Home /News /north-bengal /
লকডাউনে খাবারের খোঁজে পুরসভায় হানা ক্ষুধার্ত বাঁদরের !

লকডাউনে খাবারের খোঁজে পুরসভায় হানা ক্ষুধার্ত বাঁদরের !

সটান ক্ষুধার্থ বাঁদর ঢুকে পড়ল ইংরেজবাজার পুরসভার চেয়ারম্যানের ঘরে। সেই সময় নিজের অফিসেই ছিলেন পুরপ্রধান।

  • Share this:

#মালদহ:-  লকডাউনে অমিল খাবার। গরীব,দুঃস্থ,ভবঘুরেদের সরকারি ও বেসরকারি উদ্যোগে খাবার পৌছনোর চেষ্টা হচ্ছে। কিন্তু লকডাউন  পরিস্থিতিতে খাবারের অভাবে বিপন্ন অনেক জীবজন্তু। খাবারের খোঁজে মালদহে ইংরেজবাজার পুরসভায় সোমবার হানা দিল এক বাঁদর। এমনই এক তাজ্জব ঘটনার সাক্ষী থাকল মালদহ।

সটান ক্ষুধার্থ বাঁদর ঢুকে পড়ল ইংরেজবাজার পুরসভার চেয়ারম্যানের ঘরে। সেই সময় নিজের অফিসেই ছিলেন পুরপ্রধান। আচমকা তাঁর ঘরে ঢুকে দরকারি জিনিসপত্রের আড়ালে খাবার খোঁজা শুরু করে বাঁদর। শেষ পর্যন্ত তাঁকে ঘরে থাকা বিস্কুট খেতে দেন পুরপ্রধান। এরপর কলা আনিয়ে খাবার ব্যবস্থা করেন পুরপ্রধান নিহাররঞ্জন ঘোষ। স্যানিটাইজারে হাত ধোওয়ানো হয় বাঁদরের। কার্যতঃ এক নিশ্বাসে খেতে দেখা যায় ক্ষুধার্ত ওই বাঁদরকে। পরে পুর কর্মীদের দেওয়া জল খেয়ে নিজেই পুরপ্রধানের ঘর ছেড়ে বেড়িয়ে যায় ওই বাঁদর।

এই ঘটনার ছবি ইতিমধ্যেই ভাইরাল মালদহে।  মালদহে জেলা আদালত চত্বর,ইংরেজবাজার পুরসভা, জেলা পুলিশ অফিস, জেলাশাসকের দফতর চত্বরে সারা বছরই ঘুরে বেড়াতে দেখা যায় অনেক বাঁদরকে। সাধারণত বিভিন্ন খাবারের দোকান থেকে দৈনন্দিন খাবার জোগাড় করে থাকে বাঁদরের দল। কিন্তু লকডাউন পরিস্থিতিতে এইসব দোকানগুলি বন্ধ। ফলে খাবারের জোগানে টান পড়ছে। এদিন ক্ষুধার্ত বাঁদরের সটান পুরপ্রধানের ঘরে হাজির হওয়ার এই ঘটনা তাদের খাবার না পাওয়ার সমস্যাকেই স্পষ্ট করেছে।  এদিনের ঘটনার পর শহরবাসীকে জীবজন্তু ও পশুপ্রানীদের খাবার দেওয়ার আর্জি জানিয়েছেন পুরপ্রধান। সামর্থ্য অনুযায়ী আশেপাশে থাকা প্রাণীকে কেউ যাতে খাবার দিতে না ভোলেন সেই আর্জি জানানো হয়েছে।

Published by:Siddhartha Sarkar
First published:

Tags: Coronavirus, Lock Down, Malda

পরবর্তী খবর