Home /News /north-bengal /
GTA Election 2022|| শক্তি মাপছে সব দল, রাত পোহালেই পাহাড়ে GTA নির্বাচন, রাজনৈতিক তরজা তুঙ্গে...  

GTA Election 2022|| শক্তি মাপছে সব দল, রাত পোহালেই পাহাড়ে GTA নির্বাচন, রাজনৈতিক তরজা তুঙ্গে...  

GTA Election 2022: পাহাড়ের সব রাজনৈতিক দল তাদের শক্তি মেপে নিয়েছে। এ বার পালা পাহাড়ের জিটিএ ভোট করে নেওয়ার। জুন মাসেই ভোট ঘোষণার আগে থেকেই প্রশাসনিক স্তরেও শুরু হয়ে গিয়েছিল এই নির্বাচন করানোর জন্য তৎপরতা।

  • Share this:

#শিলিগুড়ি: আগামিকাল পাহাড়ে জিটিএ নির্বাচনের পালা।  দার্জিলিংয়ের পুরসভা ভোটের ফল প্রকাশিত। পাহাড়ের সব রাজনৈতিক দল তাদের শক্তি মেপে নিয়েছে। এ বার পালা পাহাড়ের জিটিএ ভোট করে নেওয়ার। জুন মাসেই ভোট ঘোষণার আগে থেকেই প্রশাসনিক স্তরেও শুরু হয়ে গিয়েছিল এই নির্বাচন করানোর জন্য তৎপরতা।

প্রশাসন সূত্রে জানানো হয়েছে, রাজ্য নির্বাচন কমিশনের সাথে বৈঠকের পরে সিদ্ধান্ত হয়েছিল ২৬ জুন ভোট। পাশাপাশি আগামিকাল জুন মাসেই শিলিগুড়ি মহকুমা পরিষদের নির্বাচনে। সূত্রের খবর, বর্ষা মিটলে পাহাড়ে বাকি থাকা তিন পুরসভার ভোট করানোরও সিদ্ধান্ত নেওয়া হতে পারে। গত এপ্রিল মাসে, মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় নিজেই জানিয়েছিলেন শীঘ্রই পাহাড়ে জিটিএ নির্বাচন হবে। পাহাড়ে এই মুহূর্তে শুধু পঞ্চায়েত সমিতি ও গ্রাম পঞ্চায়েতের দু'টি স্তর রয়েছে। সংশোধনী এনে সেখানে জেলা পরিষদ গঠনের উদ্যোগ নেওয়া হতে পারে।

আরও পড়ুন: কিছুক্ষণের মধ্যেই কাঁপিয়ে বৃষ্টি দক্ষিণের জেলায় জেলায়, হাওয়া অফিসের সতর্কতা জারি...

পাহাড়ের পঞ্চায়েত নিয়ে কেন্দ্রীয় সরকারের ঢিলেমির অভিযোগ অবশ্য আনছে রাজ্য। রাজ্য প্রশাসন নজর রেখেছিল পাহাড়ের সব রাজনৈতিক দল একজোট হয়ে ভোটে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করে কিনা? পুরভোটে সেই প্রক্রিয়া সম্পন্ন হয়েছে। ফলে প্রশাসনিক সূত্রে খবর, জিটিএ ভোটের প্রক্রিয়া শুরু করে দেওয়া হয়েছিল সেই সময়েই। নবান্নের তরফে পাহাড়ের দলগুলিকে আগেই সেই ইঙ্গিত দেওয়া হয়েছিল।পাহাড়ে পঞ্চায়েত নির্বাচনের দাবি দীর্ঘ দিনের। জিটিএ-র পর গোটা রাজ্যের সঙ্গে সেই ভোট পর্বও মিটিয়ে ফেলতে চাইছে রাজ্য সরকার।

আরও পড়ুন: আপনার ফোনে কি বিদ্যুৎ দফতরের নামে 'এই' মেসেজ এসেছে? কী করবেন, কী করবেন না? জানুন...

গত ২৬ অক্টোবর কার্শিয়াং সফরে গিয়ে মুখ্যমন্ত্রী পাহাড় সমস্যার চিরকালীন সমাধানের কথা বলেছিলেন। সমস্ত দলকে একজোট হতে বলেছিলেন। কমিটি গড়েছিলেন। যাতে পাহাড়ের যাবতীয় প্রয়োজনীয় ইস্যু নিয়ে আলোচনা হতে পারে। এই নিয়ে গত এপ্রিল মাসে  মাসে আলাদা আলাদা করে কথা হয়েছে অনীত থাপা-বিমল গুরুং-রোশন গিরিদের সঙ্গে। তবে এর মধ্যে উল্লেখযোগ্য হল বিনয় তামাং যোগ দিয়েছেন তৃণমূলে। আর পাহাড়ের নতুন আঞ্চলিক দল হিসেবে উঠে এসেছে হামরো পার্টি। ফলে পাহাড়ে পঞ্চায়েত ভোটকে গুরুত্ব দিয়ে দেখার কথা ভাবা হচ্ছে। প্রশাসনিক এই উদ্যোগকে স্বাগত জানিয়েছে পাহাড়ের সব আঞ্চলিক দল।

অনীত থাপা জানিয়েছেন, নির্বাচনের পরিস্থিতি রয়েছে। সকলে তাতে যোগদান করছেন এটা পুরভোটের মাধ্যমে প্রতিষ্ঠিত। এ বার বাকি নির্বাচন করিয়ে নেওয়া হোক। সব রাজনৈতিক দলকে শুভেচ্ছা জানিয়েছেন তিনি।হামরো পার্টির নেতা অজয় এডওয়ার্ড জানিয়েছেন, পাহাড়ে নির্বাচনে তারা একাই লড়াই করছে। অজয় বিমল-অনীত সুযোগ পেয়েও পাহাড়ের উন্নয়ন করেননি। আমরা সেই উন্নয়ন করতে চাই। যদিও অন্য সুর রোশন গিরির গলায়। চিঠি দিয়ে আগেই জানিয়েছিলেন তিনি, যাতে এখনই জিটিএ ভোট না হয়। আর ভোট ঘোষণা হতেই জিটিএ ভোটের বিরোধীতায় ধর্ণায় বসেছিলেন বিমল গুরুং।

ABIR GHOSHAL

Published by:Shubhagata Dey
First published:

Tags: Darjeeling, GTA

পরবর্তী খবর