প্যান্টের পকেটে উদ্ধার রাশি রাশি সোনার বিস্কুট! যুবকের কীর্তিতে চক্ষু চড়কগাছ পুলিশের

প্যান্টের পকেটে উদ্ধার রাশি রাশি সোনার বিস্কুট! যুবকের কীর্তিতে চক্ষু চড়কগাছ পুলিশের

জিজ্ঞাসাবাদের জন্য ১৪ দিনের পুলিশী হেফাজতের আবেদন জানিয়ে ধৃতকে আজ, বুধবার ইসলামপুর আদালতে পেশ করে গোয়ালপোখর থানার পুলিশ।

জিজ্ঞাসাবাদের জন্য ১৪ দিনের পুলিশী হেফাজতের আবেদন জানিয়ে ধৃতকে আজ, বুধবার ইসলামপুর আদালতে পেশ করে গোয়ালপোখর থানার পুলিশ।

  • Share this:

#গোয়ালপোখর: উত্তর দিনাজপুর জেলার গোয়ালপোখর থানার বড়বিল্লা গ্রামে মেহমুদ আলম নামে এক ব্যক্তির কাছ থেকে ৩৯৬ গ্রাম সোনার বিস্কুট উদ্ধার করল পুলিশ। অভিযুক্তকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ ৷ বাজেয়াপ্ত করা হয়েছে একটি মোটরবাইকও। জিজ্ঞাসাবাদের জন্য ১৪ দিনের পুলিশী হেফাজতের আবেদন জানিয়ে ধৃতকে আজ, বুধবার ইসলামপুর আদালতে পেশ করে গোয়ালপোখর থানার পুলিশ। ঘটনার তদন্ত শুরু হয়েছে।

গতকাল, মঙ্গলবার রাতে গোপন সূত্রে খবর পেয়ে গোয়ালপোখর থানার বড়বিল্লা গ্রামের স্টেট ব্যাঙ্কের সামনে এক ব্যক্তিকে মোটরবাইক নিয়ে দাঁড়িয়ে থাকতে দেখা যায়। তাকে জিজ্ঞাসাবাদ করার সময়ে তার কথায় অসংলগ্ন থাকায় তল্লাশি চালায় পুলিশ। সেইসময়েই প্যান্টের পকেট থেকে তিনটি সোনার বিস্কুট-সহ বেশ কিছু সোনা উদ্ধার হয়। সোনা পাচারের অভিযোগে পুলিশ মেহমুদ আলমকে গ্রেফতার করে। পুলিশের জেরায় মেহমুদ আলম জানায়, তার বাড়ি গোয়ালপোখর থানার সাহাপুর(২) এলাকায়। বাংলাদেশ থেকে চোরাপথে সোনাগুলি ভারতে আসে। সেই সোনাগুলো ইসলামপুর এবং কিষানগঞ্জে সে দিতে যাচ্ছিল। পুলিশের জেরায় মেহমুদ আরও জানায়, দীর্ঘদিন ধরেই এই সোনা পাচারে যুক্ত রয়েছে সে। বাংলাদেশ থেকে সোনা এনে ইসলামপুর এবং কিষানগঞ্জে পাচার করেছে। পুলিশী হেফাজ তে নিয়ে পুলিশ জানতে চায় এই পাচারচক্রে কারা কারা যুক্ত।ইসলামপুর পুলিশ জেলার পুলিশ সুপার সচিন মক্কার জানিয়েছেন, ধৃতকে জিজ্ঞাসাবাদ করে অনেক নতুন তথ্য পুলিশের হাতে এসেছে। পুলিশ সুপার আরও জানান, উদ্ধার হওয়া সোনার মূল্য প্রায় ২০ লক্ষ টাকা।

উত্তম পাল

Published by:Siddhartha Sarkar
First published: