোধের কাজ শুরু করল সেচ দফতর। অসময়ের ভাঙ্গনে ওই এলাকায় নদীগর্ভে চলে যায় বেশ কিছু ঘরবাড়ি। এমনকি গোটা বাড়ুইপাড়া এলাকা নদীগর্ভে তলিয়ে যাওয়ার আশঙ্কা তৈরি হয়। সরকারকে দুষে বাড়িঘর ভেঙ্গে সরিয়ে নেওয়ার কাজ শুরু করে দেন আতঙ্কিত মানুষ।

নিউজ ১৮ বাংলায় খবর দেখানোর পর আপাতত জরুরি ভিত্তিতে প্রায় ২৬ লক্ষ টাকা খরচে অস্থায়ী ভাবে ভাঙন রোধের কাজ শুরু হয়েছে। গত কয়েকদিন ধরে মালদহের হবিবপুরের আইহো পঞ্চায়েতের বাড়ুইপাড়া এলাকায় অসময়ে টাঙ্গন নদীর ভাঙ্গন শুরু হয়। প্রায় ২০ ফুট উঁচু থেকে জমি জমা, পাকা নির্মান ধ্বসে পড়তে থাকে নদী গর্ভে।

এই নিয়ে প্রায় তিন মাস ধরে প্রশাসনের দ্বারস্থ হয় এলাকার ক্ষতিগ্রস্ত পরিবারগুলি। এই বছরের গোড়াতেই ভাঙ্গন রোধের কাজ শুরুর আশ্বাস দিয়েছিল প্রশাসন। কিন্তু, লকডাউনে কাজ কিছুই হয়নি। উল্টে জুন মাসের গোড়া থেকে শুরু হয় নদী ভাঙ্গন। এলাকার বেশ কয়েকটি বাড়ি নদীর দিকে ঝুঁকে পড়ে। নিজেরাই বাড়িঘর ভাঙা শুরু করেন।

বাড়ুইপাড়ার বাসিন্দাদের এই সমস্যা ও আতঙ্কের পরিস্থিতি তুলে ধরা হয় নিউজ ১৮ বাংলার খবরে। শেষপর্যন্ত এর জেরে শুরু হল ভাঙ্গন রোধের কাজ। এইজন্য নিউজ-১৮ বাংলার উদ্যোগকে সাধুবাদ জানিয়েছেন এলাকার মানুষ। তবে, অস্থায়ীভাবে কাজ হওয়ায় ক্ষোভও প্রকাশ করেছেন অনেকেই। সেচ দফতর সূত্রে জানা গিয়েছে, মালদহের আইহোর এই এলাকায় বর্ষার পর কোটি টাকা খরচ করে বোল্ডার দিয়ে ভাঙ্গন ঠেকানোর স্থায়ী কাজ হবে।

তবে, আপাতত বর্ষা এসে যাওয়ায় নদী পাড়ে শাল কাঠের লগ বসিয়ে ও বালির বস্তা দিয়ে ভাঙ্গন ঠেকানোর কাজ শুরু করা হয়েছে। আইহো গ্রাম পঞ্চায়েতের উপ প্রধান বাসনা মন্ডলের দাবি, এই কাজ শেষ হলে ভাঙ্গনের মুখে থাকা পরিবারগুলি আপাতত রক্ষা পেতে পারে। এরপর স্থায়ী ভাবে কাজ করা হবে।

Published by: Dolon Chattopadhyay
First published: June 17, 2020, 8:32 PM IST
পুরো খবর পড়ুন
अगली ख़बर