একটু উন্নয়ন, আর কিছু চায় না চ্যাংড়াবান্ধা সীমান্ত

উত্তরবঙ্গে এই ভারত-বাংলাদেশ সীমান্তবর্তী এলাকাটি রাজ্যের বাণিজ্য মানচিত্রে অত্যন্ত উল্লেখযোগ্য৷ কারণ মেখলিগঞ্জ মহকুমার আওতায় চ্যাংড়াবান্ধা একটি স্থল বন্দর৷ ভারত-বাংলাদেশ আন্তর্জাতিক সম্পর্কেও অতি গুরুত্বপূর্ণ৷

Arindam Gupta | News18 Bangla
Updated:Apr 16, 2019 08:33 AM IST
একটু উন্নয়ন, আর কিছু চায় না চ্যাংড়াবান্ধা সীমান্ত
Photo: Siddhartha Sarkar
Arindam Gupta | News18 Bangla
Updated:Apr 16, 2019 08:33 AM IST

#চ্যাংড়াবান্ধা: ভারত-বাংলাদেশ সীমান্তবর্তী এলাকা৷ একেবারে গ্রাউন্ড জিরো৷ কোচবিহার জেলার অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ এই অঞ্চল দিয়েই চলে ভারত-বাংলাদেশ আন্তর্জাতিক বাণিজ্য৷ সীমান্তেই রয়েছে ভিসা অফিস৷ বাংলাদেশ যাওয়ার ছাড়পত্র৷ বিএসএফ-এর ভারী বুটের শব্দ৷ কাঁটাতার৷

উত্তরবঙ্গে এই ভারত-বাংলাদেশ সীমান্তবর্তী এলাকাটি রাজ্যের বাণিজ্য মানচিত্রে অত্যন্ত উল্লেখযোগ্য৷ কারণ মেখলিগঞ্জ মহকুমার আওতায় চ্যাংড়াবান্ধা একটি স্থল বন্দর৷ ভারত-বাংলাদেশ আন্তর্জাতিক সম্পর্কেও অতি গুরুত্বপূর্ণ৷

Photo: Siddhartha Sarkar Photo: Siddhartha Sarkar

ভোটে চ্যাংড়াবান্ধা-সহ মেখলিগঞ্জের সীমান্তবর্তী এলাকায় সংখ্যালঘু মানুষের অন্যতম ইস্যু  কর্মসংস্থান ও এলাকার উন্নয়ন৷ স্থানীয়দের দাবি, চ্যাংড়াবান্ধার উন্নয়ন৷ আদপেই চ্যাংড়াবান্ধা বাজারটির অবস্থা শোচনীয় বললে অত্যুক্তি হয় না৷ রাস্তার অবস্থা মন্দ নয়৷ কিন্তু স্থানীয়দের জীবনযাত্রার মানোন্নয়ন তিমিরেই৷ ওই এলাকার বাসিন্দা সিরাজুল শেখের কথায়, ‘সীমান্তের গ্রামগুলির সঙ্গে যোগাযোগ ব্যবস্থার জন্য চাই আরও সরকারি বাস পরিষেবা৷ গ্রামগুলিতে কিষাণ মাণ্ডি রয়েছে, কিন্তু এক শ্রেণির মহাজন কৃষকদের পরিকাঠামোগত দুর্বলতার সুযোগ নিয়ে জলের দরে ফসল কিনছে৷‘

Photo: Siddhartha Sarkar Photo: Siddhartha Sarkar

Loading...

সার্কভূক্ত দেশগুলির মধ্যে বাণিজ্যের সুবিধার জন্য ১৯৮৭ সালে চ্যাংড়াবান্ধার সীমান্ত চেকপোস্ট দিয়ে ভারত-বাংলাদেশ-ভুটানের মধ্যে ব্যবসা বাণিজ্য চলছে ৷ ভুটান থেকে বাংলাদেশে এই সীমান্ত দিয়ে যায় আপেল, ডলোমাইট, কমলালেবু, বোল্ডার ইত্যাদি৷ কাস্টমসের অফিস সীমান্তেই টিনের ছাউনিতে৷

First published: 12:34:16 AM Apr 16, 2019
পুরো খবর পড়ুন
Loading...
अगली ख़बर