হোম /খবর /উত্তরবঙ্গ /
ট্যাবলেট, ক্যাপসুল ভুরিভুরি, কিন্তু নেই কোনও বৈধ কাগজ, মালদহের কাণ্ডে চোখ কপালে

ট্যাবলেট, ক্যাপসুল ভুরিভুরি, কিন্তু নেই কোনও বৈধ কাগজ, মালদহের কাণ্ডে চোখ কপালে পুলিশের

বাড়ি ভাড়া নিয়ে কয়েকমাস ধরে চলছিল বেআইনি কারবার, ধৃত চার, বাড়ির মালিককেও জিজ্ঞাসাবাদ পুলিশের।

  • Share this:

#মালদহ: মালদহে বেআইনি ওষুধের রমরমা কারবার। পুলিশের অভিযানে উদ্ধার বিপুল পরিমাণ ট্যাবলেট ও ক্যাপসুল। গ্রেফতার চার। বাড়ি ভাড়া নিয়ে গত কয়েক মাস ধরেই চলছিল কারবার। গোপন সূত্রে খবর পেয়ে বাড়ি ঘিরে তল্লাশি পুলিশের। ইংরেজবাজারের ১৪ নম্বর ওয়ার্ডের ব্রিজঘাট এলাকায় ঘটনা। কয়েক হাজার ট্যাবলেট ও ক্যাপসুল মিলেছে অভিযানে।

স্থানীয় বাসিন্দা আজাদ শেখের বাড়িতে ঘর ভাড়া নিয়ে চলছিল কারবার। উপযুক্ত নথিপত্র ছাড়াই চলছিল কারবার। ওষুধ ব্যবসার কোনও লাইসেন্স ছিল না। বাইরে থেকে হাজার হাজার ট্যাবলেট ও ক্যাপসুল এনে, প্যাকেট খুলে সেই ওষুধ আবার অন্যত্র পাঠানো হত বলে প্রাথমিকভাবে জানতে পেরেছে পুলিশ। ধৃতদের মধ্যে তিনজন পুরনো মালদহের সামুন্ডাই কলোনির বাসিন্দা। অপর এক জনের বাড়ি দক্ষিণ দিনাজপুরের হরিরামপুরে।

কোথা থেকে বিপুল পরিমাণ ট্যাবলেট ও ক্যাপসুল এনে মজুত করা হয়েছিল? কী ধরনের ট্যাবলেট ও ক্যাপসুল রয়েছে? এগুলি কী মেয়াদ উত্তীর্ণ? প্যাকেট থেকে ট্যাবলেট লুজ আকারে খুলে বাইরে বের করা হত কেন ? ওই ট্যাবলেট ফের কোথায় পাঠানো হত, কী কাজে ব্যবহার হত এমন হাজার হাজার ট্যাবলেট ও ক্যাপসুল ? - এমন নানা প্রশ্নের উত্তর খুঁজছেন ইংরেজবাজার থানার তদন্তকারী পুলিশ আধিকারিকেরা।

আরও পড়ুন: অভিষেকের সভার মাইকে শান্তিকুঞ্জের শান্তিভঙ্গ? মিটার হাতে মাপছে পুলিশ

উল্লেখ্য, বেআইনিভাবে ওষুধের কারবার চলছে এমন অভিযোগ পেয়ে হানা দেয় পুলিশ। মালদহের  ডি এস পি-র নেতৃত্বে চলে অভিযান। বেশ কয়েক বাক্স এবং বস্তাবন্দী ওষুধপত্র বাজেয়াপ্ত করা হয়েছে। ধৃতদের প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদ চালাচ্ছে পুলিশ। আগামীকাল রবিবার তাদের তোলা হবে মালদহ জেলা আদালতে।

এ দিকে পুলিশের অভিযান এবং গোপনে ওষুধের কারবার এর বিষয় প্রকাশ্যে আসতেই এলাকায় ভিড় জমান প্রচুর মানুষ। উদ্বেগ প্রকাশ করেন তাঁরা। ঘটনার উপযুক্ত তদন্তের দাবি উঠে। স্থানীয়রা জানিয়েছেন মাঝে মধ্যেই ভ্যানে করে প্যাকেটে বা বস্তায় ভর্তি জিনিসপত্র আসত। আবার সেগুলি বস্তা বন্দী হয়ে বাইরে চলেও যেত। ভেতরে কি কাজ হত তা কেউই জানতেন না।

Published by:Uddalak B
First published:

Tags: Crime