তৃণমূলকে ময়দান ছাড়তে নারাজ মোর্চা, মন্ত্রীর কুশপুতুল পুড়িয়ে বিক্ষোভ

File Picture

পুরসভা ও পঞ্চায়েত নির্বাচনকে কেন্দ্র করে এক ইঞ্চি জমি ছাড়তে নারাজ গোর্খা জনমুক্তি মোর্চা। তৃণমূল নেত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ে যেমন দ্বিমুখী কৌশল নিয়েছেন, তেমনই পাল্টা কৌশল মোর্চারও। গোর্খাল্যান্ডের দাবিতে নতুন করে মানুষের ভাবাবেগ জাগিয়ে তোলার চেষ্টার মোর্চারও।

  • Pradesh18
  • Last Updated :
  • Share this:

    #দার্জিলিং: পুরসভা ও পঞ্চায়েত নির্বাচনকে কেন্দ্র করে এক ইঞ্চি জমি ছাড়তে নারাজ গোর্খা জনমুক্তি মোর্চা। তৃণমূল নেত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ে যেমন দ্বিমুখী কৌশল নিয়েছেন, তেমনই পাল্টা কৌশল মোর্চারও। গোর্খাল্যান্ডের দাবিতে নতুন করে মানুষের ভাবাবেগ জাগিয়ে তোলার চেষ্টার মোর্চারও।

    পাহাড়ে তৃণমূলের সংগঠন বাড়ানোর দায়িত্বে রয়েছে অরূপ বিশ্বাস। সরাসরি মুখ্যমন্ত্রীর বিরোধিতা করতে না পারলেও অরূপ বিশ্বাসের কুশপুতুল দাহ করে নিজেদের অবস্থান জানান দেওয়ার চেষ্টা মোর্চা নেতৃত্বের। এই ঘটনায় দুই মোর্চা সমর্থককে আটক করে পুলিশ পাল্টা পথে নামে তৃণমূলও। বৃহস্পতিবার মুখ্যমন্ত্রীর জনসভার শেষে তাই রাজনৈতিক ভাবে কৌশলী মোর্চা নেতৃত্ব।

    উত্তেজনা বাড়ছে পাহাড়ে। নির্বাচনকে কেন্দ্র করে শাসকদল মোর্চা আর বিরোধী তৃণমূল কংগ্রেস নিজেদের অবস্থান যাচাই করে নিতে চাইছে।

    পাহাড় সফরে মুখ্যমন্ত্রী। জমি ধরে রাখতে তাই ফের আন্দোলনমুখী গোর্খা জনমুক্তি মোর্চা। ঝিমিয়ে পড়া গোর্খাল্যান্ড ইস্যু ও রাজ্যের বিরুদ্ধে অসহযোগিতার অভিযোগ, ফের সামনে আনতে চাইছেন বিমল গুরুংরা। আমরণ অনশনে বসছে মোর্চার ছাত্র সংগঠন। পুজোয় পর্যটনের ভরা মরসুমে ফের পাহাড়ে অশান্তির মেঘ।

    দলের ছাত্র-যুব সংগঠনকে সামনে রেখে ফের পৃথক রাজ্যের দাবিতে আন্দোলনে গোর্খা জনমুক্তি মোর্চা। পুজোর আগে পাহাড়ে ফের অশান্তির মেঘ। গোর্খাল্যান্ডের দাবিতে এবার অনির্দিষ্টকালের অনশনে বসছে মোর্চার ছাত্র সংগঠন।

    মুখ্যমন্ত্রীর একের পর এক পাহাড় সফর। উন্নয়নের একাধিক কর্মসূচির ভিড়ে, পৃথক রাজ্যের দাবি অনেকটাই ব্যাকফুটে। ইতিমধ্যেই দল ছেড়েছেন হরকাবাহাদুর ছেত্রী, প্রদীপ প্রধান, শুভময় চট্টোপাধ্যায় সহ একাধিক মোর্চা নেতা। এই পরিস্থিতিতে চলতি মাসেই ফের পাহাড়ে মুখ্যমন্ত্রী। রাজনৈতিক মহলের ধারনা, সংগঠন ধরে রাখতে পাল্টা রাজ্য ও কেন্দ্রের ওপর চাপের রাজনীতিকেই হাতিয়ার করতে চাইছেন বিমল গুরুং।

    অভিযোগ উঠেছে, জিটিএ চালাতে রাজ্যের অসহযোগিতারও। তাই দেওয়ালে পিঠ ঠেকে যাওয়া অবস্থায় ঘুরে দাঁড়াতে মরিয়া মোর্চারা। এবার বিমল গুরুংদের বোরে ছাত্র ও যুব সংগঠন। এই অবস্থায় পুজোর ভরা মরসুমে ফের পাহাড়ে অশান্তির মেঘ ৷

    First published: