• Home
  • »
  • News
  • »
  • north-bengal
  • »
  • মদ খেয়ে বন্ধুদের সঙ্গে মিলে স্ত্রী’কে ধর্ষণ! অপমানে আত্মহত্যা গৃহবধূর! উত্তপ্ত কালিয়াগঞ্জ

মদ খেয়ে বন্ধুদের সঙ্গে মিলে স্ত্রী’কে ধর্ষণ! অপমানে আত্মহত্যা গৃহবধূর! উত্তপ্ত কালিয়াগঞ্জ

মৃতার স্বামী জানিয়েছে, স্ত্রী অস্বাভাবিক মদ্যপান করে সন্তানের অবহেলা করছিলেন । তার প্রতিবাদ করাতেই সে ফাঁস লাগিয়ে আত্মহত্যা করেছে।

মৃতার স্বামী জানিয়েছে, স্ত্রী অস্বাভাবিক মদ্যপান করে সন্তানের অবহেলা করছিলেন । তার প্রতিবাদ করাতেই সে ফাঁস লাগিয়ে আত্মহত্যা করেছে।

মৃতার স্বামী জানিয়েছে, স্ত্রী অস্বাভাবিক মদ্যপান করে সন্তানের অবহেলা করছিলেন । তার প্রতিবাদ করাতেই সে ফাঁস লাগিয়ে আত্মহত্যা করেছে।

  • Share this:

Uttam Paul

#কালিয়াগঞ্জ: গৃহবধূর অস্বাভাবিক মৃত্যুকে ঘিরে ব্যপক চাঞ্চল্যের সৃষ্টি হয়েছে। ঘটনাটি  উত্তর দিনাজপুর জেলার কালিয়াগঞ্জ থানার ধনকৈল গ্রাম পঞ্চায়েতের অধীনে নসিরহাটের মহাজন পাড়ায়। পুলিশ মৃতদেহ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য রায়গঞ্জ হাসপাতাল মর্গে পাঠিয়েছে। মৃতার পরিবারের অভিযোগ, মৃতার স্বামী বন্ধুদের নিয়ে এসে ধর্ষণ করে তাঁকে ফাঁস লাগিয়ে ঝুলিয়ে দিয়েছে। অভিযুক্তদের গ্রেফতারের দাবিতে মৃতার স্বামী এবং শাশুড়ির উপর হামলা চালায় মৃতার পরিবারের লোকজন, এমনটাই  অভিযোগ। ভাঙচুর করা হয় বাড়িঘর। আহত দু’জনকে রায়গঞ্জ গভর্মেন্ট মেডিক্যাল কলেজ ও হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। অভিযুক্তদের গ্রেফতারের দাবিতে আজ বিজেপির পক্ষ থেকে কালিয়াগঞ্জ রাজ্য সড়ক অবরোধ করে। কালিয়াগঞ্জ থানার পুলিশ জানিয়েছে, মৃতদেহ ময়নাতদন্তের জন্য রায়গঞ্জ হাসপাতাল মর্গে পাঠিয়েছে। ময়নাতদন্তের রিপোর্ট হাতে পেলেই মৃত্যুর সঠিক কারণ জানা যাবে। মৃতার স্বামী জানিয়েছে, স্ত্রী’র অস্বাভাবিক মদ্যপান করার প্রতিবাদ করাতেই সে ফাঁস লাগিয়ে আত্মহত্যা করেছে।

উত্তর দিনাজপুর জেলার কালিয়াগঞ্জ থানার ধনকৈল গ্রাম পঞ্চায়েতের নসিরহাটের মহাজনপাড়ার বাসিন্দা উজ্জ্বল সরকার গতকাল রাতে বাড়িতে বসে মদ্যপান করে বলে অভিযোগ। তারপরই উজ্জ্বলের স্ত্রী জয়ন্তী দাস সরকারের ঝুলন্ত দেহ উদ্ধার হয় । মৃত জয়ন্তীদেবীর এক বছরে সন্তান রয়েছে। জয়ন্তীর বাপের বাড়ির লোকদের কাছে এই খবর পৌঁছতেই তাঁরা দলবল নিয়ে উজ্জ্বলের বাড়িতে পৌঁছন। জয়ন্তীর আত্মীয়দের অভিযোগ, উজ্জ্বল তার বন্ধুদের সঙ্গে বাড়িতে বসে মদ্যপান করত। নেশায় বেহুঁশ হয়ে পড়ার পর তার স্ত্রী জয়ন্তীকে ধর্ষণ করত। সে দিনও সে ও তার বন্ধুরা মিলে একই কাজ করে । লজ্জায় জয়ন্তী গলায় ফাঁস লাগিয়ে আত্মহত্যা করে বলে অভিযোগ। এই অভিযোগের ভিত্তিতে জয়ন্তীর পরিবারের লোকেরা উত্তেজিত হয়ে উজ্জ্বল এবং তার মা হিমা সরকারকে ব্যাপক মারধোর করে। বাড়িঘর ব্যপক ভাঙচুর করা হয়। কালিয়াগঞ্জ থানার পুলিশ খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে পৌঁছায়। মৃতদেহ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য রায়গঞ্জ সরকারি মেডিক্যাল কলেজ ও হাসপাতালে পাঠানো হয়। আহত দু’জনকেও চিকিৎসার জন্য রায়গঞ্জ গভঃ মেডিক্যাল কলেজ ও হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে।

বৃহস্পতিবার এই অস্বাভাবিক মৃত্যুর ঘটনাকে নিয়ে রাস্তায় নামে বিজেপি। অভিযুক্তদের গ্রেফতারের দাবিতে রায়গঞ্জ বালুরঘাট রাজ্য সড়ক অবরোধ করে। কালিয়াগঞ্জ থানার পুলিশ ঘটনাস্থলে পৌঁছে অভিযুক্তদের গ্রেফতারের আশ্বাস দিলে অবরোধ প্রত্যাহার করা হয়। মৃতার দিদার অভিযোগ, জয়ন্তীকে ধর্ষণ করে খুন করে ঝুলিয়ে দিয়েছে শ্বশুরবাড়ির লোকজন। মৃতার স্বামী উজ্জ্বল সরকার রায়গঞ্জ হাসপাতালে দাঁড়িয়ে জানায়, গতকাল রাতে আকন্ঠ মদ্যপান করে ছোট শিশুকে অবহেলা করছিল জয়ন্তী। সন্তানকে অবহেলা করায় সে তার প্রতিবাদ করে। তারপরই জয়ন্তী ঘরের মধ্যে ফাঁস লাগিয়ে আত্মহত্যা করেছে। শ্বশুরবাড়ির লোকেরা এসে তাদের উপর হামলা করেছে। তাদের মারেই তারা আহত হয়েছেন। কালিয়াগঞ্জ থানার আই সি সোমেন লামা জানিয়েছেন, ঝুলন্ত দেহ উদ্ধার হয়েছে। মৃতদেহ ময়নাতদন্তের জন্য রায়গঞ্জ হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে। ময়নাতদন্তের রিপোর্ট হাতে পাওয়ার পরই মৃত্যুর সঠিক কারণ জানা যাবে। পুলিশ অস্বাভাবিক মৃত্যুর মামলা রুজু করে তদন্ত শুরু করেছে ।

Published by:Simli Raha
First published: