টাইগার হিলে গাড়ি সংখ্যা নিয়ে রাজ্যের কড়াকড়ি, বড় আন্দোলনের হুমকি দিল পর্যটন সমিতি

কুপন সিস্টেম বাতিল করার জন্য, বুধবার রাজ্যকে দু'দিনের সময়সীমা বেঁধে দিল দার্জিলিঙের ট্রাভেল এজেন্সি ও গাড়ি চালকদের সংগঠন।

Bangla Editor | News18 Bangla
Updated:Sep 13, 2019 08:10 AM IST
টাইগার হিলে গাড়ি সংখ্যা নিয়ে রাজ্যের কড়াকড়ি, বড় আন্দোলনের হুমকি দিল পর্যটন সমিতি
Bangla Editor | News18 Bangla
Updated:Sep 13, 2019 08:10 AM IST

#দার্জিলিং: দু'দিনের মধ্যে প্রত্যাহার করতে হবে টাইগার হিলের কুপন সিস্টেম। রাজ্যকে সময়সীমা বেঁধে দিল দার্জিলিঙের ট্রাভেল এজেন্সি ও গাড়ি চালকদের সংগঠন। দাবি না মানা হলে বড় আন্দোলনের হুমকিও দিয়েছেন তাঁরা। যানজট কমাতে টাইগার হিলে প্রতিদিন তিনশোটি গাড়ি যাওয়ার অনুমতি দিচ্ছে জেলা পুলিশ।

সিকিম, হিমাচলে অনেক আগে থেকেই রয়েছে এমন নিয়ম। সেই ধাঁচে দার্জিলিঙের টাইগার হিলেও গাড়ির সংখ্যা বেঁধে দিয়েছে জেলা পুলিশ। পয়লা সেপ্টেম্বর থেকে প্রতিদিন তিনশোটি গাড়ি যাওয়ার অনুমতি দেওয়া হচ্ছে। টাইগার হিল দর্শনের জন্য, একদিন আগে থেকে সংগ্রহ করতে হচ্ছে কুপন। দার্জিলিঙে পর্যটনের সঙ্গে যুক্ত বিভিন্ন সংগঠনগুলির অভিযোগ, এই কুপন সিস্টেমের ফলে মার খাচ্ছে ব্যবসা। তাই কুপন সিস্টেম বাতিল করার জন্য, বুধবার রাজ্যকে দু'দিনের সময়সীমা বেঁধে দিল দার্জিলিঙের ট্রাভেল এজেন্সি ও গাড়ি চালকদের সংগঠন।

দার্জিলিঙের অন্যতম জনপ্রিয় পর্যটন কেন্দ্র টাইগার হিল। পাহাড়চূড়া থেকে সূর্যদয় দেখতে প্রতিবছর টাইগার হিলে ভিড় জমান অসংখ্য দেশি-বিদেশি পর্যটক। তাই গাড়ির চাহিদাও থাকে অনেক বেশি। এই পরিস্থিতিতে জেলা পুলিশ গাড়ির সংখ্যা বেঁধে দেওয়ায় রীতিমতো চিন্তায় পর্যটন ব্যবসায়ীরা। তাই রাজ্য সরকার দাবি না মানলে, আগামী দিনে আন্দোলনের হুমকিও দিয়েছেন তারা।

বৃহস্পতিবারই শেষ হচ্ছে সময়সীমা। তারমধ্যে কি কুপন প্রত্যাহারের দাবি মেনে নেবে রাজ্য? দাবি না মানা হলে কতটা প্রভাব পড়বে পর্যটন শিল্পে? পুজোর মরশুমের ঠিক আগে নতুন অনিশ্চয়তার মুখে কুইন অফ হিলস।

First published: 08:10:54 AM Sep 13, 2019
পুরো খবর পড়ুন
Loading...
अगली ख़बर